Advertisement
০৫ ফেব্রুয়ারি ২০২৩
Manab Mukhopadhyay

দীর্ঘ অসুস্থতার পর প্রয়াত বাম আমলের মন্ত্রী মানব মুখোপাধ্যায়, শোকবার্তা মুখ্যমন্ত্রীর

মানবের মস্তিষ্কে রক্তক্ষরণ হয়েছিল দু’বার। প্রথম বার হওয়ার পর সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরে গিয়েছিলেন। সম্প্রতি ফের মস্তিষ্কে রক্তক্ষরণ শুরু হয়। ভর্তি করানো হয় হাসপাতালে।

সিপিএমের প্রবীণ নেতা মানব মুখোপাধ্যায় প্রয়াত।

সিপিএমের প্রবীণ নেতা মানব মুখোপাধ্যায় প্রয়াত। ফাইল চিত্র ।

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা শেষ আপডেট: ২৯ নভেম্বর ২০২২ ১৩:২৫
Share: Save:

প্রয়াত হলেন প্রাক্তন মন্ত্রী মানব মুখোপাধ্যায়। বয়স হয়েছিল ৬৭ বছর। মঙ্গলবার সকাল ১১টা ১০মিনিট নাগাদ হৃদ্‌রোগে আক্রান্ত হন বাম নেতা। ১১টা ৪৫ মিনিট নাগাদ মধ্য কলকাতার এক হাসপাতালে নিয়ে যাওয়ার পথেই প্রয়াত হন মানব। শোকপ্রকাশ করেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বিবৃতিতে লিখেছেন, ‘‘রাজ্যের প্রাক্তন মন্ত্রী মানব মুখোপাধ্যায়ের প্রয়াণে আমি গভীর শোক প্রকাশ করছি। তাঁর মৃত্যু রাজনৈতিক জগতে বড় ক্ষতি। আমি মানব মুখোপাধ্যায়ের পরিবারবর্গ ও তাঁর অনুরাগীদের আমার আন্তরিক সমবেদনা জানাচ্ছি।’’

Advertisement

সিপিএম সূত্রে খবর, মঙ্গলবার চক্ষুদানের পর পিস ওয়ার্ল্ডে মানবের মরদেহ রাখা হবে। বুধবার, ৩০ নভেম্বর সকাল ১০ টায় সেখান থেকে বেরিয়ে বেলেঘাটা পূর্বতন জোন অফিসে নিয়ে যাওয়া হবে দেহ। সকাল ১১টায় সিপিএমের রাজ্য দফতর, ১১টা ৩০ মিনিটে জেলা দফতর নিয়ে যাওয়া হবে। বুধবার দুপুর ১২টা ৩০ মিনিটে মিছিল করে কলকাতা মেডিক্যল কলেজে গিয়ে দেহদান করা হবে।

মানবের মস্তিষ্কে রক্তক্ষরণ হয়েছিল দু’বার। প্রথম বার হওয়ার পর সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরে গিয়েছিলেন। তবে স্বাভাবিক জীবনে ফিরতে পারেননি। সম্প্রতি ফের মস্তিষ্কে রক্তক্ষরণ শুরু হয় প্রাক্তন মন্ত্রীর। গত অগস্ট মাসে রাজ্যের প্রাক্তন মন্ত্রী ও সিপিএম নেতা মানবের শারীরিক অবস্থা সঙ্কটজনক হয়েছিল। তখন তাঁকে বাইপাসের ধারে একটি বেসরকারি হাসপাতালে ভর্তি করানো হয়েছিল। সে সময় ভেন্টিলেশনে রাখা হয়েছিল তাঁকে। কয়েক বছর আগে এক বার সেরিব্রাল অ্যাটাক হয়েছিল মানবের। ইদানীং অবশ্য কলকাতায় দলের কর্মসূচিতে দেখা যেত তাঁকে।

সুবক্তা হিসাবে দলে পরিচিত ছিলেন মানব। ১৯৯১ সালে বেলেঘাটা বিধানসভা কেন্দ্র থেকে প্রথম বার টিকিট পেয়েছিলেন। সে বারই বিধায়ক হয়েছিলেন তিনি। ২০১১ সাল পর্যন্ত বেলেঘাটার বিধায়ক ছিলেন তিনি। ওই বছর বিধানসভা নির্বাচনে তাঁকে আর টিকিট দেয়নি দল। বুদ্ধদেব ভট্টাচার্যের মন্ত্রিসভায় দু’বার মন্ত্রী হয়েছিলেন তিনি। প্রথম বার তথ্যপ্রযুক্তি মন্ত্রী হয়েছিলেন। পরে পর্যটন মন্ত্রী হয়েছিলেন। মন্ত্রী থাকার সময় নিজের চশমার বিল নিয়ে বিতর্কে জড়িয়েছিলেন সদ্যপ্রয়াত এই নেতা।

Advertisement
(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.