×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২১ ই-পেপার

অধীরের মিছিল, সিপিএমের বিক্ষোভে ধুন্ধুমার শহরে

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা ১৬ জানুয়ারি ২০২১ ০৪:৪২
কৃষি আইনের প্রতিবাদে কংগ্রেসের রাজভবন অভিযান। নিজস্ব চিত্র।

কৃষি আইনের প্রতিবাদে কংগ্রেসের রাজভবন অভিযান। নিজস্ব চিত্র।

কেন্দ্রীয় কৃষি আইন বাতিলের দাবিতে মিছিল এবং রাজভবন অভিযান করল কংগ্রেস। পুলিশের বাধা এড়িয়ে ধর্মতলা চত্বরে দফায় দফায় বিক্ষোভ করল তারা। আবার একই দিনে বিদ্যুতের মাসুল কমানোর দাবিতে ভিক্টোরিয়া হাউসের সামনে সিপিএমের বিক্ষোভ জমায়েতে পুলিশের লাঠি চালানোকে কেন্দ্র করে ধুন্ধুমার বাধল। জোট-সঙ্গী দুই বিরোধী দলের জোড়া কর্মসূচি ঘিরে শুক্রবার উত্তেজনা ছড়াল ধর্মতলা এলাকায়।

এআইসিসি-র ডাকে কেন্দ্রীয় কৃষি আইন প্রত্যাহারের দাবিতে দেশ জুড়ে কর্মসুচি নিয়েছিল কংগ্রেস। তারই অঙ্গ হিসেবে এ দিন কলেজ স্কোয়ারে জমায়েত করে ধর্মতলার দিকে মিছিল হয় প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি অধীর চৌধুরীর নেতৃত্বে। মিছিলে ছিলেন বিরোধী দলনেতা আব্দুল মান্নান, সাংসদ প্রদীপ ভট্টাচার্য, বিধানসভায় বিরোধী দলের সচেতক মনোজ চক্রবর্তী,বিধায়ক অসিত মিত্র, অমিতাভ চক্রবর্তী, শুভঙ্কর সরকার, সন্তোষ পাঠক-সহ প্রদেশ কংগ্রেসের প্রায় সব নেতাই। চিরাচরিত পথ বদলে হিন্দ সিনেমার মোড় থেকে মিছিল ঘুরিয়ে দেওয়া হয় চিত্তরঞ্জন অ্যাভিনিউয়ের দিকে। চাঁদনি চক হয়ে মিছিল এগোলে কে সি দাসের মোড়ে ব্যারিকেড করে পথ আটকায় পুলিশ। কিন্তু ব্যারিকেড ভেঙে ট্রাম লাইন ধরে পুলিশের বাধা ঠেলে অধীরবাবুকে নিয়ে রাজভবনের দিকে এগিয়ে যান কংগ্রেস কর্মীরা। শেষ পর্যন্ত রাজভবনের ফটকের উল্টো দিকে কার্জন পার্কের সামনে অধীরবাবুরা মিছিল শেষ করেন। গাড়ি চলাচল বন্ধ করে দিয়ে এসপ্ল্যানেড ইস্টে অবস্থান করেন কংগ্রেস কর্মী-সমর্থকেরা।

পরে অধীরবাবু, মান্নান, প্রদীপবাবুরা রাজ্যপাল জগদীপ ধনখড়ের কাছে গিয়েছিলেন দাবি জানাতে। রাজভবন থেকে বেরিয়ে প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি বলেন, ‘‘মোদী সরকার যখন কৃষক-বিরোধী অধ্যাদেশ এনেছিল, তখন থেকেই কংগ্রেস তার বিরোধিতা করে আসছে। সংসদের ভিতরে আমরা প্রতিবাদ করেছি, বাইরে রাহুল গাঁধী প্রথম পঞ্জাবে গিয়ে ট্রাক্টর মিছিল করেছেন। কৃষকদের প্রতিবাদের সঙ্গে আমরা আছি। কৃষক-বিরোধী আইন বাতিল না হওয়া পর্যন্ত প্রতিবাদ চলবে।’’প্রসঙ্গত, ধর্মতলার ওয়াই চ্যানেলে কৃষক সংগ্রাম সমন্বয় কমিটির ডাকে যে লাগাতার অবস্থান চলছে, সেই মঞ্চের সামনে দিয়েই ট্রাম ডিপোর ভিতরের সরু পথে কংগ্রেসের মিছিল এ দিন এগিয়েছে।

Advertisement



ভিক্টোরিয়া হাউসের সামনে সিপিএমের অবস্থান বিক্ষোভ। নিজস্ব চিত্র।

অস্বাভাবিক বিদ্যুৎ মাসুল প্রত্যাহার এবং ইউনিট পিছু বিদ্যুতের দাম স্থায়ী ভাবে কমানোর দাবিতে এ দিন তিনটি মিছিল নিয়ে সিইএসসি-র সদর দফতর ভিক্টোরিয়া হাউসের সামনে বিক্ষোভ সমাবেশ করতে এসেছিল কলকাতা জেলা সিপিএম। বিক্ষোভ-সভায় বক্তা ছিলেন দলের পলিটব্যুরো সদস্য মহম্মদ সেলিম। সিইএসসি দফতরের সামনে বিক্ষোভে এক সময়ে পুলিশ লাঠি চালায়। সিপিএমের কলকাতা জেলা সম্পাদক কল্লোল মজুমদারের অভিযোগ, তাঁদের শান্তিপূর্ণ সমাবেশে বিনা কারণে তৃণমূল সরকারের পুলিশ আক্রমণ করেছে। প্রতিবাদে আজ, শনিবার শহরের সর্বত্র ধিক্কার মিছিলের ডাক দিয়েছেন কল্লোলবাবুরা।

Advertisement