Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

১৮ জানুয়ারি ২০২২ ই-পেপার

যৌন হেনস্থায় ধৃত সহপাঠী, পরে জামিন

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা ২৮ ডিসেম্বর ২০১৯ ০৩:১১
প্রতীকী ছবি।

প্রতীকী ছবি।

তাঁর মেয়েকে কেউ এক জন আনন্দপুর-মাদুরদহের কাছে একটি গেস্ট হাউসে আটকে রেখেছে এবং যৌন হেনস্থা করেছে। রাত পৌনে ১০টা নাগাদ এক মহিলার উদ্বিগ্ন গলার ফোন পেয়েই লালবাজার কন্ট্রোল রুম খবর পাঠায় আনন্দপুর থানায়। আর তার পরেই ওই থানার পুলিশ একটি গেস্ট হাউস থেকে ওই তরুণীকে উদ্ধার করে। গ্রেফতার করা হয় এক যুবককে। পুলিশ জানিয়েছে, ধৃতের নাম অনিরুদ্ধ পাঁজা। তিনি অভিযোগকারিণী তরুণীর সহপাঠী। ধৃতের বাড়ি হাওড়ার লিলুয়ায়।

পুলিশ জানিয়েছে, বছর চব্বিশের ওই তরুণী অভিযোগে জানিয়েছেন, বৃহস্পতিবার বিকেল সাড়ে ৫টা নাগাদ তিনি অনিরুদ্ধের সঙ্গে শিয়ালদহ স্টেশনে দেখা করেন। অনিরুদ্ধ আর তিনি একই সঙ্গে একটি বিশ্ববিদ্যালয়ের দূরশিক্ষা বিভাগে পড়াশোনা করেন। তরুণী জানিয়েছেন, বৃহস্পতিবার তিনি ও অনিরুদ্ধ শিয়ালদহ স্টেশন থেকে দেখা করার পরে ট্যাক্সি ধরে পৌঁছন আনন্দপুর থানা এলাকায় মাদুরদহের একটি গেস্ট হাউসে। সেখানে দু’জনে মিলে সইসাবুদ করে ঢোকেন।

এর পরেই তিনি তাঁর মাকে ফোন করে জানান, অনিরুদ্ধ মাদুরদহের একটি গেস্ট হাউসে জোর করে আটকে রেখে যৌন হেনস্থা করেছেন। মেয়ের ফোন পেয়েই মা ফোন করেন লালবাজার কন্ট্রোল রুমে। কন্ট্রোল রুম থানায় খবর দিলে পুলিশ গেস্ট হাউস থেকে তরুণীকে উদ্ধার করে। অনিরুদ্ধকে গ্রেফতার করে শুক্রবার আদালতে তোলা হলে বিচারক তাঁকে জামিনে মুক্তি দেন।

Advertisement

পুলিশ জানায়, তরুণীর দাবি অনিরুদ্ধ তাঁর ভাল বন্ধু। সেই কারণে তাঁরা ঠিক করেন দু’জনে একসঙ্গে বসে মদ্যপান করবেন। পানশালায় যেতে অসুবিধা হওয়ায় তিনি অনিরুদ্ধের সঙ্গে ওই গেস্ট হাউসে যান। কিন্তু সেখানে গিয়ে আচমকাই ওই যুবক তাঁর যৌন হেনস্থা করলে তিনি বাড়িতে ফোন করতে বাধ্য হন।

আরও পড়ুন

Advertisement