×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

২৮ জানুয়ারি ২০২১ ই-পেপার

করোনা টিকার জন্য বৈঠক টাস্ক ফোর্সের

নিজস্ব সংবাদদাতা
বহরমপুর০১ ডিসেম্বর ২০২০ ০২:৪৫
—প্রতীকী ছবি

—প্রতীকী ছবি

কবে করোনার টিকা বাজার আসবে তা এখনও ঠিক নেই। তবে তা শীঘ্রই আসছে ধরে নিয়ে মুর্শিদাবাদ জেলা প্রশাসন করোনার টিকাকরণের প্রস্তুতি নিতে শুরু করেছে। কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রক ও রাজ্য স্বাস্থ্য দফতরের নির্দেশ মতো টিকাকরণ সম্পন্নর জন্য মুর্শিদাবাদে জেলাশাসকের নেতৃত্বে টাস্ক ফোর্স গঠন করা হয়েছে। গত ২৪ নভেম্বের বহরমপুরে জেলাশাসকের অফিসের সভাগৃহে সেই টাস্ক ফোর্সের প্রথম বৈঠকও হয়েছে। সেখানে টিকাকরণের প্রস্তুতি নিয়ে যেমন আলোচনা হয়েছে, তেমনই ব্লকস্তরেও বিডিওদের নেতৃ্ত্বে যে টাস্ক ফোর্স গঠনের নির্দেশ দেওয়া হয়েছে তা দ্রুত সম্পন্ন করার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

মুর্শিদাবাদের জেলাশাসক জগদীশপ্রসাদ মিনা বলেন, ‘‘করোনার টিকাকরণের প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে। টিকারকণের কাজ দেখভালের জন্য জেলাস্তরের টাস্ক ফোর্স গঠন করে বৈঠকও করা হয়েছে।’’

টাস্ক ফোর্সের কাজ কী? সূত্রের খবর, কত জনের টিকা দেওয়া হচ্ছে, টিকাকরণের দায়িত্বে যাঁরা আছেন তাঁদের প্রশিক্ষণ দেওয়া হয়েছে কিনা, ঠিকভাবে সব জায়গায় টিকা পৌঁছে দেওয়া হচ্ছে কি না, কোথায় টিকা রাখা হবে তা দেখার দায়িত্ব জেলাস্তরের টাস্ক ফোর্সের। এছাড়া টিকাকরণে মানুষকে উৎসাহ দেওয়া, টিকাকরণে যাতে কোনও রকম ব্যাহত না হয় তাও ওই কমিটিকে দেখতে হবে। সূত্রের খবর, জেলার ৪৪টি জায়গাকে টিকা রাখার জন্য চিহ্নিত করা হয়েছে। টিকা এলে সেই সব জায়গায় রাখা হবে।

Advertisement

জেলা স্তরের টাস্ক ফোর্সের সদস্য তথা মুর্শিদাবাদের মুখ্যস্বাস্থ্য আধিকারিক প্রশান্ত বিশ্বাস বলেন, ‘‘করোনার টিকাকরণ নিয়ে রাজ্যের নির্দেশ মতো আমরা প্রস্তুতি নিয়েছি। যে সব জায়গায় টিকা রাখা হবে তাও ঘুরে দেখা হয়েছে।’’

বিভিন্ন দেশে করোনার টিকা নিয়ে ট্রায়াল চলছে। কবে টিকা বাজারে আসবে তার এখনও ঠিক নেই। তবে টিকা শীঘ্রই বাজারে আসবে ধরে নিয়ে গত অক্টোবর মাসে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রক জানিয়েছিল, আগামী বছর জুলাই মাসের মধ্যে দেশের ২৫কোটি মানুষকে করোনার টিকা দেওয়া হবে। আর টিকা হাতে পেলে প্রথমে স্বাস্থ্যকর্মীদের প্রয়োগ করা হবে। সেই মতো করোনার বিরুদ্ধে লড়াইয়ে প্রথম সারিতে থাকা চিকিৎসার সাথে যুক্ত লোকজনের তালিকা তৈরি করেছে মুর্শিদাবাদ জেলা স্বাস্থ্য দফতর।

Advertisement