Advertisement
০৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৩

বিজেপি-তৃণমূল সংঘর্ষ গুড়াপে

লোকসভা নির্বাচনের পরেই ওই কার্যালয়টি যখন বন্ধ করে দেওয়া হয়, তখন বিজেপির বিরুদ্ধে হামলার অভিযোগ তুলেছিল তৃণমূল। মঙ্গলবার পুলিশের উপস্থিতিতেই কার্যালয়টি খোলা হয়।

ছবি: সংগৃহীত

ছবি: সংগৃহীত

নিজস্ব সংবাদদাতা
গুড়াপ শেষ আপডেট: ০৩ অক্টোবর ২০১৯ ০১:৩৫
Share: Save:

কয়েক মাস বন্ধ থাকার পরে মঙ্গলবার সন্ধ্যায় গুড়াপের মাজিনান হাইস্কুলের সামনে দলীয় কার্যালয়টি খুলেছিলেন তৃণমূল কর্মী-সমর্থকেরা। তার ঘণ্টাখানেকের মধ্যে বিজেপির সঙ্গে তাঁদের সংঘর্ষ হল। দু’দলের মোট তিন জন আহত হন। তাঁদের মধ্যে প্রবীর ঘোষ নামে এক বিজেপি কর্মীর আঘাত বেশি। তাঁর মাথা ফেটেছে। তাঁকে চুঁচুড়া ইমামবাড়া হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়েছে। ‘হামলা’র প্রতিবাদে বুধবার সকালে বিজেপি কর্মীরা ওই কার্যালয়ের সামনেই টায়ার জ্বালিয়ে অবরোধ করেন। পুলিশ পরিস্থিতি সামাল দেয়।

Advertisement

হুগলি জেলা (গ্রামীণ) পুলিশের এক কর্তা জানান, দু’পক্ষই অভিযোগ দায়ের করেছে। তদন্ত চলছে। অভিযোগ প্রমাণিত হলে দোষীদের গ্রেফতার করা হবে। বিজেপি-র গুড়াপ মণ্ডল সভাপতি তপন সাঁতরার অভিযোগ, ‘‘পুলিশের সামনেই আমাদের কর্মীদের মারধর করা হয়। পুলিশ দর্শকের ভূমিকা পালন করে। ১৫ জনের নামে থানায় অভিযোগ দায়ের করেছি।’’ অভিযোগ উড়িয়ে তৃণমূলের জেলা সভাপতি দিলীপ যাদব বলেন,‘‘লোকসভা ভোটের পরই ধনেখালি ও গুড়াপে বিজেপি আমাদের বেশ কয়েকটি দলীয় কার্যালয় বন্ধ করে দেয় বিজেপি। আমরা ধাপে ধাপে সব বন্ধ কার্যালয়ই খুলব। সবাইকে শান্তি-শৃঙ্খলা বজায় রাখার অনুরোধ করছি।’’

লোকসভা নির্বাচনের পরেই ওই কার্যালয়টি যখন বন্ধ করে দেওয়া হয়, তখন বিজেপির বিরুদ্ধে হামলার অভিযোগ তুলেছিল তৃণমূল। মঙ্গলবার পুলিশের উপস্থিতিতেই কার্যালয়টি খোলা হয়। অভিযোগ, সন্ধ্যায় কয়েক জন বিজেপি সমর্থক মোটরবাইকে সেখানে এসে এর প্রতিবাদে স্লোগান দিতে থাকেন। অবিলম্বে কার্যালয়টি বন্ধ করার হুমকিও দেওয়া হয় বলে অভিযোগ। এর জেরেই দু’পক্ষ সংঘর্ষে জড়ায়। পুলিশ পরিস্থিতি সামাল দেওয়ার চেষ্টা করেন। আহত বিজেপি কর্মী প্রবীর বলেন, ‘‘হাতুড়ি দিয়ে মেরে আমার মাথা ফাটিয়ে দেওয়া হয়।’’

Advertisement
(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.