Advertisement
২২ জুন ২০২৪
Malda

জোটের পথ খোলা রেখেই প্রার্থী বাছাই শুরু কংগ্রেসের

পঞ্চায়েত ভোটে কংগ্রেসের মালদহের পর্যবেক্ষক নেপাল মাহাতো বলেন, “কংগ্রেস ছেড়ে কেউ তৃণমূল, কেউ বা আবার বিজেপিতে গিয়েছেন।

অভিজিৎ সাহা
মালদহ শেষ আপডেট: ৩০ মার্চ ২০২৩ ০৭:২৯
Share: Save:

বামেদের সঙ্গে জোটের রাস্তা খোলা রেখে মালদহে পঞ্চায়েতের প্রার্থী বাছাইয়ের কাজ শুরু করল কংগ্রেস। আগামী এক সপ্তাহের মধ্যেই ত্রিস্তর পঞ্চায়েতের প্রার্থী তালিকা তৈরি করে রাজ্যে পাঠানোর জন্য প্রস্তুতি শুরু হয়েছে, দাবি জেলা কংগ্রেস নেতৃত্বের। তাঁদের দাবি, প্রথম পর্যায়ে তফসিলি জাতি, জনজাতির জন্য সংরক্ষিত আসনে প্রার্থী তালিকা তৈরি করা হচ্ছে। প্রায় ৮০ শতাংশ আসনে প্রার্থী তালিকা তৈরিও হয়ে গিয়েছে।

পঞ্চায়েত ভোটে কংগ্রেসের মালদহের পর্যবেক্ষক নেপাল মাহাতো বলেন, “কংগ্রেস ছেড়ে কেউ তৃণমূল, কেউ বা আবার বিজেপিতে গিয়েছেন। তাঁদের অনেকেই নিজেদের ভুল বুঝতে পেরে, ফের দলে ফিরতে চাইছেন। তাঁদের দলে ফেরানো হবে। তবে তাঁদের পঞ্চায়েতে টিকিট দেওয়া হবে কি না, সে ব্যাপারে স্থানীয় নেতৃত্বের মতামতকে গুরুত্ব দেওয়া হবে।” এ ছাড়া, বামেদের সঙ্গে জোট নিয়ে দলের নিচু স্তরের নেতা, কর্মীরা কাজ শুরু করে দিয়েছেন বলে জানান তিনি।

ত্রিস্তর পঞ্চায়েত ভোটে এ বার জেলায় আসন সংখ্যা বেড়েছে। প্রশাসনের দাবি, গ্রাম পঞ্চায়েতে ২,২৮১ থেকে আসন বেড়ে হয়েছে ৩,১৮৬টি। এ ছাড়া, পঞ্চায়েত সমিতিতে ৪২৩ থেকে ৪৩৬ এবং জেলা পরিষদে ৩৮ থেকে আসন বেড়ে ৪৩টি হয়েছে। ২০১৮ সালে পঞ্চায়েত ভোটে ত্রিস্তরেই বামেদের সঙ্গে আসন সমঝোতা করে লড়াই করেছিল কংগ্রেস। তার পরেও, জেলায় দু’দলই ধাক্কা খেয়েছিল। এ বারও পঞ্চায়েত ভোটে বামেদের সঙ্গে জোট করে লড়াইয়ের প্রস্তুতি কংগ্রেস শুরু করে দিয়েছে।

মালদহে কংগ্রেসের প্রবীণ নেতা কালীসাধন রায় বলেন, “গ্রাম পঞ্চায়েত, পঞ্চায়েত সমিতিতে বামেদের সঙ্গে জোটের পথ খোলা রেখেই প্রার্থী তালিকা তৈরির কাজ শুরু হয়েছে। নিচুতলার নেতা, কর্মীরা নিজেরাই তা ঠিক করছেন। যদিও জেলা স্তরে এখনও জোট নিয়ে কিছু আলোচনা হয়নি।” সিপিএমের জেলা সম্পাদক অম্বর মিত্র বলেন, “বামফ্রন্টগত ভাবে আমাদের প্রার্থী তালিকা তৈরির কাজ চলছে। কংগ্রেস কিংবা অন্য কোনও ধর্ম নিরপেক্ষ দলের সঙ্গে জোট হলে, তা পরে আলোচনা করা হবে।”

বাম, কংগ্রেসসকে কটাক্ষ করে সরব হয়েছে তৃণমূল। মালদহের তৃণমূলের জেলা সভাপতি আব্দুর রহিম বক্সীর দাবি, “দুই দলই একে অপরকে আঁকড়ে ধরে বাঁচার চেষ্টা করছে। মানুষ তাদের জবাব দেবেন।” বিজেপির উত্তর মালদহের সভাপতি উজ্জ্বল দত্তের মন্তব্য, “২০১৮ সালে তৃণমৃল, বাম-কংগ্রেস জোটকে হারিয়ে আমরা জেলায় সাফল্য পেয়েছিলম। এ বার আরও বেশি পাব।’’

কংগ্রেসের মালদহের পর্যবেক্ষক ইশা খান চৌধুরী বলেন, “বুথ স্তরে বৈঠক করে প্রার্থী তালিকা তৈরি হচ্ছে। জেলা স্তরে বামেদের সঙ্গে এখনও জোট নিয়ে আলোচনা হয়নি। তবে অনেক এলাকায় স্থানীয় নেতৃত্ব তৃণমূল, বিজেপিকে ঠেকাতে বামেদের সঙ্গে কাজ শুরু করেছেন।”

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)

অন্য বিষয়গুলি:

Malda Panchayat Election Congress
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement

Share this article

CLOSE