Advertisement
২৭ জানুয়ারি ২০২৩
Haldia

কর্মবিরতি বন্দরে

অভিযোগ, আগের দিন যে চারজন শ্রমিক কর্মবিরতিতে নেতৃত্ব দিয়েছিলেন, বুধবার রাতে তাঁদের বন্দরে ঢুকতে দেওয়া হয়নি। এতেই সমস্যার সূত্রপাত। 

ফাইল চিত্র।

ফাইল চিত্র।

নিজস্ব  সংবাদদাতা
হলদিয়া শেষ আপডেট: ২৫ ডিসেম্বর ২০২০ ০৩:১৯
Share: Save:

রাতভর কর্মবিরতি। তার জেরেই বন্ধ রইল হলদিয়া বন্দরের কাজকর্ম।

Advertisement

হলদিয়া বন্দরে কয়েকশো অস্থায়ী ঠিকা শ্রমিক কাজ করেন। তাঁরা মূলত জাহাজ থেকে মাল ওঠানো-নামানোর কাজে যুক্ত। কিছুদিন আগে বেতন বৃদ্ধি-সহ একাধিক দাবিতে ওই শ্রমিকেরা কাজ বন্ধ করে দিয়েছিলেন। তারপর বন্দর কর্তৃপক্ষ এবং ঠিকদার সংস্থার মালিকপক্ষের সঙ্গে শ্রমিকদের সমস্যা নিয়ে আলোচনা প্রতিশ্রুতি দিলে কর্মবিরতি তুলে নেন শ্রমিকেরা। তাঁদের অভিযোগ, আগের দিন যে চারজন শ্রমিক কর্মবিরতিতে নেতৃত্ব দিয়েছিলেন, বুধবার রাতে তাঁদের বন্দরে ঢুকতে দেওয়া হয়নি। কর্তৃপক্ষে তরফে জানানো হয়, তাঁদের গেট পাস লক করে দেওয়া হয়েছে। এতেই সমস্যার সূত্রপাত।

ওই ঘটনার প্রতিবাদে বুধবার রাত থেকেই কর্মবিরতি শুরু করেন ঠিকা কর্মীদের একাংশ। এর ফলে হলদিয়া বন্দরের একটি জাহাজে মাল ওঠানো-নামানো কাজে আংশিক প্রভাব পড়ে। হলদিয়া বন্দরের জেনারেল ম্যানেজার (ট্রাফিক) অভয় মহাপাত্র বলেন, ‘‘বুধবার রাত থেকে কর্মবিরতির জেরে একটি জাহাজে মাল ওঠানো-নামানোর ক্ষেত্রে প্রভাব পড়েছে।’’

বৃহস্পতিবার সকালেও জারি থাকে কর্মবিরতি। শ্রমিকদের অভিযোগ, বেতন বৃদ্ধি নিয়ে বারবার শ্রমিক নেতৃত্বকে জানানো হলেও, এ ব্যাপারে তাঁরা কর্ণপাত করেননি। এ দিন সকালে ঘটনাস্থলে আসেন তৃণমূলের হলদিয়া টাউন ব্লক সহ-সভাপতি দেবপ্রসাদ মণ্ডল। সমস্যা মিটিয়ে দেওয়ার আশ্বাস দেন তিনি। তারপরেই বিক্ষোভ উঠে যায়। দেবপ্রসাদ বলেন, ‘‘কর্মীদের দাবিগুলো বিবেচনা করে অবশ্যই দেখা হবে। আশ্বাস পেয়ে শ্রমিকেরা কাজে যোগ দিয়েছেন।’’

Advertisement
(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.