Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৭ মে ২০২২ ই-পেপার

URL Copied
Something isn't right! Please refresh.

দালালচক্র নিয়ে উদ্বেগ বিচারকের

সরকারি দফতরে দালালচক্রের উপস্থিতি নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করলেন শিলিগুড়ি মহকুমা আইনি পরিষেবা সমিতির চেয়ারম্যান তথা বিচারক অজয়কুমার দাস। তিনি শিল

নিজস্ব সংবাদদাতা
শিলিগুড়ি ২৮ নভেম্বর ২০১৬ ০১:৪০
Save
Something isn't right! Please refresh.
অজয়কুমার দাস

অজয়কুমার দাস

Popup Close

সরকারি দফতরে দালালচক্রের উপস্থিতি নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করলেন শিলিগুড়ি মহকুমা আইনি পরিষেবা সমিতির চেয়ারম্যান তথা বিচারক অজয়কুমার দাস। তিনি শিলিগুড়ির অতিরিক্ত জেলা এবং দায়রা বিচারক পদেও আছেন। আগামী ৪ ডিসেম্বর মহকুমার তরাই-র মোতিধর চা বাগানে লোক আদালত হবে। রবিবার দুপুরে সেই লোক আদালতটি সম্পর্কে বিস্তারিত জানাতে গিয়ে কথা প্রসঙ্গে বিচারক দালালচক্র নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করেছেন। তিনি বলেন, ‘‘মানুষের মধ্যে সচেতনতার অভাব রয়েছেই। অনেক সময়ই মিডলম্যান, দালালচক্রের জন্য চা বাগান, গ্রামের মানুষ সরকারি সুযোগ সুবিধা ঠিকঠাক পান না। তাঁরা দফতরের দায়িত্বপ্রাপ্ত অফিসারের অবধি পৌঁছতেই পারেন না। টাকা পয়সার বিষয়ও থাকে। আইনি সচেতনতা শিবিরের সময় এসব আমাদের সামনে এসেছে।’’

পরিষেবা সমিতির তরফে জানানো হয়েছে, চা বাগানের শ্রমিকদের নানা সরকারি প্রকল্প, শৌচালয়, রেশন কার্ড, ১০০ দিনের কাজ, পেনশন, পিএফ, আধার কার্ড-সহ নানা সমস্যার দ্রুত সমাধানে চলতি বছরের জানুয়ারি থেকে লোক আদালত হচ্ছে মহকুমায়। মোতিধর বাগানের আগে উত্তরবঙ্গের বান্দাপানি, বাগরাকোট, পানিঘাটা, রেডব্যাঙ্ক, গঙ্গারাম চা বাগানে লোক আদালত হয়েছে। নানা ধরনের ৪২০০ বেশি আবেদন সেখানে নিস্পত্তি করা হয়েছে। আগামী ৪ ডিসেম্বরের লোক আদালতে কলকাতা হাইকোর্টের বিচারপতি জয়মাল্য বাগচি, অনিরুদ্ধ বোস ছাড়াও বিচারক অভিজিৎ সোম, মৌমিতা ভট্টাচার্যদের থাকার কথা। নানা দফতরের দায়িত্বপ্রাপ্ত অফিসারেরা ছাড়াও জেলাশাসক থেকে পুলিশ-প্রশাসনের অফিসারেরা আসবেন। আধার কার্ডের মেশিন বসিয়ে সেই দিনই কার্ড তৈরির প্রক্রিয়া চালু হবে।

পরিষেবা সমিতির চেয়ারম্যান অজয়বাবু জানান, ‘‘মানুষকে নানা ধরনের সমস্যার সম্মুখীন হতে আমরা দেখছি। আবেদনপত্র পড়া মাত্রই সংশ্লিষ্ট দফতরের অফিসারদের ডেকে আলোচনা করা হচ্ছে। তার পরে তা লোক আদালতে নিষ্পত্তির জন্য রাখা হয়। মোতিধর চা বাগানে ইতিমধ্যে ১৫০০ আবেদনপত্র জমা পড়ে গিয়েছে। এর মধ্যে ৫৮১টা রেশন কার্ড সংক্রান্ত সমস্যা রয়েছে। খোঁজখবরের পর আমার দেখেছি, অনেক ক্ষেত্রে মানুষ জানেনই না ঠিক কী করতে হবে। আবার অনেকেই কাজের জন্য দালালদের টাকা দিয়ে দিচ্ছেন। এতে কাজ ঠিকঠাক না হওয়ায় দুঃস্থ চা শ্রমিকেরা দফতরে দফতরে ঘুরছেন। আমরা লোক আদালতে মামলা নিষ্পত্তি করে দেব। পরে, সংশ্লিষ্ট দফতর নির্দিষ্ট সময়ে সেই কাজ করবে।’’

Advertisement

লোক আদালতের পরিষেবা সমিতিকে সহযোগিতা করছে দার্জিলিং জেলা লিগ্যাল এড ফোরাম। সংগঠনের সম্পাদক অমিত সরকার জানান, মোতিধরের শিশু সুরক্ষার আবেদনও জমা রয়েছে। এক দম্পতি একটি মামলায় গ্রেফতার হওয়ায় তাদের দুই শিশু ঠাকুমার কাছে আছে। তিনি সরকারি সাহায্যের আবেদন করেছেন। তেমনই, জমি অধিকার, বিপিএল কার্ড থাকলেও প্রধানমন্ত্রী আবাস যোজনার যে প্রকল্পগুলি নানা জটিলতায় ঝুলে রয়েছে, সেগুলি মেটানোর চেষ্টা করা হবে। সকাল ১০টা থেকে বিকাল ৫টা অবধি লোক আদালত চলবে।



Something isn't right! Please refresh.

Advertisement