×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

১১ মে ২০২১ ই-পেপার

ব্যাঙ্কেই কেপমারি, অভিযোগ বৃদ্ধার

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা ১১ মার্চ ২০২০ ০২:৪৫
প্রতীকী ছবি

প্রতীকী ছবি

ব্যাঙ্কেই খোয়া গেল এক বৃদ্ধার ১৭ হাজার টাকা। দমদম রোডের বাসিন্দা মিতালি দত্ত ব্যাঙ্ক থেকে সপ্তাহ দুয়েক আগে ৫০ হাজার টাকা তুলেছিলেন। জাল নোট পরীক্ষার নাম করে এক ব্যক্তি একটি বান্ডিল তাঁর থেকে নিয়ে তা ফেরতও দেয়। অভিযোগ, তার মধ্যে খোয়া যায় ওই টাকা। পুলিশ তাঁর কথার গুরুত্ব দিচ্ছে না বলে অভিযোগ বৃদ্ধার।

মিতালিদেবীর অভিযোগ, সপ্তাহ দুয়েক আগে তিনি দমদম রোডের একটি ব্যাঙ্কে গিয়েছিলেন টাকা তুলতে। লাইনে তাঁর পিছনেই টাকা হাতে দাঁড়িয়েছিল এক ব্যক্তি। সে জানিয়েছিল, টাকা জমা দেবে। মিতালিদেবী জানান, টাকা তুলে কাউন্টার থেকে সরে গুনছিলেন তিনি। বৃদ্ধা বলেন, ‘‘পাশে দাঁড়িয়ে ওই ব্যক্তি জানায়, বান্ডিলে জাল নোট আছে। তার পরেই নোটগুলি নেড়েচেড়ে ফেরত দেয়। গুনে দেখি ১৭ হাজার টাকা কম।’’

তত ক্ষণে ওই ব্যক্তি উধাও। কাউন্টার থেকে জানানো হয়, ওই রকম কোনও ব্যক্তি টাকা জমা করেননি। তার পরেই মিতালিদেবী ঘুঘুডাঙা ফাঁড়িতে অভিযোগ করেন। বৃদ্ধার অভিযোগ, পুলিশ তাঁকে ডায়েরি নম্বর বা অন্য নথি দিতে চায়নি। পরে কয়েক বার ফাঁড়িতে গিয়েছিলেন তিনি। পুলিশ তাঁকে জানায়, ব্যাঙ্ক থেকে সিসি ক্যামেরার ফুটেজ পায়নি তারা। অন্য দিকে ব্যাঙ্ক কর্তৃপক্ষ জানিয়েছেন, তাঁরা পুলিশকে ফুটেজ দিয়েছে।

Advertisement

গত সপ্তাহে রেজিস্ট্রি করে একটি অভিযোগপত্র মিতালিদেবী দমদম থানায় পাঠিয়েছেন। পুলিশ জানিয়েছে, অভিযোগ খতিয়ে ব্যবস্থা নেবে।

Advertisement