×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

১৪ মে ২০২১ ই-পেপার

হোম থেকে পালিয়ে গেল ৪ কিশোরী, পরে ফিরেও এল দু’জন, তদন্তে পুলিশ

নিজস্ব সংবাদদাতা
মেদিনীপুর ০৪ এপ্রিল ২০২১ ২১:৩৬
 বিদ্যাসাগর বালিকা ভবনের এই ঘটনার তদন্ত করছে পুলিশ।

বিদ্যাসাগর বালিকা ভবনের এই ঘটনার তদন্ত করছে পুলিশ।

হোমের জানলা ভেঙে পাঁচিল টপকে ভোর রাতে পালিয়েছিল চার কিশোরী। বিকেল হতেই ফিরে এল দু’জন।

মেদিনীপুর শহরের বিদ্যাসাগর বালিকা ভবনের এই ঘটনায় পুলিশ তদন্তে নেমেছে। হোম ছেড়ে কেন ওই কিশোরীরা পালিয়েছিল তা তদন্ত করে দেখছে তারা। বাকি দুই কিশোরীর খোঁজেও এলাকা জুড়ে শুরু হয়েছে তল্লাশি অভিযান।

পুলিশকে হোম কর্তৃপক্ষ জানিয়েছেন, গত মাসের ১৫ থেকে ২৬ তারিখের মধ্যে এই চার কিশোরীকে জেলার বিভিন্ন প্রান্ত থেকে উদ্ধার করে এই হোমে এনেছিল পুলিশ। জুভেনাইল জাস্টিস বোর্ড এবং আদালতের নির্দেশে ওই চারজনকে হোমে রাখা হয়। তবে একসঙ্গে চারজনই কেন পালানোর চেষ্টা করল তা জানতে ফিরে আসা দুই কিশোরীকে জিজ্ঞাসাবাদ শুরু করছে পুলিশ।

Advertisement

প্রাথমিক তদন্তে পুলিশের অনুমান রবিবার ভোর রাতে ওই ৪ কিশোরী হোমের পাঁচিল টপকে পালায়। জানালা ভেঙে বাইরে বেরিয়ে ওড়নাকে দড়ির মতো ব্যবহার করে পাঁচিলে টপকে পালায় ৪ জন। সকালে হোমের তরফে লিখিত অভিযোগ জানালে তদন্তে নামে কোতোয়ালি থানার পুলিশ এবং সামাজ কল্যাণ দফতরের আধিকারিকেরা।

ওই চারজনের মধ্যে দুজনের বাড়ি নারায়ণগড় থানা এলাকায়, বাকি দুজনের মধ্যে একজনের বাড়ি মাদপুর, অন্যজনের বাড়ি ডেবরা এলাকায়। গত মার্চ মাসেই ওই চার কিশোরীর পরিবারের অভিযোগের ভিত্তিতে তদন্তে নেমে পুলিশ উদ্ধার করেছিল তাদের। পুলিশ জানিয়েছে, ডেবরা এবং মাদপুরের বাসিন্দা দুই কিশোরীই বিকেল ৫টা নাগাদ হোমে ফিরে আসে। এই ঘটনায় হোম কর্তৃপক্ষের গাফিলতির অভিযোগ উঠছে। যদিও এ ব্যাপারে সমাজ কল্যাণ দফতর ও হোম কর্তৃপক্ষকে প্রশ্ন করা হলে তাঁরা এ ব্যাপারে কোনও মন্তব্য করতে চাননি।

Advertisement