Advertisement
০২ অক্টোবর ২০২২
Madan Mitra

Madan Mitra: ত্রিপুরার পুনরাবৃত্তি কলকাতায়? বিজেপি-কে তৃতীয় সূত্র মনে করিয়ে দিলেন মদন

বিজেপি-র এক নেতার কথায়, ‘‘এখানে তো এত দিন হিংসার রাজনীতি করে আসছে শাসকদল। আবার করতে চাইছে!’’

তৃণমূল নেতা মদন মিত্র।

তৃণমূল নেতা মদন মিত্র। ফাইল চিত্র।

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা শেষ আপডেট: ২৬ নভেম্বর ২০২১ ১৯:৫০
Share: Save:

ত্রিপুরায় বিজেপি শান্তিপূর্ণ ভাবে ভোট করতে দেবে এমনটা আশাই করেনি তৃণমূল। তবে সব ক্রিয়ার সমান ও বিপরীত প্রতিক্রিয়া আছে। এটা মনে রাখতে হবে। আগরতলা পুরভোট নিয়ে এমনই মন্তব্য করলেন তৃণমূল বিধায়ক মদন মিত্র। শুক্রবার ডানকুনিতে একটি অনুষ্ঠানে গিয়ে নাম না করে বিজেপি-র উদ্দেশে তিনি বলেন, ‘‘ওরা বুথে এজেন্ট বসতে দেবে, ভোট করতে দেবে — এ রকম তৃণমূল ভাবেওনি। কিন্তু মনে রাখতে হবে সব ক্রিয়ার সমান ও বিপরীত প্রতিক্রিয়া থাকে। সামনেই কলকাতা পুরসভার ভোট রয়েছে তাই অন্য কিছু বলব না।’’ এখন মদনের ওই মন্তব্য নিয়েই বিরোধীরা প্রশ্ন তুলছেন, তবে কি কলকাতা পুরভোটে প্রতিশোধ নিতে চাইছে তৃণমূল?

আগরতলা পুরভোটে সন্ত্রাসের অভিযোগ তুলে সরব হয়েছিল তৃণমূল ও সিপিএম। এ নিয়ে সুপ্রিম কোর্টের দ্বারস্থও হয় তারা। তৃণমূলের দাবি করেছিল, আগরতলা পুরভোটে বুথে এজেন্ট দেওয়া তো দূরস্থান, তাদের কর্মী ও প্রার্থীদের ভোটই দিতে দেয়নি বিজেপি। তবে সেই রাজ্যের গেরুয়া শিবিরের নেতা দাবি করছেন, আগরতলার ১১২টি পুরসভাতেই তারা জিতবে। যা নিয়েই শুক্রবার মদনকে প্রশ্ন করেন সাংবাদিকরা। নিজস্ব ভাব ভঙ্গিতে উত্তর দেন কামারহাটির বিধায়ক মদন। তবে তাঁর কথায় 'বিতর্ক' দেখছেন অনেকে। বিশেষ করে বিজেপি-র প্রতি তাঁর নিউটনের তৃতীয় সূত্রের উক্তি সেই কথাই বলছে। এ ছাড়া রাজ্যের প্রাক্তন মন্ত্রী আরও বলেন, ‘‘ওরা ওখানে যেমন করেছে, এখানেও তেমন একই ঘটনা হতে পারে।’’

মদনের উক্তি শুনে সিপিএমের এক নেতা বলেন, ‘‘সন্ত্রাস ও হিংসার রাজনীতি করছে বিজেপি এবং তৃণমূল। তাতে কে, কাকে টেক্কা দেবে তা নিয়েই প্রতিযোগিতা চলছে। হিংসার বিরুদ্ধে ত্রিপুরাতেও সরব হয়েছি, এখানেও তেমন কিছু দেখলে প্রতিবাদ করব। আমরা শুধু শান্তিপূর্ণ ভোট চাই।’’ আবার রাজ্য বিজেপি-র এক নেতার কথায়, ‘‘এখানে তো এত দিন হিংসার রাজনীতি করে আসছে শাসকদল। আবার করতে চাইছে! নতুন কিছু নয়। আর তা ঢাকা দিতে ত্রিপুরাকে হাতিয়ার করছে।’’

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.