Advertisement
২৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৪
Mamata Banerjee

কুকুরছানাকে কোলে নিয়ে ট্রেডমিলে হাঁটছেন মমতা, মুখ্যমন্ত্রীর সেই ভিডিয়োয় অবাক বিদেশি সারমেয়টিও

স্বাস্থ্য নিয়ে বরাবরই সকলকে সচেতনতার বার্তা দেন মুখ্যমন্ত্রী। বিভিন্ন সময় নিজেই জানিয়েছেন তিনি নিয়মিত শরীরচর্চা করেন। তাঁর হাতের ‘ফিটনেস ব্যান্ড’ নিয়েও আলোচনা চলেছিল।

photo of Mamata Banerjee

স্বাস্থ্য নিয়ে বরাবরই সচেতন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। ছবি ইনস্টাগ্রাম।

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা শেষ আপডেট: ০৭ মে ২০২৩ ১৫:৫৫
Share: Save:

তিনি যখন হাঁটেন, তাঁর সঙ্গে কেউই পেরে ওঠেন না। সমতল হোক কিংবা পাহাড়ি পথ— সর্বত্রই দ্রুত হাঁটেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। শরীর-স্বাস্থ্য নিয়ে তিনি বরাবরই সচেতন। সে কথা অনেক বারই বলেছেন। তিনি যে নিয়মিত ট্রেডমিলে হাঁটেন, সে কথাও বহু বার নিজ মুখেই জানিয়েছেন। রবিবার মুখ্যমন্ত্রীর শরীরচর্চার একটি ভিডিয়ো প্রকাশ্যে এল। যেখানে দেখা গেল, ট্রেডমিলে হাঁটছেন মমতা। ভিডিয়োটি ইনস্টাগ্রামে নিজেই পোস্ট করেছেন মুখ্যমন্ত্রী।

কুকুরছানাকে দু’হাতে ধরে ট্রেডমিলে হাঁটছেন মমতা। তাঁর পরনে সেই চেনা শাড়ি। পোষ্যটি মুখ্যমন্ত্রীর দিকে অপলক দৃষ্টিতে তাকিয়ে রয়েছে। এমনই একটি ‘রিল’ (ইনস্টাগ্রামে ছোট ভিডিয়ো) রবিবার পোস্ট করেছেন মুখ্যমন্ত্রী। সাধারণত শাড়ি পরে সচরাচর কাউকে ট্রেডমিলে হাঁটতে দেখা যায় না। এ ক্ষেত্রেও আলাদা নজর কেড়েছেন মমতা।

ভিডিয়োটির ক্যাপশনে তিনি লিখেছেন, ‘‘কোনও কোনও দিন আপনার বাড়তি অনুপ্রেরণার দরকার হয়।’’ শরীর ‘ফিট’ রাখতে ট্রেডমিলে হাঁটা খুবই উপকারী। তবে কত ক্ষণ হাঁটা উচিত, তা বিশেষজ্ঞদের পরামর্শ মেনেই করা উচিত। ট্রেডমিলে হাঁটার সময় অনেকেই সাধারণত গান শোনেন। রবিবার মুখ্যমন্ত্রী যে ভিডিয়োটি পোস্ট করলেন, তাতে দেখা গেল পোষ্যের সঙ্গে একান্তে সময় কাটাতে কাটাতেই হাঁটছেন তিনি। পোষ্যকে সঙ্গে নিয়ে ট্রেডমিলে বেশ খোশমেজাজেই যে সময় কাটিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী, তা ভিডিয়োটি দেখলেই টের পাওয়া যাবে।

স্বাস্থ্য নিয়ে বরাবরই সকলকে সচেতনতার বার্তা দেন মুখ্যমন্ত্রী। বিভিন্ন সময়ই রাজনৈতিক কর্মসূচিতে পদযাত্রা করতে দেখা গিয়েছে মুখ্যমন্ত্রীকে। তাঁর হাতে ‘ফিটনেস ব্যান্ড’ নিয়েও আলোচনা চলেছিল। অতীতে মমতা জানিয়েছিলেন, তিনি রোজ দীর্ঘ সময় ট্রেডমিলে হাঁটেন। এমনকি, ট্রেডমিলে হাঁটতে হাঁটতে বিভিন্ন কাজও সেরে নেন। ২০২১ সালে এক সাক্ষাৎকারে মুখ্যমন্ত্রী জানিয়েছিলেন যে, সে বছরের বাজেট তিনি ট্রেডমিলে হাঁটতে হাঁটতেই বানিয়েছিলেন।

অনেক সময়ই দলের নেতা-কর্মীদেরও শরীরচর্চার পরামর্শ দিতে দেখা গিয়েছে মমতাকে। পুরুলিয়া জেলার প্রশাসনিক বৈঠকে ঝালদা পুরসভার চেয়ারম্যানের ওজন জানতে চেয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী। চেয়ারম্যানের ওজন ১০০ কেজির উপর শুনে তাঁকে শরীরচর্চার পরামর্শ দিয়েছিলেন তিনি। প্রাণায়ম করারও পরামর্শ দিয়েছিলেন মমতা। মালদহে এক বার প্রশাসনিক বৈঠকে সেই সময় পুরাতন মালদহের আইসির ভুঁড়ি দেখে ধমক দিতেও দেখা গিয়েছিল মুখ্যমন্ত্রীকে। কাজের ফাঁকে তাঁকে শরীরচর্চা করার পরামর্শ দিয়েছিলেন তিনি। অতীতে মমতা বলেছিলেন, ‘‘সুস্থতাই আপনার বয়স। যতক্ষণ সুস্থ থাকবেন, হাঁটবেন।’’

ফেসবুক, টুইটারের পাশাপাশি ইনস্টাগ্রামেও জনপ্রিয় মমতা। ইনস্টাগ্রামে তাঁর অনুরাগীর সংখ্যা ২ লক্ষেরও বেশি। সেখানেই এ বার এক অন্য মেজাজে পাওয়া গেল মুখ্যমন্ত্রীকে।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement

Share this article

CLOSE