Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৯ মে ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

উত্তরপাড়ার আহত যুবককে হাসপাতালে ভর্তি করলেন ট্রাফিক ইনস্পেকটর

বুধবার সকাল ১১টা নাগাদ উত্তরপাড়া দোলতলা ঘাটের কাছে জিটি রোডের পাশে এক বাইক আরোহীকে আহত অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখা যায়।

নিজস্ব সংবাদদাতা
উত্তরপাড়া ০৬ জানুয়ারি ২০২১ ১৪:৪০
Save
Something isn't right! Please refresh.
 ট্রাফিক ইনস্পেকটর জয়দেব নন্দী আহত যুবককে নিয়ে যাচ্ছেন। নিজস্ব চিত্র।

ট্রাফিক ইনস্পেকটর জয়দেব নন্দী আহত যুবককে নিয়ে যাচ্ছেন। নিজস্ব চিত্র।

Popup Close

বাইক দুর্ঘটনায় আহত যুবককে তুলে হাসপাতালে নিয়ে গিয়ে চিকিৎসার বন্দোবস্ত করলেন ট্রাফিক ইনস্পেকটর জয়দেব নন্দী। যুবকের পরিবারকে খবর দিয়ে ডেকেও আনলেন। পুলিশের এই মানবিকতায় কৃতজ্ঞ যুবকের পরিবার।

বুধবার সকাল ১১টা নাগাদ উত্তরপাড়া দোলতলা ঘাটের কাছে জিটি রোডের পাশে এক বাইক আরোহীকে আহত অবস্থায় পড়ে থাকতে দেখা যায়। আঘাত গুরুতর থাকায় যুবক কথা বলতে পারছিলেন না। কয়েকজন পথচারী সেখান দিয়ে গেলেও যুবককে তুলে চিকিৎসার ব্যবস্থা করেননি। সে সময় চন্দননগর পুলিশের শ্রীরামপুর ট্রাফিক গার্ডের অফিসার জয়দেব নন্দী উত্তরপাড়া বাজারে ডিউটি করছিলেন। খবর পান, এক যুবক আহত অবস্থায় পড়ে রয়েছেন। বুলেট নিয়ে ঘটনাস্থলে হাজির হন তিনি। আহত যুবককে তুলে টোটো ভাড়া করে উত্তরপাড়া স্টেট জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যান। চিকিৎসা শুরু হয়।

যুবকের মানি ব্যাগ থেকে তাঁর পরিচয় জানা যায়। আহতের নাম প্রশান্ত গুপ্তা(২৬)। বাড়ি হিন্দমোটর বটতলা বাইলেনে। জয়দেববাবু যুবকের পরিবারকে খবর দেন। যুবকের দাদা আর বাবা হাসপাতালে পৌঁছন। পুলিশ অফিসারকে হাত ধরে ধন্যবাদ দেন তাঁরা। যুবকের অবস্থা কিছুটা স্থিতিশীল হলে অ্যাম্বুল্যান্সে উত্তরপাড়ারই এক বেসরকারি হাসপাতালে নিয়ে যায় তাঁর পরিবার।

Advertisement

দুর্ঘটনার পর বেশ কিছুক্ষণ রাস্তার ধারে পরে থাকলেও কেউ যুবককে উদ্ধার করল না কেন? জয়দেব বলেছেন, ‘‘অনেকে পুলিশকে ভয় পান। যদি কিছু হয়ে যায়। তাই দেখলেও সাহায্য করতে এগিয়ে আসেন না।’’ আহত যুবকের আত্মীয় নমন আগরওয়াল বলেন, ‘‘এটা ঠিক, পুলিশি হয়রানির ভয়ে অনেকে ইচ্ছা থাকলেও সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিতে ভয় পান। তবে জয়দেববাবু যা করেছেন, এটা যদি সবাই করে তা হলে 'অনামবিক' কথাটাই হয়তো থাকবে না।’’



Tags:
Something isn't right! Please refresh.

Advertisement