Advertisement
২৬ সেপ্টেম্বর ২০২৩

তৃণমূলের প্রার্থী-কলহ দক্ষিণেও

পুরভোটে প্রার্থী করা নিয়ে তৃণমূলের কোন্দল ছড়াল দক্ষিণেও। সেখানে ‘কলহ’ দলেরই প্রাক্তন কাউন্সিলর বনাম বর্তমান প্রার্থীর। যিনি বিক্ষুব্ধ, তিনি আবার স্থানীয় ব্লক তৃণমূল কংগ্রসের সভাপতিও। ৫ বছর আগে ওই ওয়ার্ড মহিলাদের জন্য সংরক্ষিত হওয়ায় ২০০০ সাল থেকে পর পর দু’বার জেতা কাউন্সিলর নির্মলকান্তি দাস মনোনয়ন পাননি। প্রার্থী হয়েছিলেন দলেরই সদস্য মিতালি বন্দ্যোপাধ্যায় এবং জয়ীও হন তিনি।

নিজস্ব সংবাদদাতা
শেষ আপডেট: ২০ মার্চ ২০১৫ ০২:৩৪
Share: Save:

পুরভোটে প্রার্থী করা নিয়ে তৃণমূলের কোন্দল ছড়াল দক্ষিণেও। সেখানে ‘কলহ’ দলেরই প্রাক্তন কাউন্সিলর বনাম বর্তমান প্রার্থীর। যিনি বিক্ষুব্ধ, তিনি আবার স্থানীয় ব্লক তৃণমূল কংগ্রসের সভাপতিও। ৫ বছর আগে ওই ওয়ার্ড মহিলাদের জন্য সংরক্ষিত হওয়ায় ২০০০ সাল থেকে পর পর দু’বার জেতা কাউন্সিলর নির্মলকান্তি দাস মনোনয়ন পাননি। প্রার্থী হয়েছিলেন দলেরই সদস্য মিতালি বন্দ্যোপাধ্যায় এবং জয়ীও হন তিনি।

তৃণমূল সূত্রে খবর, এ বার ওই ওয়ার্ডে সংরক্ষণ উঠে যাওয়ায় ফের প্রার্থী হতে চান নির্মলবাবু। কিন্তু তৃণমূল নেতৃত্ব সেখানে প্রার্থী করেছে ৯৬ নম্বর ওয়ার্ডের বর্তমান কাউন্সিলর রেখা দে-কে। আর তাতেই বেজায় চটে ‘বিদ্রোহ’ শুরু করেছেন প্রবীণ তৃণমূল নেতা নির্মলবাবু। তাঁর বক্তব্য, “গত বার মহিলা সংরক্ষিত হওয়ায় প্রার্থী করা হয়নি। মেনে নিয়েছি। এ বার তো এই ওয়ার্ড সংরক্ষণের বাইরে।” তা সত্ত্বেও তাঁকে প্রার্থী না করায় তিনি দলীয় প্রার্থীর বিরুদ্ধেই লড়াই করবেন বলে জানান। এমনকী বুধবারই নির্দল হিসেবে মনোনয়ন পত্র জমা দিয়েছেন বলে জানান তিনি। এলাকায় দেওয়ালে, ব্যানারে, পোস্টারে লিখতেও শুরু করেছেন ‘আপনাদের সেবায় আবার ৯৯ নম্বর ওয়ার্ডের রূপকার কাজের এবং কাছের মানুষ নির্মলকান্তি দাস।”

এ সব দেখেশুনে রীতিমতো ক্ষিপ্ত ওয়ার্ডের বর্তমান কাউন্সিলর মিতালিদেবী। তিনি বলেন, “উনি স্বার্থান্বেষী, লোভী। তাই দলীয় প্রার্থীর বিরুদ্ধে প্রচার চালাচ্ছেন।” তবে দলীয় প্রার্থী রেখা দে অনেক ভোটে জিতবেন বলে দাবি মিতালিদেবীর।

অন্য দিকে নির্মলবাবুর বক্তব্য, “দলে সততার কোনও মূল্য নেই। সত্‌ বলেই আমাকে বাদ দেওয়া হল।” তাঁর অভিযোগ, “বর্তমান কাউন্সিলর এখানে প্রোমোটার-রাজ কায়েম করেছেন। লুঠপাট চলছে ওয়ার্ডে। এ সব বন্ধ করতে চাই বলেই প্রার্থী হয়েছি।” রাজ্যের মন্ত্রী এবং ওই এলাকার বিধায়ক অরূপ বিশ্বাস বলেন, “ওটা নিয়ে আদৌ ভাবছি না। সব ঠিক হয়ে যাবে।”

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement

Share this article

CLOSE