×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

০৮ মে ২০২১ ই-পেপার

সিভিককে মারধর অভিযুক্ত নেতা

নিজস্ব সংবাদদাতা
জলপাইগুড়ি ও লাটাগুড়ি ১৭ অগস্ট ২০২০ ০৬:৪৮
প্রতীকী ছবি

প্রতীকী ছবি

স্বাধীনতা দিবসে ঘুরতে বেরিয়ে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টির অভিযোগ উঠল জলপাইগুড়ি পুরসভার এক বিদায়ী তৃণমূল কাউন্সিলর ও তাঁর সঙ্গীদের বিরুদ্ধে। শনিবার সন্ধ্যায় লাটাগুড়ি বাজারে এই ঘটনা ঘটেছে। স্থানীয় সূত্রের খবর, গাড়ি পার্কিং করাকে ঘিরে বচসায় জড়িয়ে পড়েন ওই বিদায়ী কাউন্সিলর ও তাঁর সঙ্গীরা ।

পুলিশ সূত্রের খবর, জলপাইগুড়ি পুর এলাকার ২১ নম্বর ওয়ার্ডের বিদায়ী কাউন্সিলর সমীর দাস-সহ ৫ জন লাটাগুড়ি লাগোয়া জঙ্গলে বেড়াতে যান। সেখান থেকে ফেরার পথে তাঁরা লাটাগুড়ি বাজারে দীর্ঘ সময় ধরে গাড়ি পার্কিং করে রাখেন বলে অভিযোগ। এর ফলে বাজারের রাস্তায় যানজট তৈরি হয় বলে অভিযোগ স্থানীয়দের। এই অভিযোগকে ঘিরেই স্থানীয়দের সঙ্গে বচসায় জড়িয়ে পড়েন তাঁরা। সমস্যা মেটাতে সিভিক ভলান্টিয়ার ও পুলিশ কর্মীরা এগিয়ে এলে তাঁদের সঙ্গেও বিদায়ী কাউন্সিলর ও তাঁর সঙ্গীরা দুর্ব্যবহার করেছেন বলে অভিযোগ। অভিযোগ, এক সিভিক ভলান্টিয়ারকে মারধর করেন তাঁরা। ক্রান্তি ফাঁড়ির পুলিশ বিদায়ী কাউন্সিলর ও তাঁর সঙ্গীদের আটক করে। তাঁদের ফাঁড়িতে নিয়ে আসা হয় বলে পুলিশ জানিয়েছে ।

মঙ্গলবার সকালে পুলিশের কাছে মুচলেকা দিয়ে ছাড়া পান তাঁরা । মালবাজার থানার ওসি শুভাশিস চক্রবর্তী জানান, লাটাগুড়ি এলাকাতে গোলমালের অভিযোগে তাঁদের আটক করা হয়েছিল।

Advertisement

লাটাগুড়ির তৃণমূল নেত্রী মহুয়া গোপ বলেন, ‘‘এই ধরনের ঘটনা মেনে নেওয়া যায় না।’’ তৃণমূলের জলপাইগুড়ি জেলা সভাপতি কৃষ্ণ কুমার কল্যাণী বলেন, ‘‘দল কখনও এই ধরনের ঘটনাকে প্রশ্রয় দেবে না। আইন আইনের পথে চলবে।’’

অভিযুক্ত বিদায়ী কাউন্সিলর সমীর দাস তাঁর বিরুদ্ধে ওঠা সব অভিযোগ অস্বীকার করেছেন। তিনি বলেন, ‘‘এই ধরনের কোনও ঘটনা ঘটেনি।’’

Advertisement