Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৮ অক্টোবর ২০২১ ই-পেপার

BJP: প্রাক্তন বিমানসেবিকা বঙ্গ বিজেপি-র কৃষক মুখ, নাম ডায়না, চাষ করেন বাঁশ

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা ১৯ অগস্ট ২০২১ ১৯:১২
ডায়না ঘোষ এত দিন উত্তরবঙ্গে কিসান মোর্চার দায়িত্বে ছিলেন।

ডায়না ঘোষ এত দিন উত্তরবঙ্গে কিসান মোর্চার দায়িত্বে ছিলেন।

রাজনীতিতে যোগ দেওয়ার অল্প দিনের মধ্যেই বড় দায়িত্ব পেলেন উত্তরবঙ্গের বিজেপি নেত্রী ডায়না ঘোষ। বুধবার বিজেপি-র কিসান মোর্চার জাতীয় কার্যকারিণী সমিতির নতুন সদস্যদের তালিকা প্রকাশ হয়েছে। তাতেই নাম রয়েছে আলিপুরদুয়ারের মেয়ে ডায়নার। তিনি ছাড়াও ওই কমিটিতে জায়গা পেয়েছেন বর্ধমানের বিজেপি নেতা ভরত ঢালি।

৪২ জনের সর্বভারতীয় কমিটি-তে জায়গা পেয়ে খুবই খুশি ডায়না আর ভরত। ডায়নার সঙ্গে কৃষির যোগ অবশ্য খুবই কম। ইংরেজিতে এমএ করার পরে বিমানসেবিকা হিসেবে কিছুদিন চাকরি করেন একটি বেসরকারি সংস্থায়। এর পরে রাজনীতিতে যোগ। রাজ্য কিসান মোর্চার উত্তরবঙ্গ জোনের সহ-আহ্বায়ক হয়ে হ্যামিলটনগঞ্জের বাসিন্দা ডায়না বিধানসভা নির্বাচনের সময়ে দলের কৃষক সংগঠনের হয়ে কাজও করেন। বিজেপি সূত্রে খবর, সেই সময়ে উত্তরবঙ্গে ‘কৃষক সম্মান যাত্রা’ এবং ‘বাড়ি বাড়ি মুষ্টি ভিক্ষা’ কর্মসূচিতে ডায়নার অংশগ্রহণ ছিল উল্লেখযোগ্য। সেই সূত্রেই এ বার সর্বভারতীয় দায়িত্ব।

নতুন দায়িত্ব ঘোষণার পরে ডায়না আনন্দবাজার অনলাইনকে বলেন, ‘‘আমি কৃষক পরিবারের মেয়ে না হলেও কৃষির সঙ্গে যোগাযোগ রয়েছে। আমাদের কিছু জমিতে বাঁশ চাষ হয়। আমি সেই কাজেও হাত লাগাই। কিন্তু কৃষকদের উন্নয়নে কাজ করতে হলে কৃষক হতে হবে এমনটা আমি মনে করি না। কেন্দ্রীয় সরকারের কৃষি উন্নয়নের যে সব প্রকল্প রয়েছে তার সুবিধা যাতে সকল কৃষক পান সেটা দেখাই হবে আমার কাজ।’’

Advertisement

বর্ধমানের ভরত অবশ্য সরাসরি কৃষক। লেখাপড়াও কৃষি বিষয়ে। ছেলেবেলা থেকে বাবার সঙ্গে জমিতে কাজ করার পাশাপাশি আউশগ্রামের বাসিন্দা ভরত বর্ধমান কৃষি বিজ্ঞান কেন্দ্র থেকে ডিপ্লোমা করেন। সঙ্ঘ পরিবারের সদস্য ভরত ২০১৫ সালে পশ্চিমবঙ্গ সরকারের পক্ষ থেকে ‘কৃষি রবি’ সম্মানও পান। রাজনীতিতে দীর্ঘদিন সক্রিয় ভরত ২০০৩ থেকে ২০১৮ সাল বিজেপি-র টিকিটে জয়ী পঞ্চায়েত সদস্যও ছিলেন। এ বার সর্বভারতীয় সাংগঠনিক দায়িত্ব। খুব তাড়াতাড়ি নিজেদের কর্তব্য বুঝে নিতে দিল্লি যাবেন ভরত ও ডায়না।

বিধানসভা নির্বাচনের পর থেকেই উত্তরবঙ্গকে আলাদা গুরুত্ব দিচ্ছে বিজেপি। এ বারেও তেমনটা দেখা গেল। ভোটে দক্ষিণের তুলনায় উত্তরবঙ্গে ভাল ফল করেছে বিজেপি। এর পরে উত্তরের অনেককেই সর্বভারতীয় দায়িত্বে আনা হচ্ছে। মন্ত্রী হয়েছেন আলিপুরদুয়ারের জন বার্লা, কোচবিহারের নিশীথ প্রামাণিক। দার্জিলিঙের সাংসদ রাজু বিস্তাকে সম্প্রতি বিজেপি যুব মোর্চারসর্বভারতীয় সাধারণ সম্পাদক করা হয়েছে। সর্বভারতীয় দায়িত্ব পেয়েছেনকোচবিহারের বিজেপি জেলা সভাপতি তথা তুফানগঞ্জের বিধায়কমালতি রাভা রায়। তিনি হয়েছেন মহিলা মোর্চার সর্বভারতীয় সহ-সভাপতি। এ বার তার সঙ্গে যুক্ত হল আলিপুরদুয়ারের ডায়নার নাম।

আরও পড়ুন

Advertisement