Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

০৩ ডিসেম্বর ২০২১ ই-পেপার

বধূকে বাঁচাতে আহত শ্বশুর

নিজস্ব সংবাদদাতা 
পুরাতন মালদহ ১১ ফেব্রুয়ারি ২০২০ ০১:১৯
ভর্তি: তরোয়ালে জখম ব্যক্তির চিকিৎসা চলছে। নিজস্ব চিত্র

ভর্তি: তরোয়ালে জখম ব্যক্তির চিকিৎসা চলছে। নিজস্ব চিত্র

ভাইপোর স্ত্রীকে কটূক্তির প্রতিবাদ করে প্রতিবেশী যুবকের হাতে ‘আক্রান্ত’ হলেন খুড়তুতো শ্বশুর। অভিযোগ, ওই ব্যক্তির উপরে তরোয়াল দিয়ে হামলা চালানো হয়। রবিবার সন্ধ্যা ৭টা নাগাদ ঘটনাটি ঘটে পুরাতন মালদহের মঙ্গলবাড়ির বুলবুলি মোড় এলাকায়। আক্রান্ত ব্যক্তি গুরুতর জখম অবস্থায় মালদহ মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে ভর্তি রয়েছেন।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে খবর, ওই ব্যক্তি পুরাতন মালদহের ১৯ নম্বর ওয়ার্ডের পালপাড়া এলাকার বাসিন্দা। তিনি পুরাতন মালদহে মোমো বিক্রি করেন। তাঁর পেট, গলা ও পিঠে ধারালো অস্ত্রের আঘাত রয়েছে। অভিযুক্ত অসীম মণ্ডলকে আটক করা হয়েছে। তদন্তকারীরা জানান, ধৃতের ডান হাতেও ধারাল অস্ত্রের আঘাত রয়েছে। তাঁকেও হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

ঘটনায় নির্দিষ্ট ধারায় মামলা রুজু করা হয়েছে বলে জানিয়েছেন মালদহের পুলিশ সুপার অলোক রাজোরিয়া। তিনি বলেন, ‘‘তদন্ত শুরু হয়েছে। সমস্ত দিক খতিয়ে দেখা হচ্ছে।’’ পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে খবর, এ দিন সন্ধ্যা ৭টা নাগাদ পুরাতন মালদহের বুলবুলি মোড়ে ৩৪ নম্বর জাতীয় সড়কের পাশে চায়ের দোকানের সামনে দাঁড়িয়েছিলেন ‘আক্রান্ত’ ব্যক্তি। আচমকা এক বন্ধুর সঙ্গে অটোরিকশা সেখানে পৌঁছন অসীম। অভিযোগ, এর পরেই তরোয়াল বের করে ওই ব্যক্তিকে এলোপাথাড়ি কোপ মারেন। রক্তাক্ত অবস্থায় মাটিতে লুটিয়ে পড়েন ওই ব্যক্তি। এলাকাবাসীই হানাদারকে ধরে পুলিশের হাতে তুলে দেন। স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে, অসীম পুরাতন মালদহের যুব তৃণমূল সভাপতি দিলীপ সাহার ব্যক্তিগত গাড়ির চালক।

Advertisement

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে খবর, অসীমের বন্ধু ওই এলাকারই বাসিন্দা রঞ্জন দাস আক্রান্ত ব্যক্তির ভাইপোর স্ত্রীকে বছরখানেক ধরে উত্ত্যক্ত করত বলে অভিযোগ। তা নিয়ে একাধিক বার দুই পরিবারের মধ্যে গোলমালও হয়। স্থানীয় বাসিন্দাদের একাংশের অভিযোগ, সপ্তাহখানেক আগে অসীমের সঙ্গে ওই তরুণীর খুড়তুতো শ্বশুরের গোলমাল হয়। তা নিয়ে সালিশি সভাও ডাকা হয়েছিল। তার আগেই হামলা হল বলে অভিযোগ।

যুব তৃণমূল নেতা দিলীপ সাহা বলেন, ‘‘সাত দিন আগে যখন দু’পক্ষে মারপিট হয় তখন পুলিশ পদক্ষেপ করেনি। তা করা হলে এমন হত না।’’ ওই ওয়ার্ডের কাউন্সিলর তৃণমূলের নৃপেন পাল বলেন, ‘‘রাস্তায় তরোয়াল নিয়ে হামলা চালানো হয়েছে। পুলিশকে ব্যবস্থা নিতে বলা হয়েছে।’’

আরও পড়ুন

Advertisement