Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২০ জানুয়ারি ২০২২ ই-পেপার

ব্যাগ স্ক্যানে আর আলাদা লাইন নয় বিমানবন্দরে

সুনন্দ ঘোষ
কলকাতা ২৮ ডিসেম্বর ২০১৯ ০৩:১৫
নতুন বছরে বিমানবন্দরের এই এক্স-রে মেশিনের সামনে দাঁড়াতে হবে না যাত্রীদের। ফাইল চিত্র

নতুন বছরে বিমানবন্দরের এই এক্স-রে মেশিনের সামনে দাঁড়াতে হবে না যাত্রীদের। ফাইল চিত্র

বিমানবন্দরে ঢুকে প্রথমেই বড় ব্যাগ এক্স-রে করিয়ে নেওয়ার দিন এ বার শেষ হতে চলেছে।

আগামী বছরের শুরুতে কলকাতা বিমানবন্দরে বসতে চলেছে ‘ইন-লাইন ব্যাগেজ স্ক্যানিং সিস্টেম’। যার ফলে কোনও যাত্রী বিমানবন্দরে ঢুকে ব্যাগসমেত সরাসরি চেক-ইন কাউন্টারে চলে যেতে পারবেন। সেখানে তাঁর সঙ্গে থাকা বড় বড় ব্যাগ তুলে দিতে পারবেন উড়ান সংস্থার হাতে। চেক-ইন কাউন্টার লাগোয়া কনভেয়ার বেল্টে ব্যাগ রাখলে তা পৌঁছে যাবে অ্যাপ্রন এলাকায়। আর এই যাওয়ার পথে কনভেয়ার বেল্টে থাকাকালীনই ব্যাগ এক্স-রে হয়ে যাবে। কোনও ব্যাগের ভিতরে সন্দেহজনক কিছু রয়েছে বলে মনে হলে সেটি সরিয়ে রেখে সংশ্লিষ্ট যাত্রীকে ডেকে পাঠাবে নিরাপত্তার দায়িত্বে থাকা সিআইএসএফ।

সারা বিশ্বে তো বটেই, দিল্লি-মুম্বই-বেঙ্গালুরু-হায়দরাবাদের মতো দেশের বড় বড় বিমানবন্দরগুলিতেও এই ইন-লাইন ব্যবস্থা চালু হয়ে গিয়েছে। ২০১৩ সালে কলকাতা বিমানবন্দরে নতুন টার্মিনাল চালু হওয়ার সময়েও এই ব্যবস্থা চালি করা হবে বলে জানিয়েছিলেন কর্তৃপক্ষ। এর মধ্যে কলকাতার আন্তর্জাতিক টার্মিনালের তিনটি কনভেয়ার বেল্টে পরীক্ষামূলক ভাবে এই ব্যবস্থা চালু হয়েছিল। কিন্তু কিছু ত্রুটি ধরা পড়ার পরে তা বন্ধ করে দিতে হয়।

Advertisement

আমেরিকার যে সংস্থাটিকে এই ইন-লাইন ব্যবস্থা পর্যালোচনা করার জন্য নিয়োগ করা হয়েছিল, সম্প্রতি তাদের প্রতিনিধিরা কলকাতা বিমানবন্দরে এসে এ বিষয়ে খতিয়ে দেখে সবুজ সঙ্কেত দিয়ে গিয়েছেন। কলকাতা বিমানবন্দরের অধিকর্তা কৌশিক ভট্টাচার্য বলেন, ‘‘আমেরিকার ব্যাটেল সংস্থার প্রতিনিধিরা গত সেপ্টেম্বরে এসে একবার দেখে যান। তখনও ত্রুটি ধরা পড়ে। আমরা সেই ত্রুটি সারিয়ে নেওয়ার পরে দিন কয়েক আগে তাঁরা আবার এসে দেখে গিয়েছেন। এ বার তাঁদের তরফে সবুজ সঙ্কেত মিলেছে।’’

বিমানবন্দর কর্তৃপক্ষ জানিয়েছেন, আমেরিকায় এখন বড়দিনের ছুটি চলছে। জানুয়ারির প্রথম সপ্তাহে সরকারি ভাবে দিল্লির সঙ্গে যোগাযোগ করবে ওই মার্কিন সংস্থা। তার পরেও এখানে বুরো অব সিভিল এভিয়েশন সিকিওরিটি (বিসিএএস)-এর চূড়ান্ত অনুমতির প্রয়োজন হবে। ভারতের সমস্ত বিমানবন্দরের নিরাপত্তা ব্যবস্থা ঠিক রয়েছে কি না, তা দেখভাল করে বিসিএএস। তাদের সবুজ সঙ্কেত পেলে কলকাতায় অন্তর্দেশীয় এবং আন্তর্জাতিক টার্মিনালে এই ইন-লাইন ব্যবস্থা চালু হয়ে যাবে বলে কর্তৃপক্ষের আশা।

কলকাতা বিমানবন্দর সূত্রের খবর, এখনও কলকাতা থেকে উড়ান ধরতে আসা যাত্রীদের প্রথমে এক্স-রে মেশিনের সামনে লাইন দিতে হয়। সেখান থেকে ব্যাগ এক্স-রে করিয়ে তার পরে ফের দাঁড়াতে হয় চেক-ইন কাউন্টারের সামনে। নতুন ইন-লাইন ব্যবস্থা চালু হয়ে গেলে তাই যাত্রীদের সময়েরও সাশ্রয় হবে। তা ছাড়া নতুন টার্মিনালের সঙ্গে ওই এক্স-রে মেশিনগুলি তেমন মানানসই নয়। তাই সেগুলি সরে গেলে বিমানবন্দরে আরও জায়গা বাড়বে।

আরও পড়ুন

Advertisement