Advertisement
০৮ ফেব্রুয়ারি ২০২৩

আইসি-র অপসারণ চেয়ে পথে বিজেপি

ফের রামপুরহাট থানার আইসি মহম্মদ আবু সেলিমের অপসারণের দাবিতে সরব হল বিজেপি। বৃহস্পতিবার দলের রামপুরহাট মণ্ডল কমিটি আইসি-র বিরুদ্ধে আট দফা দাবি নিয়ে রামপুরহাট মহকুমা পুলিশ আধিকারিকের কাছে স্মারকলিপি দিল। ওই কর্মসূচিতে দলের রাজ্য নেতা সুভাষ সরকার, জেলা আহ্বায়ক অর্জুন সাহা, প্রাক্তন জেলা সভাপতি তাপস মুখোপাধ্যায়-সহ রামপুরহাট পুরসভা নির্বাচনে দলের নির্বাচিত কাউন্সিলর এবং শতাধিক কর্মী-সমর্থক শহরে মিছিল করে আইসি-র কার্যকলাপের বিরুদ্ধে শ্লোগান দেন।

নিজস্ব সংবাদদাতা
রামপুরহাট শেষ আপডেট: ২৩ মে ২০১৫ ০২:০৮
Share: Save:

ফের রামপুরহাট থানার আইসি মহম্মদ আবু সেলিমের অপসারণের দাবিতে সরব হল বিজেপি। বৃহস্পতিবার দলের রামপুরহাট মণ্ডল কমিটি আইসি-র বিরুদ্ধে আট দফা দাবি নিয়ে রামপুরহাট মহকুমা পুলিশ আধিকারিকের কাছে স্মারকলিপি দিল। ওই কর্মসূচিতে দলের রাজ্য নেতা সুভাষ সরকার, জেলা আহ্বায়ক অর্জুন সাহা, প্রাক্তন জেলা সভাপতি তাপস মুখোপাধ্যায়-সহ রামপুরহাট পুরসভা নির্বাচনে দলের নির্বাচিত কাউন্সিলর এবং শতাধিক কর্মী-সমর্থক শহরে মিছিল করে আইসি-র কার্যকলাপের বিরুদ্ধে শ্লোগান দেন। দলের নেতাদের দাবি, রামপুরহাট থানাকে তৃণমূলের দলীয় কার্যালয়ে পরিণত করা চলবে না। বিজেপি-র রাজ্য নেতা সুভাষ সরকারের অভিযোগ, ‘‘রামপুরহাট থানার বর্তমান আইসি থানায় যোগদান করার পর থেকেই একটি বিশেষ রাজনৈতিক দলের স্বার্থ রক্ষার্থে কাজ করছেন। তাঁর একমাত্র লক্ষ্য ওই রাজনৈতিক দলকে সুবিধা পাইয়ে দেওয়া। সাধারণ নাগরিককে তুচ্ছ কারণে থানায় ডেকে এনে থানার হাজতে ঢুকিয়ে তৃণমূল নেতাদের ডেকে এনে তাকে হাজত থেকে মুক্তও উনি করে দেন।” বিজেপি নেতৃত্বের অভিযোগ, দল করার নাম শুনলেই আইসি অন্যায় ও বেআইনি ভাবে তাঁদের কর্মী-সমর্থকদের বেধড়ক মারধর করেন। এ ছাড়া রামপুরহাট থানা এলাকায় বর্তমানে সার্বিক ভাবে আইন শৃঙ্খলার অবনতি, শহরে তোলাবাজি ও বোমাবাজি এবং সমাজ বিরোধীদের অত্যাচার, ছিনতাই ও মহিলাদের উপর অত্যাচার এই আইসি-র আমলে বেড়েছে বলেও বিজেপি-র দাবি। বিজেপি নেতৃত্বর দাবি, বিজেপি কর্মী শান্তনু মণ্ডলকে রামপুরহাট থানা থেকে বের করে দেওয়ার জন্য আইসি-কে ক্ষমা চাইতে হবে। রামপুরহাট থানা এলাকায় সমাজবিরোধীদের দৌরাত্ম্যও বন্ধ করতে হবে। এসডিপিও (রামপুরহাট) জোবি থমাস কে বলেন, ‘‘আইসি-র বিরুদ্ধে বেশ কিছু অভিযোগ নিয়ে বিজেপি-র পক্ষ থেকে স্মারকলিপি জমা পড়েছে। তদন্ত করে দেখা হবে।’’

(সবচেয়ে আগে সব খবর, ঠিক খবর, প্রতি মুহূর্তে। ফলো করুন আমাদের Google News, Twitter এবং Instagram পেজ)
Follow us on: Save:
Advertisement
Advertisement

Share this article

CLOSE
Popup Close
Something isn't right! Please refresh.