Advertisement
১৮ এপ্রিল ২০২৪
Paresh Adhikary

প্রভাব খাটিয়ে মেয়েকে চাকরি! নেপথ্যে আর কে? পরেশকে তলব করে জিজ্ঞাসাবাদ করছে ইডি

সোমবার সিজিও কমপ্লেক্সে এসে পৌঁছন পরেশ। তাঁর বিরুদ্ধে মূল অভিযোগ, প্রভাব খাটিয়ে নিজের মেয়েকে চাকরি পাইয়ে দিয়েছিলেন তিনি। সেই বিষয়ে তাঁর বয়ান রেকর্ড করছে ইডি।

কেন্দ্রীয় সংস্থার জিজ্ঞাসাবাদের মুখে প্রাক্তন শিক্ষা প্রতিমন্ত্রী।

কেন্দ্রীয় সংস্থার জিজ্ঞাসাবাদের মুখে প্রাক্তন শিক্ষা প্রতিমন্ত্রী। —ফাইল ছবি

নিজস্ব সংবাদদাতা
কলকাতা শেষ আপডেট: ০৭ নভেম্বর ২০২২ ১৩:৩৭
Share: Save:

এসএসসি নিয়োগ দুর্নীতি-কাণ্ডে রাজ্যের প্রাক্তন শিক্ষা প্রতিমন্ত্রী পরেশ অধিকারীকে জিজ্ঞাসাবাদ করছে এনফোর্সমেন্ট ডিরেক্টরেট (ইডি)। সোমবার বেলার দিকে সিজিও কমপ্লেক্সে হাজিরা দেন তিনি। নিয়োগ দুর্নীতি সংক্রান্ত বিষয়ে জিজ্ঞাসাবাদ করতেই তাঁকে ডেকে পাঠানো হয়েছে বলে খবর।

সোমবার বেলা ১২টার কিছু আগে সিজিও কমপ্লেক্সে এসে পৌঁছন পরেশ। তাঁর বিরুদ্ধে মূল অভিযোগ, প্রভাব খাটিয়ে নিজের মেয়েকে চাকরি পাইয়ে দিয়েছিলেন তিনি। সূত্রের খবর, সেই বিষয়ে তাঁর বয়ান রেকর্ড করছে ইডি।

হাই কোর্টের নির্দেশে পরেশের মেয়ে অঙ্কিতা অধিকারীকে চাকরি থেকে বরখাস্ত করা হয়। শুধু তাই নয়, অঙ্কিতার চাকরি দিয়ে দেওয়া হয় ‘যোগ্য প্রার্থী’ ববিতা সরকারকে। অঙ্কিতার বেতনও হাতে পান ববিতা। হাই কোর্টের নির্দেশে এসএসসি দুর্নীতি-কা‌ণ্ডের তদন্ত করছে সিবিআই। সেই সূত্রে এর আগে পরেশকে সিবিআইয়ের গোয়েন্দারা জিজ্ঞাসাবাদ করেছিলেন। এ বার আর এক কেন্দ্রীয় সংস্থার জিজ্ঞাসাবাদের মুখে প্রাক্তন শিক্ষা প্রতিমন্ত্রী।

সূত্রের খবর, অঙ্কিতার চাকরি প্রসঙ্গে পরেশের কাছে খুঁটিনাটি তথ্য চাইছে ইডি। প্রভাব খাটিয়ে মেয়েকে চাকরি পাইয়ে দিতে তিনি আর কার কার সঙ্গে যোগাযোগ করেছিলেন? গোটা প্রক্রিয়ায় আর কে কে জড়িত ছিলেন? এই নিয়োগের নেপথ্যে তৎকালীন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের হাত ছিল কি না, শান্তিপ্রসাদ সিনহাদের যে উপদেষ্টা কমিটি এসএসসি-র নিয়োগ সংক্রান্ত বিষয়গুলি দেখত, সেই কমিটি কার নির্দেশে কাজ করত— পরেশকে জিজ্ঞাসাবাদ করে মূলত এই সমস্ত প্রশ্নের উত্তর খুঁজতে চাইছে ইডি।

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, X (Twitter), Facebook, Youtube, Threads এবং Instagram পেজ)
সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের মাধ্যমগুলি:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE