Advertisement
৩০ নভেম্বর ২০২২
Dilip Ghosh

পার্ক সার্কাসকে নিশানা করে ফের কুকথা দিলীপের

আইসিসিআর-এ শনিবার দলীয় বৈঠকে তিনি বলেন, ‘‘বিজেপি বিরোধী দলের অনেক কেন্দ্রীয় নেতা বাংলায় এসেছেন সিএএ-র বিরুদ্ধে ভাষণ দেওয়ার জন্য।

দিলীপ ঘোষ।

দিলীপ ঘোষ।

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা শেষ আপডেট: ১৬ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ০২:১৪
Share: Save:

পার্ক সার্কাসের আন্দোলনকারীদের সম্পর্কে আরও এক বার কুকথা বলে বিতর্কে জড়ানোর ধারা অব্যাহত রাখলেন বিজেপির রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ। দিল্লির বিধানসভা ভোটে বিপর্যয়ের পরে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ কবুল করেছেন, দলের নেতাদের কুকথা বলা উচিত হয়নি। কিন্তু সেই বার্তা নস্যাৎ করে দিলীপবাবু কুকথায় অটল।

Advertisement

আইসিসিআর-এ শনিবার দলীয় বৈঠকে তিনি বলেন, ‘‘বিজেপি বিরোধী দলের অনেক কেন্দ্রীয় নেতা বাংলায় এসেছেন সিএএ-র বিরুদ্ধে ভাষণ দেওয়ার জন্য। দিল্লিতে গেলে শাহিনবাগে আর কলকাতায় এলে পার্ক সার্কাসে তাঁরা ছুটে যেতেন ভাষণ দেওয়ার জন্য। শুনছেন কারা? কয়েক জন অশিক্ষিত মহিলা বাচ্চা কোলে বোরখা পরে বসে আছে। তারাই একমাত্র শ্রোতা দর্শক।’’ পরে তাঁর সংযোজন, ‘‘কিছু অশিক্ষিত অসচেতন গরিব মানুষকে রাস্তায় বসিয়ে দেওয়া হয়েছে। ওদের প্রতিদিন টাকা দেওয়া হচ্ছে। বিরিয়ানি খাওয়ানো হচ্ছে। সেটাও বিদেশিদের টাকায়। শাহিনবাগ থেকে পার্ক সার্কাস একই ঘটনা।’’

দিলীপবাবুর ওই মন্তব্যের তীব্র নিন্দা করে তৃণমূলের মহাসচিব পার্থ চট্টোপাধ্যায় বলেন, ‘‘দিলীপবাবুরা মহিলাদেরও সম্মান রাখতে জানেন না। মানুষ যখন ভুখা পেটে রাস্তায় আন্দোলন করছেন, তখন তাঁদের বিরিয়ানির খোঁচা দিচ্ছেন তাঁরা। দিলীপবাবু এর পর কুকথার বই লিখবেন।’’ বাম পরিষদীয় নেতা সুজন চক্রবর্তীর বক্তব্য, ‘‘একের পর এক অসভ্য মন্তব্য করে সংবাদমাধ্যমে প্রচার পাওয়ার চেষ্টা করছেন দিলীপবাবু।’’ কংগ্রেসের সচেতক মনোজ চক্রবর্তীও বলেন, ‘‘গরিব মানুষকে উৎখাত করার চক্রান্ত হয়েছে। মানুষ রাস্তায় আন্দোলন করবে না তো কী করবে? দিলীপবাবুর মাথা খারাপ হয়েছে নাকি উনি ইচ্ছা করে এ সব বলেন?’’

Advertisement
(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.