Advertisement
২৩ জুন ২০২৪
Cyclone Remal Update

রেমালের জেরে শহরে ধরাশায়ী ২৯৪টি গাছ

লালবাজার জানিয়েছে, দুর্যোগের সময়ে গাছ পড়ে রাস্তা বন্ধ হবে, এমন আশঙ্কা থেকে থানা ও ট্র্যাফিক গার্ডের পুলিশকে আগেই সতর্ক করা হয়েছিল। সতর্ক ছিল পুর উদ্যান বিভাগের বরোভিত্তিক বিশেষ দলগুলিও।

সমূলে: পাঠভবন স্কুলের পাশেই একটি গাছ উপড়ে গিয়েছে। সোমবার।

সমূলে: পাঠভবন স্কুলের পাশেই একটি গাছ উপড়ে গিয়েছে। সোমবার। ছবি: সুমন বল্লভ। 

শিবাজী দে সরকার ও মেহবুব কাদের চৌধুরী
শেষ আপডেট: ২৮ মে ২০২৪ ০৮:৫৬
Share: Save:

ঘূর্ণিঝড় রেমালের তাণ্ডবে শহরে ভেঙে পড়ল ২৯৪টি গাছ। কলকাতা পুরসভার উদ্যান বিভাগ সূত্রে এই খবর জানা গিয়েছে।

রবিবার রাতে ঝড়ের তাণ্ডবে গাছ পড়ে বন্ধ হয়ে যায় শেক্সপিয়র সরণি, পার্ক স্ট্রিট, আলিপুর রোড, গণেশ অ্যাভিনিউ, স্ট্র্যান্ড রোড, সৈয়দ আমির আলি অ্যাভিনিউয়ের মতো গুরুত্বপূর্ণ রাস্তা। সোমবার সকালের দিকে ক্যাথিড্রাল রোড, পার্ক স্ট্রিট ও ক্যামাক স্ট্রিটেও উপড়ে পড়ে গাছ। এ ছাড়া, শহরের অজস্র রাস্তায় রবিবার রাত থেকেই পড়েছে গাছ। পুরসভা সূত্রের খবর, শহরে সব থেকে বেশি গাছ ভেঙে পড়েছে ১০ নম্বর বরো এলাকায়— ৪১টি। এ ছাড়া, সাত নম্বর বরো এলাকায় ৩৮টি গাছ, নয় ও তিন নম্বর বরো এলাকায় যথাক্রমে ২৫টি ও ২৪টি গাছ ভেঙে পড়েছে। ১৩ ও ১৪ নম্বর বরো এলাকায় ১৮টি করে গাছ ভেঙে পড়ে। ১৬ নম্বর বরো এলাকায় ভেঙেছে ২২টি গাছ। ভেঙে পড়া গাছের মধ্যে রয়েছে কৃষ্ণচূড়া, রাধাচূড়া, বকুল প্রভৃতি।

লালবাজার জানিয়েছে, দুর্যোগের সময়ে গাছ পড়ে রাস্তা বন্ধ হবে, এমন আশঙ্কা থেকে থানা ও ট্র্যাফিক গার্ডের পুলিশকে আগেই সতর্ক করা হয়েছিল। সতর্ক ছিল পুর উদ্যান বিভাগের বরোভিত্তিক বিশেষ দলগুলিও। প্রতিটি থানা ও ট্র্যাফিক গার্ডের বাহিনীকেও সতর্ক করা হয়েছিল। তৈরি ছিল গাছ কাটার যন্ত্র ও বিশেষ দল। ফলে, গাছ পড়ার খবর পেয়েই কলকাতা পুরসভা ও কলকাতা পুলিশের কর্মীরা বিপর্যয় মোকাবিলা বাহিনীর সদস্যদের সঙ্গে নিয়ে রাতেই গাছ কাটার কাজে হাত লাগান। এক পুলিশকর্তা জানান, যেখানেই সম্ভব হয়েছে, সেখানে পুলিশকর্মীরাই গাছ কেটে যান চলাচল স্বাভাবিক করার চেষ্টা করেন। তবে শেক্সপিয়র সরণি-সহ কয়েকটি রাস্তায় বড় গাছ উপড়ে যাওয়ার কারণে খবর দেওয়া হয় পুরসভাকে। পুরকর্মীরা এসে ওই গাছগুলি কেটে সরিয়ে ফেলেন।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)

অন্য বিষয়গুলি:

Cyclone Remal
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE