Advertisement
২৯ মে ২০২৪
Death

প্রদীপের শিখা থেকে অগ্নিদগ্ধ হয়ে মৃত্যু বৃদ্ধার

প্রাথমিক তদন্তের পরে পুলিশ জানতে পেরেছে, ওই বহুতলের এক তলায় পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে থাকতেন শীলা। বৃহস্পতিবার বিকেলে পুজোর সময়ে তিনি প্রদীপ জ্বালাতে যান। কোনও ভাবে প্রদীপের শিখা থেকে তাঁর পোশাকে আগুন ধরে যায়।

An image of Police

—প্রতীকী চিত্র।

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা শেষ আপডেট: ১৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৪ ০৭:৩৯
Share: Save:

বাড়িতে পুজো করছিলেন এক প্রৌঢ়া। তখনই প্রদীপ জ্বালাতে গিয়ে তাঁর পোশাকে আগুন ধরে যায়। যা দ্রুত তাঁর দেহে ছড়িয়ে পড়ে। মাকে ওই অবস্থায় দেখে প্রৌঢ়ার ছোট ছেলে তাঁকে উদ্ধার করে হাসপাতালে নিয়ে যান। দু’দিন সেখানে চিকিৎসাধীন থাকার পরে শনিবার সকালে মৃত্যু হল ওই প্রৌঢ়ার। পুলিশ জানিয়েছে, মৃতার নাম শীলা শর্মা (৬০)। তাঁর বাড়ি গল্ফ গ্রিন থানা এলাকার রাজেন্দ্রপ্রসাদ কলোনিতে।

প্রাথমিক তদন্তের পরে পুলিশ জানতে পেরেছে, ওই বহুতলের এক তলায় পরিবারের সদস্যদের সঙ্গে থাকতেন শীলা। বৃহস্পতিবার বিকেলে পুজোর সময়ে তিনি প্রদীপ জ্বালাতে যান। কোনও ভাবে প্রদীপের শিখা থেকে তাঁর পোশাকে আগুন ধরে যায়। পরে তাঁকে উদ্ধার করে এম আর বাঙুর হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। এ দিন সেখানেই তাঁর মৃত্যু হয়।

তদন্তকারীরা জানান, ওই প্রৌঢ়ার শরীরের প্রায় ৯৫ শতাংশ আগুনে পুড়ে গিয়েছিল। প্রৌঢ়া মৃত্যুর আগে চিকিৎসকদের উপস্থিতিতে পুলিশকে জানিয়েছেন, পুজো করার সময়ে প্রদীপ জ্বালাতে গিয়ে ওই ঘটনা ঘটেছে। পুলিশ জানিয়েছে, দেহটি ময়না তদন্তে পাঠানো হয়েছে। পরিবারের তরফে পুলিশের কাছে অভিযোগ দায়ের করা হয়নি শনিবার বিকেল পর্যন্ত।

লালবাজার জানিয়েছে, এর আগে গত মাসে কলকাতা পুরসভার ডেপুটি মেয়র অতীন ঘোষের মা-ও পুজোর সময়ে অগ্নিদগ্ধ হয়ে মারা যান। এ ছাড়াও গত মাসে পর্ণশ্রী, কালীঘাট, সিঁথি-সহ বেশ কয়েকটি এলাকায় একই ধরনের ঘটনা ঘটেছে। পুলিশ জানিয়েছে, বৃদ্ধাদের ঠাকুর ঘরে পুজোর সময়ে আগুন জ্বালানোর ক্ষেত্রে সতর্ক থাকা প্রয়োজন। সে ক্ষেত্রে পরিবারের অন্য কোনও সদস্য ওই সময়ে সেখানে থাকতে পারবেন কি না, তা দেখতে বলা হয়েছে।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)

অন্য বিষয়গুলি:

Fire Accident Fire
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE