×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

২৫ ফেব্রুয়ারি ২০২১ ই-পেপার

পরীক্ষা কমলেও বাড়ল সংক্রমণের হার, অস্বস্তি উত্তর ২৪ পরগনা নিয়ে

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা ১৩ জানুয়ারি ২০২১ ২৩:৩৬
গ্রাফিক: শৌভিক দেবনাথ

গ্রাফিক: শৌভিক দেবনাথ

মঙ্গলবার রাজ্যে করোনার টিকা আসার পর থেকেই তা জরুরি ভিত্তিতে সরবরাহ করা হচ্ছে উত্তর থেকে দক্ষিণের জেলায় জেলায়। এই আবহে রাজ্যে করোনা পরিস্থিতিও এখন অনেকটাই আশাপ্রদ। যদিও বুধবার রাজ্যে সংক্রমণের হার মঙ্গলবারের তুলনায় খানিকটা বে়ড়েছে। তবে সুস্থতার হার রোজই ধাপে ধাপে বাড়ছে। এ দিনও বহাল সেই প্রবণতা। এ দিন কলকাতার দৈনিক আক্রান্তের সংখ্যা গত কালকের তুলনায় কিছুটা স্বস্তিদায়ক। তবে কপালে চিন্তার ভাঁজ ফেলেই রাখল উত্তর ২৪ পরগনার পরিস্থিতি।

স্বাস্থ্য দফতর প্রকাশিত বুলেটিন অনুযায়ী, বুধবার দৈনিক সংক্রমিতের সংখ্যায় শীর্ষ স্থানে রয়েছে উত্তর ২৪ পরগনা। সেখানে নতুন আক্রান্তের সংখ্যা ২৭৫, যা মঙ্গলবারের তুলনায় বেশি। কলকাতায় দৈনিক সংক্রমিতের সংখ্যা অবশ্য আগের দিনের তুলনায় কম। এ দিন ১৬৯ জন নতুন করে করোনা আক্রান্ত। কলকাতার পরিস্থিতি কিছুটা উজ্জ্বল হলেও, উত্তর ২৪ পরগনা নিয়ে রাজ্যের স্বাস্থ্য দফতরের কর্তাদের আশঙ্কা কাটছে না। তবে মনে করা হচ্ছে, টিকাকরণ শুরু হলে বাংলাদেশ সীমান্তবর্তী ওই জেলায় করোনার প্রকোপে কিছুটা লাগাম পরানো যাবে।

Advertisement

বুধবারও রাজ্যের বাকি জেলাগুলিতে করোনার প্রভাব কম। গত কয়েক দিন ধরেই জারি রয়েছে এই অবস্থা। এক মাত্র হাওড়ায় ৫০ জন আক্রান্ত হয়েছেন এ দিন যা কলকাতা এবং উত্তর ২৪ পরগনা বাদ দিলে সর্বাধিক।

বুধবারও রাজ্যের বাকি জেলাগুলিতে করোনার প্রভাব কম। গত কয়েক দিন ধরেই জারি রয়েছে এই অবস্থা। এক মাত্র হাওড়ায় ৫০ জন আক্রান্ত হয়েছেন এ দিন যা কলকাতা এবং উত্তর ২৪ পরগনা বাদ দিলে সর্বাধিক।

আরও পড়ুন: নবীন-প্রবীণদের মত নিয়ে ভোটের ইস্তাহার তৈরির কাজ শুরু করেছেন মমতা

আরও পড়ুন: আপাতত দল বড় করে পরে ছাঁকনি, নীলবাড়ির লক্ষ্যে এখন দিলীপ-নীতি

রাজ্যে দৈনিক মৃতের সংখ্যা কমে এসেছে। বুধবারও রাজ্যে মৃত্যু হয়েছে ১৮ জনের। তার ফলে করোনায় প্রাণ হারালেন মোট ৯ হাজার ৯৯৩ জন। এ দিন ৬ জন মারা গিয়েছেন উত্তর ২৪ পরগনায়। ৫ জনের মৃত্যু হয়েছে কলকাতায় এবং নদিয়ায় মারা গিয়েছেন ৩ জন।

বুধবার রাজ্যে গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন ৭২৩ জন। এর ফলে রাজ্যে মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা এখন ৫ লক্ষ ৬২ হাজার ৭৯৫। বুধবার ৩০ হাজার ১০৭টি কোভিড টেস্ট হয়েছে রাজ্যে। মঙ্গলবার করোনা পরীক্ষা হয়েছিল ৩৩ হাজারের কিছু বেশি।

বুধবার রাজ্যে গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে করোনা আক্রান্ত হয়েছেন ৭২৩ জন। এর ফলে রাজ্যে মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা এখন ৫ লক্ষ ৬২ হাজার ৭৯৫। বুধবার ৩০ হাজার ১০৭টি কোভিড টেস্ট হয়েছে রাজ্যে। মঙ্গলবার করোনা পরীক্ষা হয়েছিল ৩৩ হাজারের কিছু বেশি।

প্রতিদিন কত সংখ্যক টেস্ট হচ্ছে এবং তার মধ্যে প্রতি ১০০ জনে কত জনের রিপোর্ট পজিটিভ আসছে, সেই পরিসংখ্যানকেই বলা হয় পজিটিভিটি রেট বা সংক্রমণের হার। মঙ্গলবার সংক্রমণের হার ছিল ২.২৭ শতাংশ। বুধবার টেস্ট কমলেও সংক্রমণের হার আগের দিনের তুলনায় বেড়ে হয়েছে ২.৪০ শতাংশ, যা কিছুটা হলেও স্বাস্থ্য দফতরের কর্তাদের শঙ্কা বাড়াল।

দৈনিক সুস্থের সংখ্যা বুধবারও দৈনিক আক্রান্তকে ছাপিয়ে গিয়েছে। যদিও দুটি সংখ্যার মধ্যে ব্যবধান কম। এ দিন হাসপাতাল থেকে ছাড়া পেয়েছেন ৭৯৪ জন। এর ফলে রাজ্যে এ পর্যন্ত সুস্থের সংখ্যা এখন ৫ লক্ষ ৪৫ হাজার ৪৯৯ জন। এ দিন সুস্থতার হার সামান্য বেড়ে হয়েছে ৯৬.৯৩ শতাংশ। রাজ্যে এই মুহূর্তে সক্রিয় করোনা রোগী রয়েছেন ৭ হাজার ৩০৩ জন যা মঙ্গলবারের থেকে ৮৯ জন কম। গত বেশ কয়েক দিন ধরেই সক্রিয় রোগীর সংখ্যায় এই প্রবণতা জারি রয়েছে।

দৈনিক সুস্থের সংখ্যা বুধবারও দৈনিক আক্রান্তকে ছাপিয়ে গিয়েছে। যদিও দুটি সংখ্যার মধ্যে ব্যবধান কম। এ দিন হাসপাতাল থেকে ছাড়া পেয়েছেন ৭৯৪ জন। এর ফলে রাজ্যে এ পর্যন্ত সুস্থের সংখ্যা এখন ৫ লক্ষ ৪৫ হাজার ৪৯৯ জন। এ দিন সুস্থতার হার সামান্য বেড়ে হয়েছে ৯৬.৯৩ শতাংশ। রাজ্যে এই মুহূর্তে সক্রিয় করোনা রোগী রয়েছেন ৭ হাজার ৩০৩ জন যা মঙ্গলবারের থেকে ৮৯ জন কম। গত বেশ কয়েক দিন ধরেই সক্রিয় রোগীর সংখ্যায় এই প্রবণতা জারি রয়েছে।

Advertisement