Follow us on

Download the latest Anandabazar app

© 2021 ABP Pvt. Ltd.

Advertisement

২৬ অক্টোবর ২০২১ ই-পেপার

রেল পরিষেবা নিয়ে বিক্ষোভ চলল স্টেশনে

নিজস্ব সংবাদদাতা
বিষ্ণুপুর ০৪ জানুয়ারি ২০২১ ০৪:৪১
রবিবার বিষ্ণুপুর স্টেশন চত্বরে। নিজস্ব চিত্র।

রবিবার বিষ্ণুপুর স্টেশন চত্বরে। নিজস্ব চিত্র।

সব ট্রেন চালানো, স্টপ দেওয়া ও বাড়ানো ভাড়া প্রত্যাহারের দাবিতে বিক্ষোভ সমাবেশ হল বিষ্ণুপুর স্টেশন চত্বরে। রবিবার সকালে খড়্গপুর-আদ্রা রেলওয়ে প্যাসেঞ্জার্স অ্যাসোসিয়েশন ও বিষ্ণুপুর চেম্বার অফ কমার্সের যৌথ উদ্যোগে ওই কর্মসূচির পরে বিষ্ণুপুরের স্টেশন ম্যানেজারকে স্মারকলিপি দেওয়া হয়। উপস্থিত ছিলেন খড়্গপুর-আদ্রা রেলওয়ে প্যাসেঞ্জার্স অ্যাসোসিয়েশনের বিষ্ণুপুর স্টেশন ইউনিটের সম্পাদক শেখ নুর মহম্মদ, ওন্দা ইউনিটের সম্পাদক দেবু গোস্বামী, গড়বেতার সম্পাদক দুর্গাদাস দে, বিষ্ণুপুর চেম্বার অফ কমার্সের তরফে আশিস দে প্রমুখ। দাবিগুলির মধ্যে রয়েছে হাওড়া-চক্রধরপুর ট্রেনের বিষ্ণুপুরে স্টপ দেওয়া, রূপসী বাংলা, হলদিয়া-আসানসোল, হাওড়া-রাঁচী, খড়্গপুর-হাটিয়া, আদ্রা-হাওড়া শিরোমণি— এই ট্রেনগুলি চালু করা। যাত্রীদের সংগঠনটির তরফে দেবু গোস্বামী বলেন, “দীর্ঘ দিন পরে ট্রেন চলা শুরু হলেও বিভিন্ন জায়গা থেকে স্টপ তুলে দেওয়া হয়েছে। হাওড়া-পুরুলিয়া এক্সপ্রেস ঝাঁটিপাহাড়ি ও ওন্দা থেকে স্টপ তুলে দিয়েছে। চক্রধরপুর-হাওড়া ট্রেনটি হাওড়া যাওয়ার সময়ে বাঁকুড়ার পরে একেবারে ওন্দা এবং তার পরে মেদিনীপুরে থামছে। হাওড়া থেকে আসার সময়ে মেদিনীপুর ও বাঁকুড়ার মাঝে কোনও স্টপ নেই। লোকাল ট্রেনকে মেল / এক্সপ্রেস তকমা দিয়ে ভাড়া তিন গুণ বাড়ানো হয়েছে। আগের অবস্থা ফেরানোর দাবিতেই আমাদের এই বিক্ষোভ সমাবেশ।”

বিষ্ণুপুরের স্টেশন ম্যানেজার অভীক ঘোষ জানান, স্মারকলিপি জমা নেওয়া হয়েছে। উর্ধ্বতন কর্তৃপক্ষের কাছে তা পাঠিয়ে দেওয়া হচ্ছে বলে জানিয়েছেন তিনি।

Advertisement

আরও পড়ুন

Advertisement