Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

১৩ অগস্ট ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

ভোটে যুযুধান শ্বশুর ও জামাই

গড়বেতা ১ ব্লকের পঞ্চায়েত সমিতির ১০ নম্বর আসনে এ বার শ্বশুর বনাম জামাইয়ের লড়াই। তৃণমূলের প্রার্থী দুলাল ভট্টাচার্য, বিপক্ষে সিপিএমের প্রার্থ

রূপশঙ্কর ভট্টাচার্য
গড়বেতা ০৯ মে ২০১৮ ১২:৫৮
Save
Something isn't right! Please refresh.
দেবব্রত সিংহ ও দুলাল ভট্টাচার্য। নিজস্ব চিত্র

দেবব্রত সিংহ ও দুলাল ভট্টাচার্য। নিজস্ব চিত্র

Popup Close

মনোনয়ন জমা দিয়ে শ্বশুর-জামাই পরস্পরকে শুভেচ্ছা জানিয়েছিলেন। সৌজন্য বজায় থাকলেও প্রচারে কেউ কাউকে ছেড়ে কথা বলছেন না। পোড়খাওয়া রাজনীতিক শ্বশুর বলছেন, ‘‘ওর (জামাই) জামানত বাজেয়াপ্ত হবে দেখুন।’’ যা শুনে জামাইয়ের প্রতিক্রিয়া, ‘‘মানুষই ঠিক করবে কার জামানত থাকবে, আর কার বাজেয়াপ্ত হবে।’’

গড়বেতা ১ ব্লকের পঞ্চায়েত সমিতির ১০ নম্বর আসনে এ বার শ্বশুর বনাম জামাইয়ের লড়াই। তৃণমূলের প্রার্থী দুলাল ভট্টাচার্য, বিপক্ষে সিপিএমের প্রার্থী দেবব্রত সিংহ। দুলালবাবুর ভাইঝিকে বিয়ে করেছেন দেবব্রত। এই কেন্দ্রে রয়েছেন বিজেপি প্রার্থীও। তবে আকর্ষণের কেন্দ্রে শ্বশুর-জামাই।

দুলালবাবু ৪০ বছর ধরে অ-বাম রাজনীতির সঙ্গে যুক্ত। যুব কংগ্রেস থেকে জেলা ছাড়িয়ে ১০ বছর প্রদেশ কংগ্রেস কমিটির সদস্য ছিলেন। ১৯৮৩ সালের নির্বাচনে পঞ্চায়েত সমিতির আসনে কংগ্রেসের হয়ে সিপিএম প্রার্থীকে হারিয়েছিলেন। পরে ১৯৮৮ সালে একবার পঞ্চায়েত নির্বাচনে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করেছিলেন। তবে সে বার জিততে পারেননি তিনি। কংগ্রেসের অন্দরে মানস ভুঁইয়ার অনুগামী হিসাবে পরিচিত ছিলেন দুলালবাবু। কংগ্রেস ছেড়ে মানসবাবু তৃণমূলে যোগ দিলে দুলালবাবুও দল ছাড়েন। দেবব্রতবাবু উঠে এসেছেন সিপিএমের ছাত্র-যুব সংগঠন থেকে। গড়বেতা কলেজে এসএফআই পরিচালিত ছাত্র সংসদের সাধারণ সম্পাদক ছিলেন। বর্তমানে তিনি সিপিএমের গড়বেতা এরিয়া কমিটির সদস্য। তাঁর স্ত্রী অর্থাৎ তৃণমূল প্রার্থীর ভাইঝি সোনালি এ বার জেলাপরিষদের সিপিএমের প্রার্থী।

Advertisement

জামাইকে বড় ব্যবধানে হারানোর জন্য মানুষের কাছে আবেদন রাখছেন দুলালবাবু। জিতবেন? দলীয় কার্যালয়ে বসে দুলালবাবু বললেন, ‘‘জিতব তো বটেই। জামাই যে দলের হয়ে লড়ছেন, তাদের অত্যাচারের কথা গড়বেতার মানুষ ভুলে যাননি।’’ আর দেবব্রতবাবুর মন্তব্য, ‘‘উনি (দুলালবাবু) ভাল মানুষ। আমাকে বড় ছেলের মতো ভালবাসেন। উনি যে দলের প্রতিনিধিত্ব করছেন, সেই দলের প্রতি মানুষের মোহভঙ্গ হয়েছে, মানুষ পরিত্রাণ চাইছেন।’’

পারিবারিক প্রতিদ্বন্দ্বিতায় গড়বেতার ভোটের ময়দান সরগরম। তবে শ্বশুর, জামাই দু’জনেরই দাবি, ভোটের লড়াইয়ে যাই হোক না কেন, পারিবারিক সম্পর্কে তার প্রভাব পড়বে না।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)


Something isn't right! Please refresh.

Advertisement