Advertisement
০১ ডিসেম্বর ২০২২

ত্রাণ নিয়ে অভিযোগ

ত্রাণ নিয়ে দলবাজির অভিযোগ উঠল তৃণমূলের বিরুদ্ধে। অভিযোগ, নিজেদের দলের কর্মী সমর্থকদের বেছে বেছে ত্রাণ দিচ্ছে শাসক দল। তেমনই অভিযোগ বিজেপির। অভিযোগ অস্বীকার করেছে তৃণমূল। বুধবার টর্নেডো ঝড়ে ক্ষতিগ্রস্থ হয় হরিণঘাটার নগরউখড়া ১ ও ২ পঞ্চায়েতের বিস্তীর্ণ এলাকা।

নিজস্ব সংবাদদাতা
কল্যাণী শেষ আপডেট: ৩১ জুলাই ২০১৫ ০০:২০
Share: Save:

ত্রাণ নিয়ে দলবাজির অভিযোগ উঠল তৃণমূলের বিরুদ্ধে। অভিযোগ, নিজেদের দলের কর্মী সমর্থকদের বেছে বেছে ত্রাণ দিচ্ছে শাসক দল। তেমনই অভিযোগ বিজেপির। অভিযোগ অস্বীকার করেছে তৃণমূল।

Advertisement

বুধবার টর্নেডো ঝড়ে ক্ষতিগ্রস্থ হয় হরিণঘাটার নগরউখড়া ১ ও ২ পঞ্চায়েতের বিস্তীর্ণ এলাকা। ঝড়ে বাড়ির চালা উড়ে যায়। গাছ উপড়ে রাস্তায় পড়ে। ক্ষতিগ্রস্থ হয় বহুবাড়ি। সেই ঝড়ের পর ২৪ ঘণ্টা পেরিয়ে গিয়েছে। কিন্তু এখনও পর্যন্ত সব জায়গায় ত্রাণ পৌঁছয়নি বলে অভিযোগ। আবার যেটুকু বা মিলছে তা নিয়েও শুরু হয়েছে দলবাজি। অভিযোগ, কোনও কোনও জায়গায় একটি করে ত্রিপল দেওয়া হলেও তা দলের লোকজনকেই দেওয়া হচ্ছে বলে অভিযোগ।

দক্ষিণ চান্দা গ্রামের বাসিন্দা পেশায় একটি বেসরকারি সংস্থার কর্মী পরিমল দাস বলেন, ‘‘গ্রামের একটি ক্লাবের মাঠে খাওয়ার ব্যবস্থা করা হয়েছে। আমাদের নাম লিখে নিয়ে যাওয়া হয়েছে। কিন্তু আমরা এ পর্যন্ত পেয়েছি মাত্র একটা ত্রিপল। আর কিছুই জোটেনি। শুনতে পারছি, তাও নাকি অনেকে পাননি।’’

পরিমলবাবুর স্ত্রী গৃহবধূ কেয়াদেবী বলেন, ‘‘যে ত্রিপলটা দেওয়া হয়েছে সেটা আকারে খুব ছোট। ঘরের সব জায়গা ঢাকেনি। যার কারণে বৃষ্টির জল পড়ে ঘরের সব ভিজে যাচ্ছে।’’

Advertisement

কলেজ ছাত্র সন্দীপ দাস বলেন, ‘‘ঘটনার পর থেকে কাজ শুরু হলে বেশ কিছু এলাকায় এখনও বিদ্যুৎ আসেনি। সন্ধ্যার পর ওই সব এলাকা অন্ধকারে ডুবে রয়েছে।’’

বিজেপির জেলা সম্পাদক মণ্ডলীর সদস্য তারকনাথ সরকার বলেন, ‘‘প্রশাসনের লোকজন এলাকা ঘুরে গেলেও ত্রাণ বলতে মানুষ তেমন কিছুই পাননি। শুনেছি কিছু ত্রিপল দেওয়া হয়েছে। কিন্তু, বহু মানুষ সেই ত্রিপল পাননি।’’ তিনি আরও বলেন, ‘‘সেই ত্রাণ নিয়েও দলবাজি করছে শাসক দল। তৃণমূলের লোকেদের সুযোগ সুবিধা দেওয়া হচ্ছে। আমি বিষয়টি রাজ্য নেতৃত্বকে জানিয়েছি। শুক্রবার জেলা থেকে একটি প্রতিনিধি দল ওই এলাকা পরিদর্শন করতে যাবেন।’’

অভিযোগ অস্বীকার করে হরিণঘাটা ব্লক তৃণমূলের সভাপতি এবং জেলা পরিষদের প্রাণী ও মৎস বিভাগের কর্মাধ্যক্ষ চঞ্চল দেবনাথ বলেন, ‘‘আমাদের বিরুদ্ধে মিথ্যা অভিযোগ করা হচ্ছে। আমরা কোনও দল দেখছি না। সবার জন্য ত্রাণের ব্যবস্থা করা হচ্ছে।’’

তিনি আরও বলেন, ‘‘ক্ষতিগ্রস্তদের জন্য বিভিন্ন পরিকল্পনা নেওয়া হয়েছে। শুক্রবার থেকে পাঁচ দিন চাল, গম, ডাল, তেল, আলু, মুড়ি বিস্কুট দেওয়ার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। পোশাকও দেওয়া হবে।’’ ক্ষতিগ্রস্থদের মুরগির বাচ্চা, দুঃস্থদের ঘর করে দেওয়া হবে বলেও তিনি জানান।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.