Advertisement
২৩ এপ্রিল ২০২৪
jalpaiguri

Jalpaiguri: জলপাইগুড়িতে রাস্তা ভাসছে, খুদেদের কোলে করে স্কুলে পৌঁছে দিল পুলিশ

হাইওয়ের উপর দিয়ে হুহু করে বইছিল জল। সেই প্রবল স্রোতের মাঝে আটকে পড়েছিল খুদে পড়ুয়ারা। ত্রাতা হয়ে দাঁড়াল পুলিশ।

প্যান্ট গুটিয়ে ছোটদের কোলে তুলে নিল পুলিশ।

প্যান্ট গুটিয়ে ছোটদের কোলে তুলে নিল পুলিশ। নিজস্ব চিত্র

নিজস্ব সংবাদদাতা
জলপাইগুড়ি শেষ আপডেট: ২৫ অগস্ট ২০২২ ১১:২৫
Share: Save:

এক ঘণ্টার বৃষ্টিতে জল থইথই জলপাইগুড়ির বিস্তীর্ণ এলাকা। হাইওয়ের উপর দিয়ে হুহু করে বইছিল জল। সেই প্রবল স্রোতের মাঝে আটকে পড়েছিল খুদে পড়ুয়ারা। স্কুলে যাওয়ার পথে তাদের ত্রাতা হয়ে দাঁড়াল পুলিশ। কচিকাঁচাদের কোলে করে পুলিশকর্মীরা পার করলেন বানভাসি রাস্তা। মঙ্গলবার দুপুরে ঘণ্টাখানেকের জন্য মুষলধারে বৃষ্টি হয়েছিল জলপাইগুড়িতে। তাতেই চালসা মেটেলি রাজ্য সড়কের উপর দিয়ে বইতে থাকে প্রবল জলস্রোত। স্কুল যাওয়ার সময় মাঝ রাস্তাতেই আটকে পড়ে একদল পড়ুয়া। কী ভাবে ওই ভয়ঙ্কর স্রোত পেরিয়ে তারা স্কুলে যাবে? তবে কি বাড়ি ফিরে যেতে হবে? তাদের মুশকিল আসান হয়ে ওঠে পুলিশ।

রাস্তায় স্কুলপড়ুয়ারা আটকে পড়েছে শুনেই ঘটনাস্থলে পৌঁছন জলপাইগুড়ি মেটেলি থানার পুলিশকর্মীরা। পরিস্থিতি বিবেচনা করে তাঁরা দেখেন পরবর্তী দুই থেকে তিন ঘণ্টার মধ্যে এই রাস্তায় জল নামবে না। তখন তাঁরা নিজেরাই বাচ্চাগুলিকে স্কুলে পৌঁছে দেওয়ার উদ্যোগ নেন।

প্যান্ট গুটিয়ে জলে নেমে পড়েন পুলিশকর্মীরা। স্রোত পেরিয়ে পৌঁছে যান রাস্তার ওপারে। একে একে স্কুল পড়ুয়াদের কোলে তুলে নেন তাঁরা। কোলে করেই রাস্তা পার করিয়ে দেন।

শুধু তাই নয়, কালভার্টের নীচে জমে থাকা আবর্জনাও পরিষ্কার করতে দেখা যায় মেটেলি থানার পুলিশকর্মীদের। তাঁদের সাহায্যে সে দিন নিরাপদে স্কুলে পৌঁছয় কচিকাঁচারা। পুলিশের এমন উদ্যোগকে কুর্নিশ জানিয়েছেন অনেকেই।

আইভিল চা বাগানে গ্রাম পঞ্চায়েত সদস্য বিধ্যাস খেরিয়া জানান, একটু বৃষ্টি হলেই জল জমে যায় এই এলাকায়। পুলিশের ভূমিকা নিঃসন্দেহে প্রশংসার যোগ্য।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE