Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৮ মে ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

স্টেশনে থুতু-পিক রুখতে এ বার নামছে মেট্রোও 

থুতু কিংবা পান-গুটখার পিক ফেলার সমস্যা মোকাবিলায় কড়া অবস্থান নেওয়ার পথে হাঁটছে রেল।

ফিরোজ ইসলাম
২১ নভেম্বর ২০১৮ ০০:০৩
Save
Something isn't right! Please refresh.
পান-গুটখার পিকে ঝাঁঝরা হাওড়া সেতুর স্তম্ভ। ছবি: দীপঙ্কর মজুমদার

পান-গুটখার পিকে ঝাঁঝরা হাওড়া সেতুর স্তম্ভ। ছবি: দীপঙ্কর মজুমদার

Popup Close

থুতু কিংবা পান-গুটখার পিক ফেলার সমস্যা মোকাবিলায় কড়া অবস্থান নেওয়ার পথে হাঁটছে রেল।

গত শনিবার দক্ষিণ-পূর্ব রেলে এই উদ্যোগ শুরু হওয়ার পরে পূর্ব রেল এবং মেট্রো রেলও এ নিয়ে তৎপরতা বাড়িয়েছে। পূর্ব রেলের শিয়ালদহ স্টেশনে রেলের আধিকারিকেরা সোমবার বিশেষ পরিদর্শনে যান। পাশাপাশি, মঙ্গলবার থেকে মেট্রো রেলেও এক মাসের বিশেষ অভিযান শুরু হয়েছে। আধিকারিকেরা ছোট ছোট দলে ভাগ হয়ে আগামী ২১ ডিসেম্বর পর্যন্ত মেট্রোর বিভিন্ন স্টেশনে বিশেষ নজরদারি চালাবেন। যাত্রীদের কাউকে স্টেশন নোংরা করতে দেখলেই ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানিয়েছেন মেট্রোর কর্তারা।

স্টেশন বা প্ল্যাটফর্মের ভিতরে কেউ থুতু, পান-গুটখার পিক বা আবর্জনা নির্দিষ্ট জায়গার পরিবর্তে অন্য কোথাও ফেলে পরিবেশ নোংরা করলে সেই ব্যক্তির কাছ থেকে আর্থিক জরিমানা আদায়ের কাজ শুরু করেছিল দক্ষিণ-পূর্ব রেল। গত শনিবার সাঁতরাগাছি স্টেশনে এ নিয়ে বিশেষ অভিযান চালানো হয়। যাত্রীদের অনেককেই হাতেনাতে ধরে জরিমানা করা হয়। পরের দিন ফের হাওড়া স্টেশনের নিউ কমপ্লেক্সে অভিযান চলে। শনি ও রবিবার, দু’দিন মিলিয়ে থুতু ফেলার জরিমানা বাবদ প্রায় ২৮ হাজার টাকা আদায় করা হয় বলে জানান কর্তৃপক্ষ। দক্ষিণ-পূর্ব রেল সূত্রের খবর, আগামী দিনে যখন-তখন আচমকাই এই ধরনের পদক্ষেপ করা হবে।

Advertisement

দিন কয়েক আগে দক্ষিণেশ্বর স্কাইওয়াকে এক পথচারী থুতু ফেলেছিলেন। তার শাস্তি হিসেবে ওই ব্যক্তিকে দিয়ে প্রকাশ্যেই থুতু পরিষ্কার করিয়েছিলেন কর্তৃপক্ষ। দক্ষিণ-পূর্ব রেল জানিয়েছে, রবিবার হাওড়া স্টেশনের নিউ কমপ্লেক্সে যাত্রীদের যাঁকেই প্ল্যাটফর্মে থুতু কিংবা পিক ফেলতে দেখা গিয়েছে, তাঁকেই জরিমানা করেছে রেলরক্ষী বাহিনী। জরিমানার অঙ্ক হিসেবে প্ল্যাটফর্মে থুতু ফেললে একশো টাকা এবং গুটখা বা পানের পিকের ক্ষেত্রে পাঁচশো টাকা করে আদায় করা হয়েছে। দেওয়া হয়েছে রসিদও।

দক্ষিণ-পূর্ব রেলের মুখ্য জনসংযোগ আধিকারিক সঞ্জয় ঘোষ জানান, সাঁতরাগাছিতে প্রায় ১০০ জনকে জরিমানা করা হয়। রবিবার হাওড়ায় ১০৮ জনকে জরিমানা করা হয়েছে। দক্ষিণ-পূর্ব রেলের অন্যান্য স্টেশনেও এমন অভিযান চলবে বলে জানিয়েছেন তিনি।

অন্য দিকে, পূর্ব রেল কর্তৃপক্ষ অবশ্য জানিয়েছেন, স্টেশন পরিষ্কার রাখতে শিয়ালদহ শাখায় এমন অভিযান প্রায়ই চালানো হয়। গত এপ্রিল মাস থেকে বিভিন্ন সময়ে কয়েক হাজার যাত্রীকে জরিমানা করা হয়েছে বলে জানান শিয়ালদহ শাখার এক আধিকারিক। পরিচ্ছন্নতার সূচকে শিয়ালদহ স্টেশন গত কয়েক বছরে হাওড়ার থেকে বেশ কয়েক ধাপ উপরে উঠে এসেছে। সর্বভারতীয় সূচকে হাওড়া ৭২ নম্বরে থাকলেও শিয়ালদহ রয়েছে ৬৪-তে।

পূর্ব রেলের মু্খ্য জনসংযোগ আধিকারিক রবি মহাপাত্র বলেন, “পূর্ব রেলেও এ নিয়ে নজরদারি চলছে। অনিয়ম দেখলে ব্যবস্থাও নেওয়া হচ্ছে।”

মঙ্গলবার থেকে মেট্রো রেলে এই কর্মসূচি শুরু হয়েছে। সম্প্রতি মেট্রোর প্ল্যাটফর্মগুলিতে ময়লা ফেলার পাত্র রাখা হয়েছে। কিন্তু তার পরেও যাত্রীদের একাংশ স্টেশনে এবং ট্রেনের ভেস্টিবিউলে নোংরা ফেলছেন। মেট্রো রেলের মুখ্য জনসংযোগ আধিকারিক ইন্দ্রাণী বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, “এক মাসের বিশেষ কর্মসূচি নিচ্ছি আমরা। যাত্রীদের সচেতন করার জন্যই এই উদ্যোগ।”

পশ্চিমবঙ্গ রেলযাত্রী সমিতির সম্পাদক অপরেশ ভট্টাচার্য বলেন, ‘‘রেল যদি এই ধরনের তৎপরতা বজায় রাখে, তবে সকলেরই মঙ্গল। তবে যাত্রীদেরও মনে রাখতে হবে, রেল স্টেশন তাঁদেরও।’’



Something isn't right! Please refresh.

Advertisement