×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

০২ মার্চ ২০২১ ই-পেপার

অ্যাপেই হুইস্কি-সোডা আর মুরগি-মটন

জগন্নাথ চট্টোপাধ্যায়
কলকাতা ০১ জানুয়ারি ২০২১ ০৫:৩১
প্রতীকী ছবি।

প্রতীকী ছবি।

বেশ কিছু দিন ধরেই অনলাইনে বাস বা ট্রেনের টিকিট, সরকারি অতিথিশালা, এমনকি হাসপাতালের শয্যা বুকিংয়ের বন্দোবস্ত করে আসছে সরকার। এ বার তারা অনলাইনে পানশালায় পেগ বুকিংয়ের ব্যবস্থাও চালু করছে। চাইলে হুইস্কির সঙ্গে চিকেন টিক্কা কাবাবেরও বুকিং করা যাবে সাইবার-সরণিতে। সেই মদ এবং খাবার রাখা যাবে ‘ওয়ালেট’ বা সুরা সিন্দুকে। ঠিক যেমন টাকা রাখা থাকে পে-টিএমে। তার পরে সময় ও সুবিধামতো পানশালায় গেলেই হবে।

নতুন বছরে মদ নিয়ে এমনই এক অ্যাপ চালু করছে রাজ্যের আবগারি দফতর। বিভিন্ন পানশালার হাজারো ব্র্যান্ডের মদের দামের তালিকা, মনের মতো খাবারের ফিরিস্তি ফুটে উঠবে অনলাইনে। অনেকটা মোবাইল প্রি-পেড রিচার্জ করার মতো আগে থেকে টাকা দিয়ে যত খুশি মদের পেগ এবং খাবার ‘বুক’ করে রাখা যাবে।

আবগারি দফতরের এক কর্তা জানান, রাজ্যের পানশালাগুলিতে আরও সুশৃঙ্খল ভাবে মদ্যপানের ব্যবস্থা করতেও এই অ্যাপ সহায়ক হবে। সরকার অবশ্য নিজেরা সরাসরি ওই অ্যাপ চালাতে চায় না। এই বিষয়ে বুধবারেই বিভিন্ন সংস্থার কাছ থেকে ‘ইওআই’ বা আগ্রহপত্র চেয়েছে আবগারি দফতর। তবে ওই অ্যাপের মাধ্যমে কারবারের সমস্ত খুঁটিনাটি সরকারি নিয়ন্ত্রণেই চলবে। যাতে মদ্যপায়ীরা কোনও ভাবেই প্রতারিত না-হন, সেটাও দেখবে সরকার।

Advertisement

আরও পড়ুন: করোনা পরীক্ষায় নেগেটিভ লন্ডন ফেরত সহযাত্রীরা

আরও পড়ুন: বর্ষশেষে রাতপার্টি? এই সব নিয়ম মেনে মদ্যপানে হ্যাংওভারের ঝামেলা থাকে না

আবগারি-কর্তাদের আশা, করোনা আবহে এই নতুন অ্যাপ-ব্যবস্থায় পানশালাগুলিতে ভিড় এড়ানো সম্ভব হবে। মদ্যপায়ীরা একটি পানশালায় জায়গা না-পেলে অন্যত্র যেতে পারবেন। ফলে সব পানশালাই ব্যবসা পাবে, আবার কোথাও ভিড়ও হবে না। আবগারি দফতর জানাচ্ছে, নতুন অ্যাপ মারফত পানরসিকেরা নিজের সুরা সিন্দুকে পছন্দমতো ব্র্যান্ডের মদ কিনে রাখতে পারেন। পানশালায় গিয়ে সেই সিন্দুক থেকে ইচ্ছামতো মদ বার করে পান করা যাবে। বার-মালিক অ্যাপের বুকিং দেখেই মদ সরবরাহ করবেন। শুধু মদ নয়, যথাযথ ভোজনেরও বুকিং করা যাবে।

ওই অ্যাপে সারা ক্ষণ বিভিন্ন পানশালার হরেক মদের প্রতি পেগের দাম ‘লাইভ’ দেখা যাবে। চাহিদা ও সরবরাহের তত্ত্ব মেনে দাম বাড়ানো বা কমানোর স্বাধীনতা দেওয়া হবে পানশালার মালিকদের। একই ব্র্যান্ডের মদ দুপুরে কোনও পানশালায় যে-দামে পাওয়া যাবে, সন্ধ্যায় তার চেয়ে দাম হয়তো বেশি পড়বে। একই ব্র্যান্ডের মদ এক-একটি পানশাল এক-এক রকম দামে বিক্রি করতে পারবে। পানরসিকেরা সস্তায় খেতে চাইলে সস্তার পানশালায় যাবেন। কোনও পানশালার পরিবেশ ভাল লাগলে সেখানে বেশি দামেও পেগ বুকিং করা যাবে। তবে আবগারি দফতর একটি সর্বনিম্ন দাম বেঁধে দেবে। তার চেয়ে কম দামে কোনও পানশালাই মদ বিক্রি করতে পারবে না।

আবগারি দফতর জানাচ্ছে, অ্যাপের মাধ্যমে পেগ বুকিংয়ের ক্ষেত্রে দাম অবশ্য আগেই মিটিয়ে দিতে হবে। দাম মেটালে তবেই সংশ্লিষ্ট অ্যাপ ও পানশালা থেকে বুকিং ‘কনফার্ম’ বা নিশ্চিত করা হবে। কেউ চাইলে অন্যের জন্য পেগ বুক করতে পারবেন। অর্থাৎ নিজে পান করতে ইচ্ছুক নন অথচ বন্ধুকে ‘ট্রিট’ দিতে বা আপ্যায়ন করতে চান— এমন ব্যক্তির জন্য নির্দিষ্ট বার বা বেস্তরাঁয় দু’চার পেগ মদ বুক করার ব্যবস্থাও করে দিচ্ছে আবগারি দফতর।

Advertisement