×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

০৭ মে ২০২১ ই-পেপার

কংগ্রেসের কার্যালয় ভাঙা নিয়ে হইচই

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা ২৮ এপ্রিল ২০১৯ ০১:৪২
দলীয় কার্যালয়ে ভাঙচুরের অভিযোগে এ দিন দুপুরে দীর্ঘক্ষণ পথ অবরোধ করেন কংগ্রেসের কর্মী-সমর্থকেরা।

দলীয় কার্যালয়ে ভাঙচুরের অভিযোগে এ দিন দুপুরে দীর্ঘক্ষণ পথ অবরোধ করেন কংগ্রেসের কর্মী-সমর্থকেরা।

গার্ডেনরিচে কংগ্রেসের দলীয় কার্যালয়টি কার নির্দেশে ভাঙা হয়েছে, তা নিয়ে শনিবার তোলপাড় হল ওই এলাকা। শুক্রবার রাতে রামনগর মোড়ে ওই ঘটনায় দক্ষিণ কলকাতা জেলা কংগ্রেস লিখিত অভিযোগ দায়ের করেছে ডিসি (বন্দর)-র কাছে। পুলিশ ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে। যদিও পুরসভা সূত্রের খবর, বেআইনি ভাবে ওই কার্যালয়টি গড়ে ওঠায় তারাই সেটি ভেঙে দিয়েছে।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রের খবর, শনিবার সকালে দলের কর্মীরা দেখেন, গার্ডেনরিচের রামনগর মোড়ে ওই কার্যালয়টি ভেঙে দেওয়া হয়েছে হয়েছে। স্থানীয় কংগ্রেস নেতা মহম্মদ মোক্তার অভিযোগ করেন, ‘‘তৃণমূল চক্রান্ত করে পুলিশ লাগিয়ে এই কাজ করেছে।’’ যদিও কংগ্রেসের এই অভিযোগ উড়িয়ে দিয়েছেন স্থানীয় তৃণমূল কাউন্সিলর মহম্মদ আনোয়ার খান। আনোয়ারের অভিযোগ, ‘‘কংগ্রেস আমাদের নামে মিথ্যা অভিযোগ করছে। ওই পার্টি অফিস রাস্তার উপরে বেআইনি ভাবে তৈরি হয়েছিল। এটা কংগ্রেসের নিজেদের মধ্যে ঝামেলার ফল।’’

দলীয় কার্যালয়ে ভাঙচুরের অভিযোগে এ দিন দুপুরে দীর্ঘক্ষণ পথ অবরোধ করেন কংগ্রেসের কর্মী-সমর্থকেরা। তাঁদের অভিযোগ, প্রশাসনই এই কাজ করেছে। এ দিকে, কলকাতা দক্ষিণ লোকসভা কেন্দ্রের জেলা নির্বাচন অফিস সূত্রের খবর, ওই দলীয় কার্যালয়টি সরকারি রাস্তায় বেআইনি ভাবে গড়ে উঠেছে বলে লিখিত অভিযোগ করেছিলেন তৃণমূলের রাজ্যসভার এক সাংসদ। চিঠিতে তাঁর অভিযোগ, সরকারি রাস্তা দখল করে ওই অফিস গড়ে তুলেছে কংগ্রেস। যা নির্বাচনী বিধিভঙ্গের শামিল। অবিলম্বে তাদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়ার আর্জি জানান তিনি। সাংসদের ওই অভিযোগের ভিত্তিতেই কলকাতা পুর প্রশাসনকে চিঠি দিয়েছিলেন কলকাতা দক্ষিণ লোকসভা কেন্দ্রের এক নির্বাচনী অফিসার। সেখানে বলা হয়েছে, ওই অভিযোগের বিরুদ্ধে কী ব্যবস্থা নিচ্ছে পুর প্রশাসন, তা নির্বাচন কমিশনের অফিসে জানাতে হবে।

Advertisement

দিল্লি দখলের লড়াই, লোকসভা নির্বাচন ২০১৯

পুরসভার এক অফিসার জানান, এর পরেই শুক্রবার গভীর রাতে পুরসভার দল গিয়ে এই অফিস ভেঙে দিয়েছে।

Advertisement