×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

০৮ মে ২০২১ ই-পেপার

দৈনিক সংক্রমণে নয়া রেকর্ড, মৃত্যু ফের ৬২ জনের

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা ০৩ অক্টোবর ২০২০ ২২:৪৯
গ্রাফিক: শৌভিক দেবনাথ।

গ্রাফিক: শৌভিক দেবনাথ।

প্রতি দিন বহু মানুষ সুস্থ হয়ে উঠছেন ঠিকই। কিন্তু কোভিড সংক্রমণ ঠেকাতে হিমশিম খেতে হচ্ছে রাজ্য সরকারকে। তাদের উদ্বেগ বাড়িয়ে দৈনিক সংক্রমণে ফের নয়া রেকর্ড রাজ্যে। মৃত্যুতেও এক বার ফের রেকর্ড সংখ্যা ছুঁয়ে ফেলল বাংলা।

শনিবার রাজ্য স্বাস্থ্য দফতর প্রকাশিত বুলেটিন অনুয়ায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে ৩ হাজার ৩৪০ জন নোভেল করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। দৈনিক সংক্রমণের নিরিখে যা এখনও পর্যন্ত সর্বাধিক। সবমিলিয়ে মোট আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে ২ লক্ষ ৬৬ হাজার ৯৭৪ হয়েছে। এই মুহূর্তে রাজ্যে সক্রিয় করোনা রোগীর সংখ্যা ২৭ হাজার ১৩০, গতকালের চেয়ে যা ২৬৫ বেশি।

Advertisement

আক্রান্তের পাশাপাশি এ দিন সুস্থ হয়ে ওঠার সংখ্যাও তিন হাজার ছাড়িয়ে গিয়েছে। গত ২৪ ঘণ্টায় ৩ হাজার ১৩ জন করোনা রোগী সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন। মোট আক্রান্তের মধ্যে এখনও পর্যন্ত ২ লক্ষ ৩৪ হাজার ৭১২ জন রোগী সুস্থ হয়ে উঠেছেন। তার ফলে রাজ্যে সুস্থতার হার বেড়ে ৮৭.৯২ শতাংশ হয়েছে।

(গ্রাফের উপর হোভার বা টাচ করলে প্রত্যেক দিনের পরিসংখ্যান দেখতে পাবেন।)

আরও পড়ুন: হাথরস-কাণ্ডে সিবিআই তদন্তের সুপারিশ যোগী আদিত্যনাথের​

এরই মধ্যে মৃতের সংখ্যা ফের মাথাব্যথার কারণ হয়ে দাঁড়িয়েছে রাজ্য প্রশাসনের। নোভেল করোনার প্রকোপে এক দিনে রাজ্যে সর্বাধিক ৬২ জনের প্রাণহানি হয়েছে। গত ২১, ২২, ২৪ এবং ২৯ সেপ্টেম্বর দৈনিক মৃত্যু ওই সংখ্যা ছুঁয়েছিল। এ দিন ফের ৬২ জন প্রাণ হারিয়েছেন।

প্রতি দিন যত জনের কোভিড-টেস্ট করা হচ্ছে এবং তার মধ্যে প্রতি ১০০ জনে যত সংখ্যকের কোভিড-রিপোর্ট পজিটিভ আসছে, তাকেই বলা হয় পজিটিভিটি রেট বা সংক্রমণের হার। সুস্থতার হার বৃদ্ধির পাশাপাশি সংক্রমণের হার যদি কমে, তবেই তা ইতিবাচক বলে মনে করা হয়। গত ২৪ ঘণ্টায় ৪১ হাজার ১২৮টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়, অন্যান্য দিনের তুলনায় যা কিছুটা কম। তার পরেও রেকর্ড সংখ্যক মানুষ আক্রান্ত হওয়ায়, সংক্রমণের হার বেড়ে ৮.১২ শতাংশ হয়েছে। ২৪ অগস্টের পর সংক্রমণের হার এই প্রথম এতটা বাড়ল।

সংক্রমণ এবং মৃত্যুর নিরিখে বেশ কিছু দিন ধরেই একে অপরকে টেক্কা দিচ্ছে কলকাতা এবং উত্তর ২৪ পরগনা। বেশির ভাগ দিন কলকাতার পরিস্থিতি সবচেয়ে উদ্বেগজনক হয়ে ধরা দিলেও, এ দিন উত্তর ২৪ পরগনা তাকে ছাপিয়ে গিয়েছে। গত ২৪ ঘণ্টায় সেখানে নতুন করে সংক্রমিত হয়েছেন ৬৪১ জন। মৃত্যু হয়েছে ১৯ জন করোনা রোগীর। সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ৬৪০ জন। কলকাতায় এ দিন নতুন করে ৬৩১ জন সংক্রমিত হয়েছেন। প্রাণ হারিয়েছেন ১৩ জন। সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন ৬১৬ জন রোগী।

আরও পড়ুন: ডেটলাইন হাথরস: ১৮ দিন, ১৮ ঝলক

হাওড়ায় এ দিন ২৩৪ জন নতুন করে সংক্রমিত হয়েছেন। মৃত্যু হয়েছে ৬ জনের। সুস্থ হয়ে উঠেছেন ১৩৫ জন রোগী। পশ্চিম মেদিনীপুরেও এ দিন ৬ জন প্রাণ হারিয়েছেন। নতুন করে সংক্রমিত হয়েছেন ১৩৪ জন। সুস্থ হয়ে উঠেছেন ১১ জন রোগী। ৩ জন করে রোগী প্রাণ হারিয়েছেন দক্ষিণ ২৪ পরগনা, হুগলি এবং পূর্ব মেদিনীপুরে। পশ্চিম বর্ধমানে ২ জন করোনা রোগী মারা গিয়েছেন বলে জানা গিয়েছে। ১ জন করে রোগী মারা গিয়েছেন আলিপুরদুয়ার, কোচবিহার, দার্জিলিং, জলপাইগুড়ি, উত্তর দিনাজপুর, মুর্শিদাবাদ এবং পুরুলিয়ায়।

(জরুরি ঘোষণা: কোভিড-১৯ আক্রান্ত রোগীদের জন্য কয়েকটি বিশেষ হেল্পলাইন চালু করেছে পশ্চিমবঙ্গ সরকার। এই হেল্পলাইন নম্বরগুলিতে ফোন করলে অ্যাম্বুল্যান্স বা টেলিমেডিসিন সংক্রান্ত পরিষেবা নিয়ে সহায়তা মিলবে। পাশাপাশি থাকছে একটি সার্বিক হেল্পলাইন নম্বরও।

• সার্বিক হেল্পলাইন নম্বর: ১৮০০ ৩১৩ ৪৪৪ ২২২
• টেলিমেডিসিন সংক্রান্ত হেল্পলাইন নম্বর: ০৩৩-২৩৫৭৬০০১
• কোভিড-১৯ আক্রান্তদের অ্যাম্বুল্যান্স পরিষেবা সংক্রান্ত হেল্পলাইন নম্বর: ০৩৩-৪০৯০২৯২)

Advertisement