Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

১৮ জানুয়ারি ২০২২ ই-পেপার

গুগ্‌ল মিটে মুখ দেখে নথিপত্র যাচাই কলেজে

মধুমিতা দত্ত
১৫ নভেম্বর ২০২০ ০৫:১৪
প্রতীকী ছবি।

প্রতীকী ছবি।

অতিমারিতে কলেজ বন্ধ থাকলেও ভর্তি চলছে অনলাইনে। রাজ্যের উচ্চশিক্ষা দফতরের নির্দেশ, অনলাইনে ভর্তির পরে পড়ুয়াদের নথি যাচাই করা হবে তাঁদের কলেজে পদার্পণের প্রথম দিনে। একে তো ভর্তিতে দেরি হচ্ছে অনেক। বিলম্বিত হবে নথি যাচাইও। এই অবস্থায় উলুবেড়িয়া কলেজ আগেভাগেই অনলাইনে পড়ুয়াদের নথি যাচাইয়ের সিদ্ধান্ত নিয়েছে। তার জন্য তারা বেছে নিয়েছে ‘গুগ্‌ল মিট’কে। এই প্রযুক্তির মাধ্যমে ১৭ থেকে ১৯ নভেম্বর নবাগতদের নথি যাচাই করা হবে। এই পদ্ধতিতে পড়ুয়াদের চাক্ষুষ করতে পারবেন নথিপত্রের পরীক্ষকেরা।

কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ে স্নাতক প্রথম বর্ষের অনলাইন রেজিস্ট্রেশন বা নথিভুক্তির প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে অক্টোবরের মাঝামাঝি। চলবে পুরো নভেম্বর। এই প্রক্রিয়া চলছে হাতে-কলমে নথিপত্র যাচাই ছাড়াই। নথিভুক্তির পরে কলেজে নথি যাচাইয়ের সময় যদি দেখা যায় যে, তা ভুয়ো, তা হলে সংশ্লিষ্ট পড়ুয়ার ভর্তি বাতিল হয়ে যাবে। প্রশ্ন উঠছে, তা হলে আগেভাগে এই নথিভুক্তি কেন? নথির গোলমালে ভর্তি বাতিলের আশঙ্কা যখন আছেই, তা হলে এখন রেজিস্ট্রেশনের দরকারটা কী?

এই নিয়ে বিতর্কের মধ্যেই উলুবেড়িয়া কলেজ ঠিক করেছে, তারা অনলাইনে নথি যাচাই করে তবেই নথিভুক্তির প্রক্রিয়া সারবে। ওই কলেজের অধ্যক্ষ দেবাশিস পাল শনিবার জানান, তাঁর প্রতিষ্ঠানে স্নাতক প্রথম বর্ষে অন্তত চার হাজার পড়ুয়া ভর্তি হয়েছেন। এ ছাড়াও রয়েছেন স্নাতকোত্তর স্তরের পড়ুয়ারা। ঠিক হয়েছে, গুগ্‌ল মিটের মাধ্যমে নবাগতদের নথি যাচাই করা হবে। তার সঙ্গে সঙ্গে চলবে নথিভুক্তির কাজও।

Advertisement

তিনি বলেন, ‘‘প্রথম বর্ষে পড়ুয়ারা যখন অনলাইনে ভর্তির আবেদন করেছেন, তখন উচ্চ মাধ্যমিক শিক্ষা সংসদের ওয়েবসাইট থেকে তাঁদের উচ্চ মাধ্যমিকের ফল কলেজ এক দফা যাচাই করে নিয়েছে। এর পরে গুগ্‌ল মিটের মাধ্যমে স্বচক্ষে যাচাই করা হবে। সেই সঙ্গে হয়ে যাবে রেজিস্ট্রেশনও।’’ তিনি জানান, পড়ুয়ারা কলেজে এলে আরও এক দফা নথি যাচাই করা হবে। তখন যদি দেখা যায় যে, তাঁর নথি ভুয়ো, তখন সেই পড়ুয়ার ভর্তি বাতিল করা হবে। অনলাইনে নথি যাচাইয়ের জন্য নবাগতদের চার দিন ধরে এসএমএস করা হচ্ছে। বলে দেওয়া হয়েছে, তাঁরা যেন গুগ্‌ল মিটে যাচাইয়ের পালা আসার আগেই নিজেদের যাবতীয় নথিপত্র নিয়ে তৈরি থাকেন।

করোনার দৌরাত্ম্যে কলেজ খুলতে দেরি হওয়ায় নথি যাচাইয়ের কাজও পিছিয়ে যাচ্ছে। পরিস্থিতিকে আরও জটিল করে তুলেছে পড়ুয়াদের বিভিন্ন মেধাবৃত্তি দেওয়ার প্রক্রিয়া। যে-সব দফতর অন্যান্য বছর যে-সময়ে বৃত্তির আবেদন গ্রহণ করত, এই অতিমারির বছরেও কাজটা করছে সেই সময়েই। এ বার ভর্তি প্রক্রিয়াই যে এখনও শেষ হয়নি, সেটা খেয়াল রাখা হচ্ছে না বলে শিক্ষা শিবিরের অনেকের অভিযোগ।

আরও পড়ুন: বেসরকারি স্কুল নিস্পৃহ, কন্যাশ্রী অধরা ছাত্রীদের

সংশ্লিষ্ট দফতরের চিঠি পেয়ে জেলা প্রশাসন কলেজগুলিতে নির্দেশিকা পাঠিয়েছে, আজ, রবিবার মধ্যে বৃত্তির জন্য আবেদনকারীদের নথি যাচাই করতে হবে। প্রশ্ন উঠছে, যাঁদের ভর্তি-প্রক্রিয়াই এখনও শেষ হয়নি, নথিভুক্তিও হয়নি, প্রথম বর্ষের বৈধ পড়ুয়া হিসেবে তাঁদের মেধাবৃত্তির আবেদন যাচাইয়ের দায়িত্ব কলেজ নেবে কী করে? দিশাহারা অবস্থার মধ্যেই উলুবেড়িয়া কলেজ অনলাইনে নথি যাচাইয়ে উদ্যোগী হয়েছে।

আরও পড়ুন

Advertisement