Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

০৫ অক্টোবর ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

আত্মহত্যা, না কি ধাক্কা? বিমানসেবিকার অস্বাভাবিক মৃত্যু নিয়ে ধন্দে পুলিশ

বুধবার ভোর চারটে নাগাদ কেষ্টপুরের নোনাপুকুর এলাকায় রাস্তার উপর তাঁর মুখ থুবড়ে পড়া দেহ দেখতে পান স্থানীয়রা। চারতলা যে বাড়ির সামনে দেহটি পড

নিজস্ব সংবাদদাতা
১৬ অগস্ট ২০১৭ ১১:৪৭
Save
Something isn't right! Please refresh.
বিমানসেবিকা খংসিট ক্লারা বংশ রাইয়ের অস্বাভাবিক মৃত্যু। নিজস্ব চিত্র

বিমানসেবিকা খংসিট ক্লারা বংশ রাইয়ের অস্বাভাবিক মৃত্যু। নিজস্ব চিত্র

Popup Close

তিনতলা থেকে পড়ে অস্বাভাবিক মৃত্যু হল ইন্ডিগো-র এক বিমানসেবিকার। বুধবার ভোর চারটে নাগাদ কেষ্টপুরের নোনাপুকুর এলাকার প্রফুল্লকাননে রাস্তার উপর পড়ে ছিল খংসিট ক্লারা বংশ রাই নামে ওই বিমানসেবিকা দেহ। চারতলা যে বাড়ির সামনে দেহটি পড়ে ছিল, তারই তিনতলার একটি ফ্ল্যাটে থাকতেন বছর তেইশের ওই তরুণী। বাগুইআটি থানার পুলিশ এই ঘটনায় ক্লারার দুই বন্ধুকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ শুরু করেছে।

আরও পড়ুন- রোগীর মৃত্যুতে তুলকালাম

পুলিশ জানিয়েছে, ওই বিমানসেবিকার বাড়ি মেঘালয়ের শিলঙে। তিনি ইন্ডিগো এয়ারলাইন্সে লিড কেবিন অ্যাটেনডেন্ট হিসাবে কাজ করতেন। গত জুন মাস থেকে কেষ্টপুরের এই ফ্ল্যাটে থাকতেন ক্লারা। যে ভাবে রাস্তায় তাঁর দেহ পড়েছিল, তাতে রহস্য দানা বেঁধেছে। তদন্তকারীদের দাবি, তিন তলার উপর থেকে পড়ে গেলে নীচে যেখানে পড়ার কথা, তার থেকে বেশ কিছুটা দূরেই ক্লারার দেহ উদ্ধার হয়। তবে কী, অসাবধনতাবশত পড়ে যাওয়া? আত্মহত্যা? নাকি পরিকল্পিত ভাবে ধাক্কা মেরে ফেলে খুন? তদন্ত শেষ না হওয়া পর্যন্ত কিছুই বলা সম্ভব নয় বলে জানিয়েছে বাগুইআটি থানার পুলিশ।

Advertisement



এখান থেকেই মেলে বিমানসেবিকার মৃতদেহ। নিজস্ব চিত্র

স্থানীয়দের দাবি, ডিউটি শেষে বেশির ভাগ দিনই রাত করে বাড়ি ফিরতেন ক্লারা। মাঝে মাঝে বন্ধুরাও আসতেন। এ বাদে নিয়মিত একটি ছেলে খাবার দিতে তাঁর ফ্ল্যাটে আসত। মঙ্গলবার রাত দেড়টা নাগাদ ক্লারার ফ্ল্যাটে দু’জন তরুণ-তরুণী এসেছিলেন। তাঁদের মধ্যে এক জনের জন্মদিন ছিল বলে জানতে পেরেছে পুলিশ। রাতে ক্লারার ফ্ল্যাটে পার্টিও হয়। তবে ওই দু’জন কখন ক্লারার ফ্ল্যাট থেকে বেরিয়েছিলেন, তা কারও নজরে পড়েনি।



খংসিট ক্লারা বংশ রাই। ছবি- ফেসবুক

আরও পড়ুন- যানজটের ফাঁস, উড়ে গেল বিমান

পরে ভোরের দিকে ওই বিমানসেবিকার দেহ নীচে পড়ে থাকতে দেখে পুলিশে খবর দেন স্থানীয়েরা। বাগুইআটি থানার পুলিশ দেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য পাঠিয়েছে। ক্লারার ফ্ল্যাটে যে দু’জন রাতে এসেছিলেন, তাঁদেরকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ করছে পুলিশ।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)


Tags:
Kestopur Air Hostess Accidentবিমানসেবিকা
Something isn't right! Please refresh.

Advertisement