Advertisement
১৮ জুলাই ২০২৪
Fire in Park Street

আগুন লাগার কারণ নিয়ে ধোঁয়াশা, নমুনা সংগ্রহ ফরেন্সিকের

মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ১০টা নাগাদ ক্যামাক স্ট্রিট এবং পার্ক স্ট্রিটের সংযোগস্থলে, অ্যালেন পার্কের উল্টো দিকে ওই রেস্তরাঁয় ভয়াবহ আগুন লাগে। আগুন লাগার খবরে ঘটনাস্থলে যায় দমকলের ১৪টি ইঞ্জিন।

পুড়ে যাওয়া রেস্তরাঁয় তদন্তে ফরেন্সিক দল। বুধবার, ক্যামাক স্ট্রিটে।

পুড়ে যাওয়া রেস্তরাঁয় তদন্তে ফরেন্সিক দল। বুধবার, ক্যামাক স্ট্রিটে। ছবি: স্বাতী চক্রবর্তী।

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা শেষ আপডেট: ১৩ জুন ২০২৪ ০৭:৩৩
Share: Save:

ক্যামাক স্ট্রিটের রেস্তরাঁয় আগুন লাগার ঘটনায় ২৪ ঘণ্টার বেশি সময় পেরিয়ে গেলেও অগ্নিকাণ্ডের কারণ নিয়ে নিশ্চিত হতে পারছেন না তদন্তকারীরা। বুধবার পুলিশের পাশাপাশি ঘটনাস্থল খতিয়ে দেখেন কলকাতা পুলিশের ফরেন্সিক আধিকারিকেরা। ভস্মীভূত রেস্তরাঁর ভিতর থেকে বেশ কিছু নমুনা সংগ্রহ করেন তাঁরা। পাশাপাশি, রেস্তরাঁর মালিককে তলব করার প্রক্রিয়াও শুরু হয়েছে। তবে এই ঘটনায় এখনও কোনও মামলা রুজু হয়নি বলে পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে।

মঙ্গলবার সকাল সাড়ে ১০টা নাগাদ ক্যামাক স্ট্রিট এবং পার্ক স্ট্রিটের সংযোগস্থলে, অ্যালেন পার্কের উল্টো দিকে ওই রেস্তরাঁয় ভয়াবহ আগুন লাগে। আগুন লাগার খবরে ঘটনাস্থলে যায় দমকলের ১৪টি ইঞ্জিন। প্রায় তিন ঘণ্টার চেষ্টায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আসে। এই ঘটনায় কেউ হতাহত না হলেও আতঙ্ক ছড়ায় গোটা চত্বরে।

অগ্নিকাণ্ডের তদন্তে নেমে পুলিশ জানতে পারে, এই ভবনের দু’টি তলায় আলাদা আলাদা রেস্তরাঁ-পানশালা ছিল। দু’টির মালিকানা আলাদা। দোতলার ছাদের উপরে টিন দিয়ে ঘিরে বেআইনি নির্মাণ করে আরও একটি জায়গা করা হয়েছিল। প্রাথমিক ভাবে সেখান থেকেই আগুন ছড়িয়েছিল বলে প্রত্যক্ষদর্শীরা জানিয়েছেন। তদন্তে নেমে পুলিশ জানতে পারে, টিন ঘেরা অংশে লাগা আগুনই পরে বাড়িটির অন্যান্য অংশে ছড়িয়ে পড়ে। ভিতরে দাহ্য বস্তু থাকায় আগুন দ্রুত ছড়ায়। তবে প্রাথমিক ভাবে বন্ধ রেস্তরাঁয় কী ভাবে আগুন লাগল, তা নিয়ে ধোঁয়াশা তৈরি হয়।

পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে, রেস্তরাঁগুলিতে কী ধরনের অগ্নিনির্বাপণ ব্যবস্থা ছিল, তা খতিয়ে দেখা হবে। এক তদন্তকারী আধিকারিক বলেন, ‘‘ফরেন্সিক রিপোর্টের জন্য অপেক্ষা করা হচ্ছে। সেই রিপোর্ট আসার পরে তা দেখে পরবর্তী পদক্ষেপ করা হবে।’’

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE