Advertisement
০১ অক্টোবর ২০২২
Anuj Sharma

নাগরিকদের সুরক্ষায় ৪ প্রকল্পের ‘রক্ষাকবচ’ কলকাতা পুলিশের

যাঁরা নিখোঁজ, অথবা যাঁদের নামে নিখোঁজ ডায়েরি হচ্ছে, তাঁদের দ্রুত খুঁজে বার করতে চালু হল ‘সন্ধান’ প্রকল্প।

প্রকল্পের আনুষ্ঠানিক সূচনা করেন সিপি।

প্রকল্পের আনুষ্ঠানিক সূচনা করেন সিপি। —নিজস্ব চিত্র।

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা শেষ আপডেট: ২৯ জানুয়ারি ২০২১ ১৮:০৫
Share: Save:

নাগরিকদের সুরক্ষায় ৪টি প্রকল্পের সূচনা করলেন কলকাতার পুলিশ কমিশনার অনুজ শর্মা। আজ, শুক্রবার মাসিক ‘ক্রাইম কনফারেন্স’ ছিল বডি গার্ড লাইন্সে। সেখানে নাগরিকদের সুরক্ষার বিষয়ে আলোচনায় উপস্থিত ছিলেন পুলিশ কমিশনার ছাড়াও, বিশেষ পুলিশ কমিশনার (১) জাভেদ শামিম, বিশেষ পুলিশ কমিশনার (২) দময়ন্তী সেন এবং গোয়েন্দা প্রধান মুরলীধর শর্মা-সহ পুলিশের পদস্থ কর্তারা। ওই কনফারেন্সে প্রকল্পগুলির আনুষ্ঠানিক সূচনা করেন সিপি।

প্রকল্পগুলির মধ্যে উল্লেখযোগ্য মহিলাদের জন্য সাইবার সহায়তা কেন্দ্র। বেশিরভাগ সময়েই মহিলারা সাইবার অপরাধীদের লক্ষ্য হন। লালবাজারে সাইবার থানা থাকলেও, এই ধরনের ঘটনা যাতে দ্রুত সমাধান হয়, সে জন্য এ বার সাইবার সহায়তা কেন্দ্র চালু হল কলকাতা পুলিশ এলাকায়।

এ ছাড়াও যাঁরা নিখোঁজ, অথবা যাঁদের নামে নিখোঁজ ডায়েরি হচ্ছে, তাঁদের দ্রুত খুঁজে বার করতে চালু হল ‘সন্ধান’ প্রকল্প। বিভিন্ন স্বেচ্ছাসেবী সংস্থার সহযোগিতায় কলকাতা পুলিশ যৌথভাবে কাজ করবে। এর পাশাপাশি কলকাতা পুলিশের প্রতিটি ডিভিশনে ‘সাইবার ল্যাবরেটরি’ চালু হল। তথ্যপ্রযুক্তিকে কাজে লাগিয়ে ফাঁদ পাতছে অপরাধীরা। এটিএম জালিয়াতি থেকে অনলাইন প্রতারণার শিকার হয়ে টাকা খোয়াচ্ছেন গ্রাহকেরা। সে কথা মাথায় রেখেই এই পরিকল্পনা।

ব্যাঙ্ক জাতিয়াতি আরও একটি মাথাব্যথার কারণ হয়ে উঠেছে গ্রাহকদের কাছে। কখনও ফোন করে, আবার কখনও এসএমএস-এর মাধ্যমে গ্রাহকদের বোকা বানিয়ে টাকা হাতাচ্ছে প্রতারকরা। এ বিষয়টি মাথায় রেখে চালু হল ‘রক্ষাকবচ’।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.