Advertisement
০৩ ডিসেম্বর ২০২২
Kannan Gopinathan

পাল্টা প্রশ্ন করার আর্জি কান্ননের

কলেজ স্ট্রিটের একটি সম্মেলন ছাড়া জ়াকারিয়া স্ট্রিট এবং পার্ক সার্কাসের অবস্থানমঞ্চেও কথা বলেন কান্নন।

প্রতিবাদী: মঙ্গলবার পার্ক সার্কাসে গোপীনাথন কান্নন। নিজস্ব চিত্র

প্রতিবাদী: মঙ্গলবার পার্ক সার্কাসে গোপীনাথন কান্নন। নিজস্ব চিত্র

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা শেষ আপডেট: ১৫ জানুয়ারি ২০২০ ০৩:৩৩
Share: Save:

প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর নাগরিকত্ব দেওয়ার আশ্বাসকে কলকাতায় এসে বিঁধলেন চাকরি থেকে ইস্তফা দেওয়া আইএএস অফিসার গোপীনাথন কান্নন। ‘‘ঘরের আলো নিভিয়ে দেওয়া হল। নেভানোর কথাই ছিল না। এর পরে আলো জ্বালিয়ে বলা হল, দেখ আলো এনে দিয়েছি।’’— কান্ননের মতে, বিষয়টা এ রকমই। যাঁরা নাগরিক, তাঁদের খামোখা অবৈধ ঘোষণা করা হবে কেন? এঁদের মধ্যে কিছু মানুষকে নাগরিকত্ব দিয়ে কেন বলা হবে, দেখ ওঁদের নাগরিকত্ব দেওয়া হচ্ছে না? এর মধ্যে এক ধরনের বিদ্বেষের রাজনীতি এবং মর্ষকামিতা রয়েছে বলে তাঁর দাবি।

কলেজ স্ট্রিটের একটি সম্মেলন ছাড়া জ়াকারিয়া স্ট্রিট এবং পার্ক সার্কাসের অবস্থানমঞ্চেও কথা বলেন কান্নন। নয়া নাগরিকত্ব আইনের হয়ে যাঁরা সওয়াল করেন, তাঁদের যুক্তিগুলি তুলে ধরেই সাধারণের মধ্যে প্রশ্ন ছুড়ে দেন প্রাক্তন আইএএস কর্তা ওই তরুণ। যুক্তি দিয়ে বোঝান কী ভাবে নাগরিকত্ব আইনে শুধু মুসলিমদের প্রতি পক্ষপাতদুষ্ট আচরণ করা হচ্ছে এবং ভবিষ্যতে উপযুক্ত নথিবিহীন গরিব মুসলিমদের নাগরিকত্ব নিয়ে টানাটানির রাস্তা খোলা রাখা হচ্ছে। তাঁর কথায়, ‘‘মানুষকে ‘অপর’ করে রাখার রাজনীতির শেষ নেই। মুসলিমদের পরে অন্য কাউকে নিশানা করা হবে। মোদীরা অনুপ্রবেশকারীদের ঢুকতে দেব না বললে পাল্টা প্রশ্ন করুন, কারা অনুপ্রবেশকারী? ’’

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.