Advertisement
২৬ নভেম্বর ২০২২
belur math

বাসে দক্ষিণ ভারত থেকে বেলুড়ে হাজির দর্শনার্থীরা

লকডাউনের জেরে ২০২০-র ২৫ মার্চ থেকে বেলুড় মঠে সাধারণের প্রবেশ বন্ধ ছিল। ৮২ দিন পরে, ১৫ জুন করোনা-বিধি মেনে খোলা হয়েছিল মঠ।

সমাগম: সাধারণের জন্য বুধবার থেকে খুলে গেল বেলুড় মঠ। ছবি: দীপঙ্কর মজুমদার

সমাগম: সাধারণের জন্য বুধবার থেকে খুলে গেল বেলুড় মঠ। ছবি: দীপঙ্কর মজুমদার

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা শেষ আপডেট: ১১ ফেব্রুয়ারি ২০২১ ০৫:১১
Share: Save:

মঠ খোলার আগাম ঘোষণা ছিল। তাই দক্ষিণ ভারত থেকে বাস ভাড়া করে বুধবার সকালেই বেলুড় মঠে হাজির হয়েছিলেন বেশ কিছু দর্শনার্থী। তাঁদের মতো এ দিন কলকাতা ও আশপাশের জেলা থেকেও ভক্তেরা এলেন মঠ দর্শনে। তবে সরস্বতী পুজো এবং শ্রীরামকৃষ্ণের জন্মতিথি ও সাধারণ উৎসবের দিন ফের মঠে প্রবেশ বন্ধ থাকবে।

Advertisement

লকডাউনের জেরে ২০২০-র ২৫ মার্চ থেকে বেলুড় মঠে সাধারণের প্রবেশ বন্ধ ছিল। ৮২ দিন পরে, ১৫ জুন করোনা-বিধি মেনে খোলা হয়েছিল মঠ। কিন্তু করোনা পরিস্থিতি পর্যালোচনা করে ২ অগস্ট থেকে ফের মঠে সাধারণের প্রবেশ বন্ধ হয়। সম্প্রতি অছি পরিষদের বৈঠকে সিদ্ধান্ত হয়, ১০ ফেব্রুয়ারি, বুধবার থেকে পুনরায় ভক্ত ও দর্শনার্থীদের জন্য মঠের মূল প্রবেশদ্বার খুলে দেওয়া হবে। প্রতিদিন সকাল সাড়ে ৮টা থেকে ১১টা এবং দুপুর সাড়ে তিনটে থেকে বিকেল সওয়া পাঁচটা পর্যন্ত মঠে প্রবেশ ও দর্শনের সুযোগ পাবেন সাধারণেরা।

সেই মতো এ দিন সকাল ৮টার আগেই হায়দরাবাদ থেকে বাসে করে সেখানকার বাসিন্দা একদল দর্শনার্থী হাজির হন বেলুড়ে। অপেক্ষা করতে থাকেন মূল দরজা খোলার। ওই দলের সদস্য সাবু টি বলেন, ‘‘গত বছরই বেলুড় মঠ ও দক্ষিণেশ্বর ঘুরতে আসার পরিকল্পনা ছিল। কিন্তু করোনার জেরে হয়ে ওঠেনি। সম্প্রতি মঠ খোলার খবর জানতে পেরে বাস ভাড়া করে চলে এসেছি।’’ সূত্রের খবর, এ দিন সকাল ও বিকেল মিলিয়ে প্রায় হাজার দুয়েক ভক্ত ও দর্শনার্থী এসেছিলেন।

মঠে ঢোকার মুখেই সকলের শরীরের তাপমাত্রা পরীক্ষা, হাত জীবাণুমুক্ত করা হচ্ছে। মাস্ক পরা বাধ্যতামূলক। দূরত্ব-বিধি মেনে লাইন দিয়ে প্রবেশ করতে হচ্ছে রামকৃষ্ণদেবের মন্দিরে। তবে সেখানে বসে ধ্যান করা এবং সন্ধ্যারতি দেখার সুযোগ নেই। একই ভাবে স্বামী ব্রহ্মানন্দের মন্দির, মা সারদাদেবীর মন্দির, স্বামী বিবেকানন্দের সমাধিস্থল দর্শন করতে হচ্ছে দর্শনার্থীদের। বন্ধ রয়েছে প্রেসিডেন্ট স্বামী স্মরণানন্দের প্রণাম, দুপুরে প্রসাদ খাওয়া এবং সংগ্রহশালা দর্শন।

Advertisement

রামকৃষ্ণ মঠ ও মিশনের সাধারণ সম্পাদক স্বামী সুবীরানন্দ জানান, আগামী ১৬ ফেব্রুয়ারি সরস্বতী পুজো, ১৫ মার্চ শ্রীরামকৃষ্ণের জন্মতিথি এবং সেই উপলক্ষে ২১ মার্চ সাধারণ উৎসবের দিন মঠে প্রবেশ বন্ধ থাকবে। তিনি বলেন, ‘‘ওই দিনগুলিতে অনেক বেশি মানুষ আসেন। সেই ভিড় নিয়ন্ত্রণ করতেই প্রবেশ বন্ধ রাখতে হচ্ছে। এর জন্য ভক্ত ও দর্শনার্থীদের কাছে মার্জনা চাইছি। আশা করছি, ধীরে ধীরে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হবে।’’

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.