Advertisement
২২ জুলাই ২০২৪
Suvendu Adhikari

শুভেন্দুর বিরুদ্ধে কলকাতার সিপির করা মানহানি মামলা খারিজ করল আদালত! হাজিরা দিতে হচ্ছে না শনিবার

গত ১৭ এপ্রিল টুইটারে একটি বাসের ছবি পোস্ট করেন শুভেন্দু। সেই পোস্টে, পুলিশি পাহারায় বাসে করে টাকা পাচারের অভিযোগ তুলেছিলেন শুভেন্দু।

Defamation Case files against Suvendu Adhikari by Kolkata CP is dismissed by Calcutta High Court

বিনীতের করা মানহানির মামলায় আগামী ২০ মে, শনিবার আদালতে হাজিরা দেওয়ার কথা ছিল শুভেন্দুর। ফাইল চিত্র ।

আনন্দবাজার অনলাইন সংবাদদাতা
কলকাতা শেষ আপডেট: ১৮ মে ২০২৩ ১৮:১০
Share: Save:

কলকাতার পুলিশ কমিশনার বিনীত গোয়েলের করা মানহানি মামলায় স্বস্তি পেলেন বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী। বৃহস্পতিবার তাঁর বিরুদ্ধে বিনীতের করা মামলা খারিজ করে দিল কলকাতা হাই কোর্ট। বিনীতের করা মানহানির মামলায় আগামী ২০ মে, শনিবার আদালতে হাজিরা দেওয়ার কথা ছিল শুভেন্দুর। কিন্তু তাঁকে ওই দিন হাজিরা দিতে হচ্ছে না। বিচারপতি বিবেক চৌধুরীর পর্যবেক্ষণ, শুভেন্দু এক জন বিধায়ক। তাই তাঁর বিরুদ্ধে মামলাটি এমপি-এমএলএ আদালতে করা উচিত ছিল। নগর দায়রা আদালতে মামলা দায়েরের সিদ্ধান্ত সঠিক হয়নি। এর পরেই মামলাটি খারিজ করে দেন বিচারপতি চৌধুরী।

গত ১৭ এপ্রিল টুইটারে একটি বাসের ছবি পোস্ট করেন শুভেন্দু। সেই পোস্টে, পুলিশি পাহারায় বাসে করে টাকা পাচারের অভিযোগ তুলেছিলেন তিনি। তাঁর দাবি ছিল, পুলিশি নিরাপত্তায় বাসটিকে পটুয়াপাড়া থেকে বার করে আনছে পুলিশ। তিনি এ-ও দাবি করেন, ওই বাসটিতে টাকা রয়েছে। যদিও পুলিশের তরফে জানানো হয়, শুভেন্দুর করা অভিযোগ সম্পূর্ণ মিথ্যা। পাল্টা অভিযোগ করা হয়, কলকাতা পুলিশ এবং সিপির ভাবমূর্তি নষ্ট করার জন্যই এই অভিযোগ করেছেন বিরোধী দলনেতা।

এর পরেই শুভেন্দুর বিরুদ্ধে আদালতের দ্বারস্থ হন সিপি। বিজেপি নেতার বিরুদ্ধে নগর দায়রা আদালতে মানহানির মামলা করেন তিনি। নগর দায়রা আদালত শুভেন্দুকে আগামী ২০ মে সশরীরে আদালতে হাজিরা দেওয়ার নির্দেশ দিয়েছিলেন। এর পর নগর দায়রা আদালতের সেই রায়কে চ্যালেঞ্জ করে কলকাতা হাই কোর্টের দ্বারস্থ হন শুভেন্দু। সেই মামলারই শুনানি ছিল বৃহস্পতিবার।

মামলা খারিজের প্রসঙ্গে শুভেন্দুর আইনজীবী জানিয়েছেন, মামলাটি দায়েরের পদ্ধতিতে বেশ কিছু অসঙ্গতি নজরে এসেছে হাই কোর্টের। আর সেই কারণেই মামলাটি খারিজ করে দিয়েছে আদালত। নিম্ন আদালতে বিরোধী দলনেতার হাজিরার যে নির্দেশ ছিল তা-ও খারিজ হয়ে গিয়েছে।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE