×

আনন্দবাজার পত্রিকা

Advertisement

২৬ জানুয়ারি ২০২১ ই-পেপার

পুলিশকে পাশে নিয়ে চোলাই, হাঁড়িয়ার ঠেক ভাঙলেন মহিলারা

নিজস্ব সংবাদদাতা
জলপাইগুড়ি২৩ নভেম্বর ২০২০ ১৭:০৭
চোলাইয়ের ঠেক ভাঙার অভিযানে পুলিশ। নিজস্ব চিত্র।

চোলাইয়ের ঠেক ভাঙার অভিযানে পুলিশ। নিজস্ব চিত্র।

চোলাই ও হাঁড়িয়া বিক্রির বিরুদ্ধে আন্দোলনে নামলেন জলপাইগুড়ির চা বাগানের মহিলা শ্রমিকরা। জলপাইগুড়ির বানারহাট থানার পুলিশ স্থানীয় ক্লাব এবং এলাকার মহিলাদের নিয়ে বেশ কয়েকটি চোলাই ও হাঁড়িয়ার ঠেক ভেঙে দেয়। ওই মহিলাদের অভিযোগ বাড়ির পুরুষেরা যা টাকা আয় করে দিনের শেষে তার সবটাই চোলাই আর হাঁড়িয়ায় উড়িয়ে দেয়। পাড়ার মধ্যে এই ঠেকগুলি ভাঙার জন্য দীর্ঘদিন ধরে দাবি তুলছিলেন তাঁরা।

জলপাইগুড়ির গয়েরকাটা সাকোয়াঝোরা ১ নম্বর গ্রাম পঞ্চায়েতের আম্বাডিপা এলাকায় বেশ কিছু দীর্ঘ দিন ধরে বেশ কিছু চোলাই ও হাঁড়িয়ার ঠেক গড়ে ওঠে। স্থানীয় মহিলা কুসুম মাঝি অভিযোগ করেন, “একাধিকবার বারণ করা সত্ত্বেও ওই এলাকার কিছু অসাধু ব্যবসায়ী নিজের স্বার্থসিদ্ধির জন্য নিষিদ্ধ চোলাই মদ ও হাঁড়িয়ার রমরমা ব্যবসা চালাচ্ছিল। সেই কারণেই আজ আমরা আন্দোলনে নেমেছি”।

ওই এলাকার প্রচুর মানুষ ওই মদের ঠেকে গিয়ে সর্বশ্রান্ত হয়েছে বলে অভিযোগ। যার জেরে প্রায় প্রতিটি ঘরে অশান্তি লেগে থাকে। এই কারণেই সোমবার ওই এলাকার বাসিন্দারা একটি মিছিল করে মদের ঠেকে হানা দেন। বাজেয়াপ্ত করা হয় প্রচুর চোলাই মদ ও হাঁড়িয়া তৈরির সামগ্রীও।

Advertisement

এলাকার গ্রামপঞ্চায়েত প্রধান বিনোদন ওরাও বলেন, “এলাকায় দীর্ঘদিন থেকে চোলাই মদের ব্যাবসা চলছিল। আজ গ্রামের মহিলারা এক জোট হয়ে সেই অবৈধ কারবারের ঠেক ভাঙে দেন। বানারহাট থানার পুলিশও ছিল।”

Advertisement