Advertisement
০২ মার্চ ২০২৪

বিএসএফের তৎপরতায় ৫৪ কেজি গাঁজা এবং ৮৬৫টি ফেনসিডিলের বোতল উদ্ধার কৃষ্ণনগরে

—প্রতীকী ছবি।

আনন্দবাজার অনলাইন সংবাদদাতা
কৃষ্ণনগর শেষ আপডেট: ১০ ডিসেম্বর ২০২৩ ২৩:২৫
Share: Save:

পাচারের আগে ভারত-বাংলাদেশ সীমান্তে বড়সড় মাদক পাচারের প্রচেষ্টা ব্যর্থ করল ভারতীয় সীমান্তরক্ষী বাহিনী (বিএসএফ)। উদ্ধার রয়েছে ৫৪ কেজি গাঁজা এবং ৮৬৫ বোতল নিষিদ্ধ কাশির সিরাপ ফেনসিডিল। উদ্ধার হওয়া জিনিসের অন্তত বাজারমূল্য কয়েক লক্ষ টাকা বলে বিএসএফ সূত্রের দাবি। পাচারকারীদের খোঁজে সীমান্ত এলাকায় তল্লাশি শুরু করেছে বিএসএফ।

বিএসএফ সূত্রে খবর, বিএসএফের গোয়েন্দা বিভাগ বর্ডার ফাঁড়ি রানিনগরে মোতায়েন জওয়ানদের থেকে থেকে গাঁজা তথ্য জানতে পারে। খবর পাওয়া মাত্রই সীমান্তের জওয়ানেরা সতর্ক হয়ে যান। শনিবার গভীর রাতে তাঁরা কিছু সন্দেহজনক কার্যকলাপ লক্ষ করেন। তাঁরা দেখে, বেশ কয়েকজন হাতে বড় ব্যাগ নিয়ে ডমিনেশন লাইনের দিকে এগিয়ে যাচ্ছেন। জওয়ানেরা তাঁদের থামানোর চেষ্টা করেন এবং সতর্কও করে দেন। তা উপেক্ষা করে চোরাকারবারীরা ক্রমাগত ডমিনেশন লাইনের দিকে এগিয়ে যেতে থাকে। আবার তাঁদের সতর্ক করা হয়। এর পরেই তড়িঘড়ি করে ব্যাগ ফেলে পালিয়ে যান তাঁরা। পরে ঘটনাস্থল তল্লাশি করে আটটি প্লাস্টিকের ব্যাগ পাওয়া যায়। যার মধ্যে থেকে ৩৫ কেজি গাঁজা ও ২২০ বোতল ফেনসিডিল উদ্ধার করা হয়।

এ ছাড়া অন্যান্য ঘটনায় বর্ডার ফাঁড়ি চাবঘাটি থেকে ১৯৯টি ফেনসিডিল বোতল, বর্ডার ফাঁড়ি-রাণীনগর থেকে ২২০ ফেনসিডিল বোতল এবং হাকিমপুর ও সুভম সীমান্ত ফাঁড়ি থেকে ৪৪৬ বোতল ফেনসিডিল জব্দ করা হয়। এ ছাড়া সীমান্ত ফাঁড়ি-সুটিয়া ও সীমান্ত ফাঁড়ি-হাকিমপুর থেকে ১৯ কেজি গাঁজা বাজেয়াপ্ত করা হয়। বিএসএফের দক্ষিণবঙ্গ ফ্রন্টয়ারের ডিআইজি একে আর্য বলেন, ‘‘সীমন্তে প্রহরারত জওয়ানেরা ভিন্ন ভিন্ন আউটপোস্টে পাচারকারীদের প্রচেষ্টাকে ব্যর্থ করে ৫৪ কেজি গাঁজা ও ৮৮৫ বোতল নিষিদ্ধ কাশির বাজেয়াপ্ত করেছে।’’

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement

Share this article

CLOSE