Advertisement
২৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৪

উড়ান শেষে ব্যাগ উধাও

বিমানবন্দরে যাত্রীর ব্যাগ থেকে গেলে বা ওজনের কারণে ব্যাগ বিমানে তুলতে না পারলে ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে তা যাত্রীর কাছে পৌঁছে দেওয়া হয়। শর্মিলাদেবীর ক্ষেত্রে এ পর্যন্ত ব্যাগ খুঁজে পাওয়া যায়নি বলেই ভিস্তারার দাবি।

—ফাইল চিত্র।

—ফাইল চিত্র।

নিজস্ব সংবাদদাতা
শেষ আপডেট: ০১ নভেম্বর ২০১৮ ০২:৩৩
Share: Save:

বিমানযাত্রা শেষ করে কলকাতায় নেমেছিলেন এক মহিলা যাত্রী। কিন্তু বিমানবন্দরে দীর্ঘক্ষণ অপেক্ষা করার পরেও ফেরত পাননি জিনিসপত্র বোঝাই ব্যাগ। সাত দিন ধরে অপেক্ষায় থেকে শেষ পর্যন্ত ক্রেতা সুরক্ষা আদালতে বিমানসংস্থার বিরুদ্ধে মামলা করার মনস্থ করেছেন ওই মহিলা।

উল্টোডাঙার বাসিন্দা শর্মিলা দাস গত ২৩ অক্টোবর দিল্লি থেকে ভিস্তারার বিমানে কলকাতায় আসেন। সঙ্গে তাঁর ৮২ বছরের বৃদ্ধা মা নীলিমা পাল। শর্মিলাদেবীর অভিযোগ, ‘‘রাত ১০টা ২০ মিনিটে কলকাতায় নামার পরে সওয়া ১১টা পর্যন্ত মাকে নিয়ে অপেক্ষা করেছি। উপহার-সহ অনেক জিনিস ব্যাগের ছিল। ভিস্তারার সঙ্গে যোগাযোগ করে কোনও লাভ হয়নি।’’ সল্টলেকের এক ইংরেজি মাধ্যম স্কুলের প্রাক্তন ভাইস প্রিন্সিপাল শর্মিলাদেবী।

বিমানবন্দরে যাত্রীর ব্যাগ থেকে গেলে বা ওজনের কারণে ব্যাগ বিমানে তুলতে না পারলে ৪৮ ঘণ্টার মধ্যে তা যাত্রীর কাছে পৌঁছে দেওয়া হয়। শর্মিলাদেবীর ক্ষেত্রে এ পর্যন্ত ব্যাগ খুঁজে পাওয়া যায়নি বলেই ভিস্তারার দাবি। ব্যাগের খোঁজে দিল্লি ও কলকাতা বিমানবন্দরের সিসি ক্যামেরা ফুটেজ খতিয়ে দেখা হচ্ছে। ব্যাগটি দিল্লি থেকে উঠেছিল কি না, তা-ও দেখা হচ্ছে।

পুলিশের কাছে ইতিমধ্যেই অভিযোগ করেছেন শর্মিলাদেবী। ভিস্তারা কর্তৃপক্ষ জানিয়েছেন, তাঁরা শর্মিলাদেবীর সঙ্গে যোগাযোগ রাখছেন। শেষ পর্যন্ত ব্যাগ না পেলে কিলোগ্রাম প্রতি ৫০০ টাকা হিসেবে ক্ষতিপূরণ দেওয়া হবে। তবে শর্মিলাদেবীর স্পষ্ট বক্তব্য, ব্যাগ না পেলে তিনি ক্রেতা সুরক্ষা দফতরে মামলা করবেনই। কারণ ব্যাগে থাকা জিনিসপত্রের দাম ক্ষতিপূরণের অঙ্কের চেয়ে অনেক বেশি।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement

Share this article

CLOSE