Advertisement
২০ জুলাই ২০২৪
Street Dogs in Kolkata

পথকুকুরের সংখ্যা বাড়চ্ছে, কলকাতায় গাড়ি চাপা পড়ে মারা যাচ্ছে কুকুরের বাচ্চা, উদ্বিগ্ন মেয়র ফিরহাদ হাকিম

কুকুরদের নির্বীজকরণ নিয়ে সাধারণ মানুষের সচেতনতার ও স্বেচ্ছাসেবী সংস্থাগুলিকে তাদের দায়িত্বের কথাও স্মরণ করিয়ে দিয়েছেন মেয়র ফিরহাদ হাকিম।

As the number of stray dogs is increasing, puppies are dying being run over in Kolkata, Mayor Firhad Hakim is concerned

ফিরহাদ হাকিম। —ফাইল চিত্র।

আনন্দবাজার অনলাইন সংবাদদাতা
কলকাতা শেষ আপডেট: ১৫ জুন ২০২৪ ১৯:২৯
Share: Save:

কলকাতা শহরে বাড়চ্ছে পথকুকুরের সংখ্যা। পাল্লা দিয়ে বাড়ছে বাচ্চা কুকুরদের গাড়ির তলায় চাপা পড়ে মৃত্যুর ঘটনাও। এমন সব ঘটনার কথা উল্লেখ করে উদ্বেগ প্রকাশ করলেন মেয়র ফিরহাদ হাকিম। শনিবার কলকাতা পুরসভায় আয়োজিত এক সাংবাদিক বৈঠকে পথকুকুরদের সংখ্যাবৃদ্ধি নিয়ে এক প্রশ্নের জবাবে উদ্বেগ ধরা পড়েছে পুরমন্ত্রীর গলায়। সঙ্গে কুকুরদের নির্বীজকরণ নিয়ে সাধারণ মানুষের সচেতনতার ও স্বেচ্ছাসেবী সংস্থাগুলিকে তাদের দায়িত্বের কথাও স্মরণ করিয়ে দিয়েছেন তিনি।

ফিরহাদ বলেন, ‘‘স্বেচ্ছাসেবী সংস্থাগুলি যদি ঠিক করে নির্বীজকরণের কাজ করত, তা হলে পথকুকুরদের সংখ্যা এত বাড়ত না। কত কষ্ট লাগে যখন দেখি, ছোট ছোট বাচ্চা কুকুরগুলো গাড়ি নীচে চলে যাচ্ছে। তাদের পিষে মেরে দিচ্ছে। তার পর তাদের উপর দিয়ে একের পর এক গাড়ি চলে যাচ্ছে এবং তারা রাস্তার সঙ্গে মিশে যাচ্ছে। এগুলি খুবই কষ্টের।’’

তাঁর কথায়, ‘‘আমাদের সচেতন হতে হবে। শুধু কুকুরকে খাইয়ে দিলাম আর ফেসবুকে ছবি তুলে দিলাম আর কুকুরকে খাইয়ে পশুপ্রেমী হিসাবে প্রমাণ দিলাম। এটা করলে হবে না। শুধু কুকুরকে খাওয়ানো নয়, কুকুরকে বাঁচাতেও হবে। যে কুকুরটাকে আমি রোজ খাওয়াচ্ছি, তাকে কেন নির্বীজকরণ করাচ্ছি না? ব্যক্তিগত ভাবে কুকুরকে নিয়ে গিয়ে নির্বীজকরণ করানোও দায়িত্ব। শুধু কুকুরকে খাওয়ালাম, আর তার বাচ্চাগুলো গাড়ির তলায় পিষে মারা গেল, এটা কোনও সমাধান হল না।’’ তবে, পথকুকুরদের নির্বীজকরণের ব্যাপারে কলকাতা পুরসভা কোনও উদ্যোগ নিচ্ছে কি না, সে বিষয়ে স্পষ্ট করে কিছুই জানাননি মেয়র।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE