Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

১৯ জানুয়ারি ২০২২ ই-পেপার

বাসের রডে ঝুলন্ত চালক

নিজস্ব সংবাদদাতা
শান্তিপুর ২৮ অগস্ট ২০১৮ ০৭:৫০
কানাই ঘোষ। নিজস্ব চিত্র

কানাই ঘোষ। নিজস্ব চিত্র

যে আসনে বসে তিনি বাস চালাতেন ঠিক তার পিছনের দিকে বাসের রডের সঙ্গে গামছা দিয়ে বাঁধা অবস্থায় তাঁর মৃতদেহটি ঝুলছিল!

খালি গা, পরনে শুধু অন্তর্বাস! জামাকাপড় পড়ে রয়েছে বাসের এক পাশে। যৌনাঙ্গ থেকে রক্তক্ষরণ হয়েছে! সোমবার সকালে চালক কানাই ঘোষকে ঘুম থেকে ডাকতে এসে এই দৃশ্য দেখে আতঙ্কে কথা বন্ধ হয়ে গিয়েছিল অন্য এক বাসকর্মী নবকুমার সাঁতরার। কোনও মতে দৌড়ে তিনি খবর দেন সবাইকে। পুলিশ এসে রানাঘাট-বাগআঁচড়া রুটের ওই বেসরকারি বাস থেকে চালকের ঝুলন্ত মৃতদেহ নামিয়ে আনে। পরিবারের দাবি, তাঁকে খুন করা হয়েছে। তবে কোনও লিখিত অভিযোগ জমা পড়েনি। দেহ ময়না-তদন্তে পাঠানো হয়েছে। পুলিশের অনুমান, এর পিছনে বিবাহ-বহির্ভূত সম্পর্কের ঘটনা থাকতে পারে।

কানাই ঘোষের বাড়ি রানাঘাটের রাজবাগানপাড়ায়। মাত্র সাত দিন হল তিনি রানাঘাট-বাগআঁচড়া রুটের বাস চালাচ্ছিলেন। সকালের শিফট-এ ডিউটি থাকলে আগের দিন সাধারণত বাড়ি ফিরতেন না, বাসেই ঘুমিয়ে পড়তেন। সোমবার সকাল সাড়ে ন’টায় তাঁর ‘ট্রিপ’ ছিল। সেই কারণে রাতে আর বাড়ি না-ফিরে তিনি বাগআঁচড়া বাসস্ট্যাণ্ডে রাখা বাসেই ঘুমিয়ে পড়েন। বাসে তিনি একাই ছিলেন। বাসকর্মীরা জানান, ঘুমনোর সময়ে তিনি পোশাক পরেই ছিলেন।

Advertisement

তা হলে শুধু অন্তর্বাস পরা অবস্থায় কেন দেহটি ঝুলছিল, কে বা কারা জামাকাপড় খুলে নিল—এমন একাধিক প্রশ্ন এখন উঠছে। যৌনাঙ্গ থেকে রক্তক্ষরণেও রহস্য দানা বেঁধেছে। পুলিশ জানিয়েছে, শরীরের আর কোথাও কোনও আঘাতের চিহ্ন নেই। সেটাও রহস্যজনক! এক পুলিশ কর্তার কথায়, ‘‘বহু বিবাহ-বহির্ভূত সম্পর্কে যৌনাঙ্গে আঘাত করে খুন করতে দেখা যায়। সেই রকম কিছু হয়েছে কি না তদন্ত করে দেখা হচ্ছে।’’

পুলিশ জানিয়েছে, ওই পরিবারের এক মহিলার সঙ্গে কানাইয়ের সম্পর্ক নিয়ে দুই পরিবারের মধ্যে ঝামেলা ছিল। যদিও কানাইয়ের স্ত্রী সীমা ঘোষের দাবি, ‘‘বাগআঁচড়ার এক মহিলার সঙ্গে স্বামীর ভাই-বোনের সম্পর্ক ছিল। মহিলার স্বামী অহেতুক সন্দেহ করতেন। আগে এক বার উনি স্বামীকে মারার চেষ্টা করেছেন। এ বার ওরাই স্বামীকে মেরে ফেলেছে।’’ কানাইবাবুর দেহ উদ্ধারের পরে সোমবার রানাঘাট থেকে শান্তিপুরের মধ্যে বাস চলাচল বন্ধ রাখা হয়।

আরও পড়ুন

Advertisement