Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২২ জানুয়ারি ২০২২ ই-পেপার

একগুচ্ছ দাবিতে ধর্মঘটে অ্যাপ-ক্যাব, ভোগান্তির আশঙ্কা

নিজস্ব প্রতিবেদন
কলকাতা ১৫ মার্চ ২০২১ ০৫:৫০
প্রতীকী ছবি।

প্রতীকী ছবি।
—ফাইল চিত্র

আজ, সোমবার দুই বাম সংগঠনের ডাকা অ্যাপ-ক্যাব ধর্মঘটের জেরে যাত্রীদের ভোগান্তি চরমে পৌঁছতে পারে। এআইটিইউসি এবং সিটু অনুমোদিত দুই অ্যাপ-ক্যাব চালক সংগঠন ভাড়া নির্ধারণের ক্ষেত্রে স্বচ্ছতা আনার দাবিতে পৃথক ভাবে ধর্মঘটের ডাক দিয়েছে। হাওড়া, শিয়ালদহ, সাঁতরাগাছি, কলকাতা স্টেশন, দমদম বিমানবন্দর ছাড়াও বৃহত্তর কলকাতার বিভিন্ন অংশে ক্যাব পেতে গিয়ে নাজেহাল হতে পারেন যাত্রীরা। যথেষ্ট সংখ্যায় অ্যাপ-ক্যাব রাস্তায় না নামার জেরে যাত্রীদের চড়া হারে সার্জ প্রাইস গুনতে হতে পারে বলেও আশঙ্কা।

ডিজ়েলের অস্বাভাবিক মূল্য বৃদ্ধির প্রেক্ষিতে অ্যাপ-ক্যাব চালক সংগঠনগুলি গত কয়েক মাস ধরেই তাদের ক্ষোভের কথা জানিয়ে আসছে। এআইটিইউসি-র অ্যাপ-ক্যাব সংগঠনের অভিযোগ, ভাড়া পুনর্বিন্যাসের দাবি নিয়ে রাজ্য প্রশাসনকে একাধিক চিঠি দিলেও সরকার সমস্যা সমাধানে তৎপর হয়নি। অ্যাপ-ক্যাব সংস্থাগুলি নিজেদের কমিশনের হার ঠিক রেখে যাত্রী টানতে ভাড়ার হার কমিয়ে রাখছে। এর ফলে একটি ট্রিপ থেকে ডিজ়েলের খরচ এবং ক্যাব সংস্থার কমিশন মিটিয়ে চালকেরা হাতে খুব কম হাতে টাকা পাচ্ছেন অথবা ক্ষতির সম্মুখীন হচ্ছেন বলে ওই সংগঠনের অভিযোগ। সংগঠনের নেতা, নওলকিশোর শ্রীবাস্তব জানান, তাঁদের অ্যাপ-ক্যাব চালক এবং ট্যাক্সিচালক সংগঠনের সদস্যেরা একসঙ্গে আজ, সোমবার দুপুর ১২টা থেকে পরিবহণ দফতরের গণেশচন্দ্র অ্যাভিনিউ সংলগ্ন কার্যালয়ের সামনে অবস্থান শুরু করবেন। একই সঙ্গে শহর জুড়ে পরিষেবা বন্ধ রাখবেন চালকেরা।

সিটু অনুমোদিত অ্যাপ-ক্যাব সংগঠনের নেতৃত্বের অভিযোগ, ক্যাব সংস্থাগুলি এক তরফা ভাবে চালকদের আইডি ব্লক করে দিচ্ছে। সংগঠনের সভাপতি ইন্দ্রজিৎ ঘোষ জানান, তাঁরা এসি এবং নন এসি ক্যাবের জন্য পৃথক ভাড়ার দাবি জানিয়েছেন। ক্যাব সংস্থার কমিশনের হার কমানো ছাড়াও চালকদের ইনসেনটিভের হার বাড়ানোর দাবি জানিয়েছেন তাঁরা। সোমবার থেকে তাঁদের সংগঠন নাগাড়ে ধর্মঘটের ডাক দিয়েছে। ক্যাব চালক সংগঠনগুলির আন্দোলনের মধ্যেই গত শনিবার রাসবিহারী মোড়ের কাছে একটি অ্যাপ-ক্যাব সংস্থার অফিসের সামনে এক চালক গায়ে কেরোসিন ঢেলে আত্মহত্যার চেষ্টা করেন বলে অভিযোগ।

Advertisement

আবার সম্প্রতি দক্ষিণ কলকাতার একটি এলাকা থেকে রাত সাড়ে ৯টা নাগাদ যাত্রী তুলে দমদম এলাকায় পৌঁছে দেন এক ক্যাব চালক। অভিযোগ, তখন যাত্রীর মোবাইলে ৯১ টাকা ভাড়া দেখায় অ্যাপ। অথচ চালকের মোবাইলে তা হয় ২০১ টাকা। যাত্রী ৯১ টাকা দিয়ে নেমে যেতে চাইলে তীব্র বচসার উপক্রম হয়। অভিযোগ, এর পরে ওই যাত্রী চালককে চড় মারেন। এ নিয়ে দমদম থানায় অভিযোগ জানালেও কোনও ফল হয়নি বলে দাবি চালকের। ওই ঘটনার পরে যাত্রীর অভিযোগের ভিত্তিতে অ্যাপ-ক্যাব
চালকের আইডি ব্লক করে দেওয়ায় তিনি প্রায় এক সপ্তাহ কোনও যাত্রী তুলতে পারেননি। বাধ্য হয়ে ওই চালক শনিবার টালিগঞ্জ থানায় এ নিয়ে অভিযোগ দায়ের করেন। ওই ঘটনার প্রতিবাদে সরব হয়েছে ‘ওয়েস্ট বেঙ্গল অনলাইন ক্যাব অপারেটর্স গিল্ড’ এবং সিটুর অ্যাপ-ক্যাব চালক সংগঠন। এ দিন
আইএনটিটিইউসি অনুমোদিত অনলাইন ক্যাব অপারেটর্স গিল্ডের সাধারণ সম্পাদক ইন্দ্রনীল বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, ‘‘আমরা ধর্মঘটের পক্ষে নই। তবে ক্যাব সংস্থাগুলি চালকদের প্রতি অমানবিক আচরণ করছে। আমরা চালকদের ১০ লক্ষ টাকা বিমা, কমিশনের হার কমানো এবং ভাড়া বাড়ানো-সহ একাধিক দাবিতে সোমবার রাসবিহারী মোড়ে একটি ক্যাব সংস্থার অফিসে
বিক্ষোভ দেখাব।’’ তিনি আরও জানান, দিল্লি-সহ বেশ কিছু শহরে ক্যাবে সিএনজি ব্যবহার করায় চালকদের কিলোমিটার পিছু খরচ ডিজ়েলের তুলনায় অনেক কম পড়ছে। কিন্তু কলকাতা, মহারাষ্ট্র, বেঙ্গালুরুতে ওই সুবিধা না থাকায় অসুবিধার সম্মুখীন হচ্ছেন চালকেরা।

আরও পড়ুন

Advertisement