×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

০৭ মে ২০২১ ই-পেপার

জেসিবি মেশিন দিয়ে ঘর ভাঙার সময় দেওয়াল চাপা পড়ে শিশুর মৃত্যু, উত্তেজনা নোনাডাঙায়

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা ২৬ জুন ২০১৯ ১৪:৪৪
এই দেওয়ালে চাপা পড়েই মৃত্যু হয় সুরজিৎ সর্দারের (ইনসেটে)। —নিজস্ব চিত্র।

এই দেওয়ালে চাপা পড়েই মৃত্যু হয় সুরজিৎ সর্দারের (ইনসেটে)। —নিজস্ব চিত্র।

দেওয়াল চাপা পড়ে শিশুমৃত্যুর ঘটনায় উত্তেজনা ছড়াল নোনাডাঙায়। বুধবার ওই এলাকায় একটি প্রকল্পে জেসিবি মেশিন দিয়ে শ্রমিকদের ঘর ভাঙার কাজ চলছিল। তখনই দুর্ঘটনাটি ঘটে। পুলিশ সূত্রে খবর, ঘরের দেওয়ালের নীচে চাপা পড়ে শিশুটি। মৃত শিশুর নাম সুরজিৎ সর্দার। নোনাডাঙার চিনা মন্দির এলাকা তাদের বাড়ি।

ওই শিশু মৃত্যুর খবর ছড়িয়ে পড়তেই চিনা মন্দির এলাকায় উত্তেজনা তৈরি হয়। যে জেসিবি মেশিনের কারণে এই দুর্ঘটনাটি ঘটেছে, সেটি ভাঙার চেষ্টা করেন স্থানীয়রা। খবর পেয়ে পুলিশ যায়। তখন বাধা পেয়ে পুলিশের সঙ্গেও হাতাহাতিতেও জড়িয়ে পড়েন এলাকাবাসী।

স্থানীয়দের অভিযোগ, ওই এলাকায় অনেক মানুষের বসবাস। সে কারণে আগেই আনন্দপুর থানাকে সতর্ক করা হয়েছিল। তার পরেও বিষয়টি গুরুত্ব দেয়নি পুলিশ। এ দিন দুর্ঘটনার পর নতুন করে উত্তেজনা ছড়িয়ে পড়ে।

Advertisement

আরও পড়ুন: যোধপুর পার্কের বিশাল ফ্ল্যাট হাতাতে খুন, ডায়েরির সূত্রেই গ্রেফতার প্রতিবেশী

লালবাজারের ‘ধর্মাচরণ’, ছাড় নয় পুলিশকেও

প্রত্যক্ষদর্শীরা জানান, রুবি হাসপাতালের সামনে মেট্রো প্রকল্পের জন্য কংক্রিটের স্ল্যাব রাখা থাকত ওই এলাকায়। সেখানে বেশ কয়েকটি অস্থায়ী ঘর তৈরি করা হয়। ঘরগুলি ভাঙার আগে এলাকাটি ঘেরা হয়নি। তার ফলেই দুর্ঘটনাটি ঘটেছে। মৃতের পরিবারের অভিযোগ, পাঁচিলের পাশে দু’টি শিশু খেলতে খেলতে চলে আসে। বিষয়টি দেখতে পেয়ে যিনি জেসিবি মেশিন চালাচ্ছিলেন, তাঁকে বারণ করা হয়। তা সত্ত্বেও তিনি ঘর ভাঙতে শুরু করেন। তখনই দেওয়ালের নীচে চাপা পড়ে যায় শিশুটি। ঘটনাস্থলেই তার মৃত্যু হয়।

কলকাতা শহরের রোজকার ঘটনা, কলকাতার আবহাওয়া, কলকাতার হালচাল জানতে চোখ রাখুন আমাদেরকলকাতাবিভাগে।

Advertisement