×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

২৫ জানুয়ারি ২০২১ ই-পেপার

শহর কলকাতায় ফের হেনস্থার শিকার অভিনেত্রী, অভিযুক্ত পেট্রোল পাম্পের কর্মীরা

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা২৫ অগস্ট ২০১৯ ২০:১৬
অভিনেত্রী জুহি সেনগুপ্তকে হেনস্থার অভিযোগ। ছবি: জুহির ফেসবুক থেকে নেওয়া

অভিনেত্রী জুহি সেনগুপ্তকে হেনস্থার অভিযোগ। ছবি: জুহির ফেসবুক থেকে নেওয়া

ফের শহর কলকাতায় টলি অভিনেত্রীকে হেনস্থার অভিযোগ। এ বার হেনস্থার শিকার জুহি সেনগুপ্ত। অভিনেত্রীর অভিযোগ, বেড়াতে যাওয়ার পথে গাড়ির তেল ভরার সময় তাঁকে এবং তাঁর পরিবারের লোকজনকে হেনস্থা করেন পাম্পের কর্মীরা। ই এম বাইপাসে রুবি মেট্রোর কাছে একটি পেট্রোল পাম্পের এই ঘটনার পরই ১০০ ডায়ালে ফোন করে সাহায্য চান অভিনেত্রী জুহি সেনগুপ্ত। পাশাপাশি ফেসবুক লাইভেও ঘটনার বিবরণ দিয়েছেন।

আজ সকালে পরিবারের লোকজনের সঙ্গে একটি গাড়িতে দেউলটি যাচ্ছিলেন জুহি। যাওয়ার পথে গাড়িতে তেল ভরার জন্য রুবির কাছে একটি পেট্রোল পাম্পে দাঁড়ান তাঁরা। ফেসবুকে লাইভ করে জুহির বক্তব্য, এক কর্মীকে গাডি়তে ১৫০০ টাকার তেল ভরতে বলেন। কিন্তু ওই কর্মী ১৫০০ টাকার বদলে ৩০০০ টাকার তেল ভরে দেন। এত টাকার তেল কেন ভরা হল, সেই প্রশ্ন করতেই তর্কাতর্কি শুরু দেন পাম্পের কর্মীরা।

জুহির অভিযোগ, তাঁর গাড়ি থেকে চাবি চাবি খুলে নেওয়া হয়। চাবি চাইতে গেলে তাঁর বাবাকে ধাক্কা মারা হয়। বাবাকে বাঁচাতে গেলে মেয়ে তাঁকেও ধাক্কা দেওয়া হয় বলে অভিযোগ জুহির। এর পরই ১০০ ডায়ালে ফোন করে ঘটনার কথা জানান অভিনেত্রী। পুলিশ ওই পাম্পে গিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে আনে। পরে থানায় লিখিত অভিযোগ জানায় জুহির পরিবার।

Advertisement

 

আরও পড়ুন: বেলাগাম জীবনে বাধা, ডিভোর্সের জন্য চাপ, বেহালায় স্বামীকে সঙ্গে নিয়ে মাকে খুন করল মেয়ে

ফেসবুক লাইভে জুহি বলেন, ‘‘আমার শহরে এমন ঘটনা! ভাবতে পারিনি। বাবা মা খুব ভয়ে আছে।’’ পরে আনন্দবাজারকেও ফোনে তিনি বলেন, ‘‘ঘটনার পর আতঙ্কে রয়েছি। পুলিশকে জানিয়েছি।’’ 

পুলিশ সূত্রের খবর, অভিযোগের ভিত্তিতে পাম্পের অভিযুক্ত কর্মীদের থানায় ডেকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হয়েছে। পাশাপাশি পাম্পের সিসিটিভি ফুটেজ খতিয়ে দেখছেন তদন্তকারী অফিসাররা। তবে ঘটনায় এখনও মামলা দায়ের হয়নি। পুলিশ আসার পরে আরও একটি ফেসবুক লাইভ করেন অভিনেত্রী। 


 

আরও পড়ুন: ইতিহাস! ব্যাডমিন্টনে দেশের প্রথম বিশ্বচ্যাম্পিয়ন, সিন্ধুপ্লাবনে হারিয়ে গেলেন ওকুহারা

কলকাতা পুলিশের ডিসি ইএসডি সুদীপ সরকার বলেন, ‘‘ওই পেট্রোল পাম্পের সিসিটিভি ফুটেজ সংগ্রহ করা হয়েছে। ঠিক কী ঘটনা ঘটেছিল, তা জানার চেষ্টা চলছে।’’

Advertisement