×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

২২ জুন ২০২১ ই-পেপার

গাড়িতে তৃণমূল কর্মীর দেহ, খুন না আত্মহত্যা তা নিয়ে সংশয়ে পুলিশ

নিজস্ব সংবাদদাতা
১৬ মার্চ ২০১৬ ২১:০৪

গাড়ির ভিতর থেকে মিলল তৃণমূল কর্মীর গুলিবিদ্ধ মৃতদেহ।সকাল হতে না হতেই উত্তেজনা ছড়ালো উত্তর কলকাতার মুরারীপুকুর অঞ্চলে। ভিতর থেকে বন্ধ ছিল গাড়ির দরজা। ভিতরে মিলল একটি ওয়ানশাটার রিভলভারও। কানাই সাউ নামে ২১ বছর বয়সী ওই তৃণমূল কর্মী আত্মহত্যা করেছেন, নাকি তাঁকে খুন করা হয়েছে নিঃসন্দেহ নয় পুলিশ। খুনের ঘটনা হলে তা রাজনৈতিক কারণে না অন্য কিছু এর পিছনে আছে তাও খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, কানাইবাবু মঙ্গলবার রাত সাড়ে ন’টা নাগাদ বাড়ির কাছাকাছি তৃণমূলের হয়ে একটি দেওয়াল লিখছিলেন। দেওয়াল লেখার কাজ শে‌ষ করে তিনি স্থানীয় ক্লাবে শুতে যান। সকালবেলাতেও তিনি বাড়ি না ফেরায়, বাড়ির লোকজন খোঁজাখুঁজি শুরু করেন।

বুধবার সকাল দশটা নাগাদ একটি মালবাহী গাড়ির ভিতরে কানাইবাবুর গুলিবিদ্ধ মৃতদেহের খোঁজ মেলে।পুলিশ জানিয়েছে, মৃত ব্যাক্তির বুকের বাঁদিকে গুলির আঘাত রয়েছে। যখন মৃতদেহটি পাওয়া যায়, তখন গাড়ির কাঁচ পুরোপুরি বন্ধ ছিল। দরজাও ছিল ভিতর থেকে বন্ধ। তল্লাশি চালিয়ে গাড়ির ভিতর থেকে একটি রিভলবার এবং একটি বিয়ারের বোতল পাওয়া গিয়েছে। সেই কারণে আত্মহত্যার তত্ত্বও উড়িয়ে দিচ্ছে না পুলিশ। মৃতের দাদার অবশ্য অভিযোগ, তাঁর ভাইকে খুন করা হয়েছে। স্থানীয় বিধায়ক সাধন পাণ্ডে ঘটনাস্থলে যান। বলেন, পুলিশ অবশ্যই দোষীদের খুঁজে বের করবে। কানাইবাবুর মৃতদেহ ময়নাতদন্তের জন্য হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

Advertisement
Advertisement