×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

১৯ এপ্রিল ২০২১ ই-পেপার

শান্ত হয়েই জেলে দিন গুজরান অনিন্দিতার

নিজস্ব সংবাদদাতা
২৭ ডিসেম্বর ২০১৮ ০৩:২৮
অনিন্দিতা পাল দে।

অনিন্দিতা পাল দে।

তাঁকে নিয়ে সোশ্যাল মিডিয়া-সংবাদমাধ্যমে চর্চার অন্ত নেই। এমনকি, তাঁর ফেসবুকের টাইমলাইনেও বিভিন্ন মন্তব্য করেছেন অনেকে। সেই তিনিই জেলের অন্দরে নিজেকে খানিকটা আড়ালে রাখতে চাইছেন। তিনি অনিন্দিতা পাল দে।

নিউ টাউনের বাসিন্দা আইনজীবী রজত দে খুনের ঘটনায় জড়িত সন্দেহে ১ ডিসেম্বর গ্রেফতার হয়েছেন তাঁর স্ত্রী অনিন্দিতা। আগামী কাল, শুক্রবার তাঁর প্রথম দফার জেল হেফাজতের মেয়াদ শেষ হওয়ার কথা। বর্তমানে দমদম কেন্দ্রীয় সংশোধনাগারে রয়েছেন তিনি।

জেল সূত্রের খবর, জেলের ভিতর অনিন্দিতা চুপচাপই থাকছেন। প্রয়োজন ছাড়া তিনি খুব একটা কথা বলছেন না। তবে তাঁর আচরণ স্বাভাবিক বলেই মনে করছেন জেল আধিকারিকেরা। তিনি যে কিছুটা সংশয়ে রয়েছেন তা তাঁর চোখ-মুখে কখনও কখনও ফুটে উঠছে বলে খবর। এ প্রসঙ্গে কারা কর্তাদের একাংশ জানান, সংশোধনাগারে অভিযুক্ত তো তাঁর ইচ্ছামতো কিছু করতে পারবেন না। তা ভেবেই অনেকে নতুন আসার পরে খানিকটা ঘাবড়ে যান। সেটাই স্বাভাবিক। তবে চুপচাপ থাকলেও সংশোধনাগার কর্তৃপক্ষের সঙ্গে সহযোগিতাই করছেন অনিন্দিতা। সেখানের নিয়ম মেনে চলছেন তিনি।

Advertisement

নভেম্বর মাসের শেষে নিউ টাউনের ডিবি ব্লকের বাসিন্দা রজত দের মৃত্যু হয়। বিচারাধীন আবাসিক হিসেবে সংশোধনাগারে রয়েছেন অনিন্দিতা।

কর্তৃপক্ষ জানান, প্রয়োজনে অনিন্দিতাকে সংশোধনাগারের ‘ভাল’ কাজেও ব্যবহার করা হতে পারে।

Advertisement