Advertisement
২৯ ফেব্রুয়ারি ২০২৪
subhendu adhikari

Shuvendu Adhikari: বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারীর বিরুদ্ধে ভবানীপুর থানায় অভিযোগ টিএমসিপির

মঙ্গলবার ভবানীপুর থানায় দক্ষিণ কলকাতা জেলা তৃণমূল ছাত্র পরিষদ ও তাদের আশুতোষ কলেজের শাখা এই অভিযোগ দায়ের করেছে।

শুভেন্দু অধিকারী।

শুভেন্দু অধিকারী। ফাইল চিত্র ।

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা শেষ আপডেট: ১৫ ফেব্রুয়ারি ২০২২ ১৮:১৭
Share: Save:

রাজ্যের বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারীর বিরুদ্ধে ভবানীপুর থানায় অভিযোগ দায়ের করল দক্ষিণ কলকাতার তৃণমূল ছাত্র পরিষদ (টিএমসিপি)। মঙ্গলবার ভবানীপুর থানায় দক্ষিণ কলকাতা জেলা তৃণমূল ছাত্র পরিষদ ও তাদের আশুতোষ কলেজের শাখা এই অভিযোগ দায়ের করেছে। অভিযোগপত্রে লেখা হয়েছে, ১৪ ফেব্রুয়ারি বেলা দুটোয় বিরোধী দলনেতা আশুতোষ কলেজ ক্যাম্পাসে আসেন। সেখানে তিনি এবং তাঁর দেহরক্ষীরা কলেজের ছাত্রছাত্রীদের হুমকি দিয়েছেন বলে অভিযোগ করা হয়েছে। শুধু তাই নয়, কলেজ সংলগ্ন এলাকায় তিনি গোলমাল পাকানোর চেষ্টা করেছেন বলেও অভিযোগ। তাঁর উস্কানিতেই গোলমালের ঘটনা ঘটে, সেখানেই কয়েকজন ছাত্রছাত্রী আহত হয়েছেন বলেও ওই অভিযোগপত্রে দাবি করা হয়েছে।

সোমবার পুলওয়ামার ঘটনার বর্ষপূর্তি উপলক্ষে আশুতোষ কলেজের কাছে শ্যামাপ্রসাদ অনুশীলন কেন্দ্র পরিচালন সমিতির এক রক্তদান শিবিরে যান শুভেন্দু। সেখানেই তৃণমূল ছাত্র পরিষদের সদস্যেরা তাঁকে ঘিরে বিক্ষোভ দেখাতে যান। অভিযোগ, বিরোধী দলনেতার বিরুদ্ধে স্লোগান দিলে ছাত্রদের দিকে তেড়ে এগিয়ে যান তিনি। পাল্টা তৃণমূলের ছাত্র পরিষদের সদস্যেরা তাঁকে গালিগালাজ করেন বলেও অভিযোগ করে বিজেপি। পুলিশ প্রশাসন হস্তক্ষেপ করলেও, পরিস্থিতি উত্তপ্ত হয়ে ওঠে। পরে শুভেন্দু এলাকা ছেড়ে চলে যান।

এই ঘটনার জেরে ভবানীপুর থানায় অভিযোগ দায়ের করা হয়েছে। তৃণমূল ছাত্র পরিষদের সভাপতি তৃণাঙ্কুর ভট্টাচার্য বলেন, ‘‘বিরোধী দলনেতা ছাত্রছাত্রী এবং পুলিশ-প্রশাসনের সঙ্গে যে ব্যবহার করেছেন তা মেনে নেওয়া যায় না। আমরা তাঁর সেই কাজের বিরুদ্ধে পুলিশের কাছে অভিযোগ জানিয়েছি। যে ভাবে তিনি ছাত্রছাত্রীদের বিরুদ্ধে বিদ্বেষ ও বিভেদ সমাজে ছড়িয়ে দিতে চাইছেন, তার বিরুদ্ধে আমরা সামাজিক বয়কটের ডাক দিচ্ছি।’’

এ বিষয়ে শুভেন্দুর সঙ্গে যোগাযোগ করা হয়। তবে তিনি এ ব্যাপারে কোনও মন্তব্য করতে চাননি।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement

Share this article

CLOSE